ঢাকা ০৮:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাঁচতে চায় শিশু শিক্ষার্থী অনুশ্রী সরকার

আক্কেলপুর (জয়পুরহাট) প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৩৪:২৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২২ ১৩৭ বার পড়া হয়েছে

যে বয়সে দৌঁড়-ঝাপ, খেলাধুলার করার কথা, সেই বয়সে বিছানায় শুয়ে দিন পার করছে শিশু শিক্ষার্থী অনুশ্রী সরকার। চিকিৎসায় ধরা পড়েছে তার হার্টে ছিদ্র রয়েছে। দরিদ্র পিতা ও পরিবারের অনান্য সদস্যরা অন্যের দারস্থ হয়ে সহায়তা নিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন তার চিকিৎসা। পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়েছেন ভারতে নিয়ে যাওয়ার। বাঁচার জন্য প্রতিনিয়ত জীবনের সাথে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থী অনুশ্রী।
অসুস্থ ওই ৮ বছর বয়সী শিশু শিক্ষার্থী জয়পুরহাট জেলাধীন আক্কেলপুর উপজেলার পৌর এলাকার বিহারপুর হিন্দুপাড়া গ্রামের অনুপ কুমার সরকারের বড় মেয়ে এবং বিহারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী।পরিবারের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাই-সাইকেল, অটো ভ্যান মেরামত করে সংসার পরিচালনা করেন ওই শিশু শিক্ষার্থীর পিতা। পরিবারের ৫ জন সদস্যের দায়িত্ব ওই দরিদ্র পিতার। কিন্তু হটাৎ করেই প্রায় ২ বছর পূর্বে অসুস্থ হয়ে পড়ে অনুশ্রী সরকার। বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা চলার পরে ধরা পড়ে তার হার্টে একটি ছিদ্র রয়েছে। দরিদ্র পিতা ও পরিবারের অনান্য সদস্যরা প্রতিবেশীসহ অনান্যদের সহায়তা নিয়ে চালিয়ে আসছিলেন তার চিকিৎসা। কিন্তু বর্তমানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়েছেন ভারতে নিয়ে যাওয়ার। এজন্য প্রয়োজন প্রায় ৪ লক্ষ টাকা। একারণে অন্যের সহায়তা পেতে দৌড়-ঝাঁপ ও নির্ঘুম রাত পার করছেন তার পিতা-মাতা ও পরিবারের অনান্য সদস্যরা। বিভিন্ন স্থান থেকে পাওয়া সহায়তা নিয়ে করা হয়েছে চিকিৎসার জন্য পাসপোর্টও। চিকিৎসার পুরো টাকা জোগাড় না হওয়ায় আরো দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তার পিতা ও মাতা।

অসুস্থ অনুশ্রী সরকারের পিতা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ‘আমার সামান্য আয়ে আমার মেয়ের চিকিৎসা ও পরিবারের অন্যান্যদের চালানো খুবই কষ্টকর হয়ে পড়েছে। আমি সকলের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করছি, আমার মেয়ের চিকিৎসার জন্য। তার দ্রæত চিকিৎসার প্রয়োজন’।

অসুস্থ অনুশ্রী সরকার বলেন,‘আমি আবার স্কুলে যেতে চাই। আমি বাঁচতে চাই। শুয়ে থাকতে আমার ভালো লাগেনা’। সহায়তার জন্য যোগাযোগ ও বিকাশ নাম্বার: ০১৭০৩-৫৪৩২৫৩ ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বাঁচতে চায় শিশু শিক্ষার্থী অনুশ্রী সরকার

আপডেট সময় : ১০:৩৪:২৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২২

যে বয়সে দৌঁড়-ঝাপ, খেলাধুলার করার কথা, সেই বয়সে বিছানায় শুয়ে দিন পার করছে শিশু শিক্ষার্থী অনুশ্রী সরকার। চিকিৎসায় ধরা পড়েছে তার হার্টে ছিদ্র রয়েছে। দরিদ্র পিতা ও পরিবারের অনান্য সদস্যরা অন্যের দারস্থ হয়ে সহায়তা নিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন তার চিকিৎসা। পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়েছেন ভারতে নিয়ে যাওয়ার। বাঁচার জন্য প্রতিনিয়ত জীবনের সাথে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থী অনুশ্রী।
অসুস্থ ওই ৮ বছর বয়সী শিশু শিক্ষার্থী জয়পুরহাট জেলাধীন আক্কেলপুর উপজেলার পৌর এলাকার বিহারপুর হিন্দুপাড়া গ্রামের অনুপ কুমার সরকারের বড় মেয়ে এবং বিহারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী।পরিবারের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাই-সাইকেল, অটো ভ্যান মেরামত করে সংসার পরিচালনা করেন ওই শিশু শিক্ষার্থীর পিতা। পরিবারের ৫ জন সদস্যের দায়িত্ব ওই দরিদ্র পিতার। কিন্তু হটাৎ করেই প্রায় ২ বছর পূর্বে অসুস্থ হয়ে পড়ে অনুশ্রী সরকার। বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা চলার পরে ধরা পড়ে তার হার্টে একটি ছিদ্র রয়েছে। দরিদ্র পিতা ও পরিবারের অনান্য সদস্যরা প্রতিবেশীসহ অনান্যদের সহায়তা নিয়ে চালিয়ে আসছিলেন তার চিকিৎসা। কিন্তু বর্তমানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়েছেন ভারতে নিয়ে যাওয়ার। এজন্য প্রয়োজন প্রায় ৪ লক্ষ টাকা। একারণে অন্যের সহায়তা পেতে দৌড়-ঝাঁপ ও নির্ঘুম রাত পার করছেন তার পিতা-মাতা ও পরিবারের অনান্য সদস্যরা। বিভিন্ন স্থান থেকে পাওয়া সহায়তা নিয়ে করা হয়েছে চিকিৎসার জন্য পাসপোর্টও। চিকিৎসার পুরো টাকা জোগাড় না হওয়ায় আরো দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তার পিতা ও মাতা।

অসুস্থ অনুশ্রী সরকারের পিতা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ‘আমার সামান্য আয়ে আমার মেয়ের চিকিৎসা ও পরিবারের অন্যান্যদের চালানো খুবই কষ্টকর হয়ে পড়েছে। আমি সকলের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করছি, আমার মেয়ের চিকিৎসার জন্য। তার দ্রæত চিকিৎসার প্রয়োজন’।

অসুস্থ অনুশ্রী সরকার বলেন,‘আমি আবার স্কুলে যেতে চাই। আমি বাঁচতে চাই। শুয়ে থাকতে আমার ভালো লাগেনা’। সহায়তার জন্য যোগাযোগ ও বিকাশ নাম্বার: ০১৭০৩-৫৪৩২৫৩ ।