ঢাকা ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিরাজগঞ্জে আ.লীগ নেতার চাপাতির কোপে চাচাতো ভাইয়ের মৃত্যু!

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:২৭:২৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ৯৫ বার পড়া হয়েছে

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় আমিরুল ইসলাম (৫৫) নামে এক কৃষককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগে উঠেছে তার চাচাতো ভাই আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হাইয়ের বিরুদ্ধে।

সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ঢাকার নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কৃষকের মৃত্যু হয়।

রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে উপজেলার উপজেলার লাহিড়ী মোহনপুর ইউনিয়নের এলংজানী গোনাইগাঁতী গ্রামে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল হাই ও তার লোকজনের চাপাতির কোপে আমিরুলসহ তিনজন গুরুতর আহত হন। আমিরুল ওই গ্রামের ফয়জাল হোসেনের ছেলে।

আহত অন্য দুজন হলেন- আমিরুলের ভাই কাজল (৩০) ও ভাতিজা নাহিদ (২২)।

তাদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় আমিরুলকে রোববার রাতেই ঢাকায় নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের স্বজনরা জানান, জমিতে সেচ দেওয়া নিয়ে আমিরুলের সঙ্গে চাচাতো ভাই আব্দুল হাইয়ের দ্বন্দ্ব চলছিল। এরই জেরে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হাই রোববার রাতে তার লোকজন নিয়ে আমিরুলের বাড়িতে ঢুকে চাপাতি দিয়ে কোপায়। এতে গুরুতর আহত হন আমিরুল। এছাড়াও আহত হন আরও দুজন। রাতেই আমিরুলকে ঢাকায় নিয়ে নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার মারা যান তিনি। এদিকে ঘটনার পর থেকে আব্দুল হাই ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ ইতোমধ্যেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক আব্দুল হাই ও তার লোকজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। এ ব্যাপারে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

সিরাজগঞ্জে আ.লীগ নেতার চাপাতির কোপে চাচাতো ভাইয়ের মৃত্যু!

আপডেট সময় : ০৫:২৭:২৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় আমিরুল ইসলাম (৫৫) নামে এক কৃষককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগে উঠেছে তার চাচাতো ভাই আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হাইয়ের বিরুদ্ধে।

সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ঢাকার নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কৃষকের মৃত্যু হয়।

রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে উপজেলার উপজেলার লাহিড়ী মোহনপুর ইউনিয়নের এলংজানী গোনাইগাঁতী গ্রামে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল হাই ও তার লোকজনের চাপাতির কোপে আমিরুলসহ তিনজন গুরুতর আহত হন। আমিরুল ওই গ্রামের ফয়জাল হোসেনের ছেলে।

আহত অন্য দুজন হলেন- আমিরুলের ভাই কাজল (৩০) ও ভাতিজা নাহিদ (২২)।

তাদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় আমিরুলকে রোববার রাতেই ঢাকায় নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের স্বজনরা জানান, জমিতে সেচ দেওয়া নিয়ে আমিরুলের সঙ্গে চাচাতো ভাই আব্দুল হাইয়ের দ্বন্দ্ব চলছিল। এরই জেরে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হাই রোববার রাতে তার লোকজন নিয়ে আমিরুলের বাড়িতে ঢুকে চাপাতি দিয়ে কোপায়। এতে গুরুতর আহত হন আমিরুল। এছাড়াও আহত হন আরও দুজন। রাতেই আমিরুলকে ঢাকায় নিয়ে নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার মারা যান তিনি। এদিকে ঘটনার পর থেকে আব্দুল হাই ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ ইতোমধ্যেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক আব্দুল হাই ও তার লোকজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। এ ব্যাপারে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।