ঢাকা ০৭:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ঃ হাইকোর্টে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন আ.লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৫:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ ৮১ বার পড়া হয়েছে

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (গোমস্তাপুর, নাচোল, ভোলাহাট) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপ্রত্যাশী আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী মোহাম্মদ আলী সরকারের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে মোহাম্মদ আলী সরকারের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না তা জানতে চেয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করেছেন।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ফয়সাল সিদ্দিকী রনি।

তবে এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মোতাওয়াক্কিল রহমান মুঠোফোনে বলেন, এ বিষয়ে এখনো আমাদের কাছে কোনো নির্দেশনা আসেনি। আদালতের নির্দেশনার কপি হাতে পেলে প্রতীক বরাদ্দসহ যাবতীয় নির্বাচনী কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

এর আগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন রাজশাহী জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলী সরকার। কিন্তু ভোটার তালিকায় গরমিল থাকায় তার মনোনয়নপত্র প্রথমে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা, পরে নির্বাচন কমিশন থেকে বাতিল করা হয়। এরপর প্রার্থিতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে রিট করেন মোহাম্মদ আলী সরকার।

গত ৮ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে মোহাম্মদ আলী সরকারের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন। এরপর মোহাম্মদ আলী সরকার মনোনয়ন গ্রহণ ও বাতিল সংক্রান্ত বিষয়ে আপিল করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে। সেই আপিলও খারিজ করে নির্বাচন কমিশন।

উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন মোহাম্মদ আলী সরকার। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে অন্য প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুহা. জিয়াউর রহমান, জাতীয় পার্টির প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের নাবীউল ইসলাম ও আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী খুরশিদ আলম বাচ্চু, জাকের পার্টির প্রার্থী গোলাম মোস্তফা।

সংসদীয় আসন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (নাচোল-গোমস্তাপুর-ভোলাহাট) থেকে বিএনপির সংসদ সদস্য আমিনুল ইসলাম পদত্যাগ করায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। পরে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিল ৫ জানুয়ারি, বাছাই করা হয় ৮ জানুয়ারি, প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল ১৫ জানুয়ারি ও ১৬ জানুয়ারি প্রতীক বরাদ্দ হয়। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (গোমস্তাপুর, নাচোল, ভোলাহাট) আসনের মোট ভোটার ৪ লাখ ৫ হাজার ৪৫০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ১ হাজার ১৭০ জন ও নারী ভোটার ২ লাখ ৪ হাজার ২৮০ জন। ১৮০টি ভোটকেন্দ্রের ১ হাজার ২৩০টি ভোট কক্ষে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন ভোটাররা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ঃ হাইকোর্টে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন আ.লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী

আপডেট সময় : ০৯:৫৫:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৩

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (গোমস্তাপুর, নাচোল, ভোলাহাট) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপ্রত্যাশী আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী মোহাম্মদ আলী সরকারের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে মোহাম্মদ আলী সরকারের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না তা জানতে চেয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করেছেন।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ফয়সাল সিদ্দিকী রনি।

তবে এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মোতাওয়াক্কিল রহমান মুঠোফোনে বলেন, এ বিষয়ে এখনো আমাদের কাছে কোনো নির্দেশনা আসেনি। আদালতের নির্দেশনার কপি হাতে পেলে প্রতীক বরাদ্দসহ যাবতীয় নির্বাচনী কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

এর আগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন রাজশাহী জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলী সরকার। কিন্তু ভোটার তালিকায় গরমিল থাকায় তার মনোনয়নপত্র প্রথমে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা, পরে নির্বাচন কমিশন থেকে বাতিল করা হয়। এরপর প্রার্থিতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে রিট করেন মোহাম্মদ আলী সরকার।

গত ৮ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে মোহাম্মদ আলী সরকারের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন। এরপর মোহাম্মদ আলী সরকার মনোনয়ন গ্রহণ ও বাতিল সংক্রান্ত বিষয়ে আপিল করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে। সেই আপিলও খারিজ করে নির্বাচন কমিশন।

উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন মোহাম্মদ আলী সরকার। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে অন্য প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুহা. জিয়াউর রহমান, জাতীয় পার্টির প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের নাবীউল ইসলাম ও আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী খুরশিদ আলম বাচ্চু, জাকের পার্টির প্রার্থী গোলাম মোস্তফা।

সংসদীয় আসন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (নাচোল-গোমস্তাপুর-ভোলাহাট) থেকে বিএনপির সংসদ সদস্য আমিনুল ইসলাম পদত্যাগ করায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। পরে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিল ৫ জানুয়ারি, বাছাই করা হয় ৮ জানুয়ারি, প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল ১৫ জানুয়ারি ও ১৬ জানুয়ারি প্রতীক বরাদ্দ হয়। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (গোমস্তাপুর, নাচোল, ভোলাহাট) আসনের মোট ভোটার ৪ লাখ ৫ হাজার ৪৫০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ১ হাজার ১৭০ জন ও নারী ভোটার ২ লাখ ৪ হাজার ২৮০ জন। ১৮০টি ভোটকেন্দ্রের ১ হাজার ২৩০টি ভোট কক্ষে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন ভোটাররা।