ঢাকা ০৮:২৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবাজারে আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে মজা করেছে সরকার: আব্বাস

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৪৭:৪০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩ ৮০ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর গুলিস্তানের বঙ্গবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে সরকার তামাশা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

বুধবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে বঙ্গবাজারের পুড়ে যাওয়া মার্কেট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।
সরকার এই ১৫ হাজার টাকা কাকে দেবে- এমন প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, একটা দোকানের কর্মচারী আছে, মালিক আছে ও মালিকের পরিবার আছে। ১৫ হাজার টাকা অপ্রতুল। এটাকে আরও বেশি করা উচিত। এখানে যতগুলো মালিক ও কর্মচারী তাদের প্রত্যেককে সহযোগিতা দেওয়া উচিত।

বিএনপির এই নেতা বলেন, আমরা দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দেখেছি। সব দোকান পুড়ে গেছে। এটা একটা এক্সিডেন্ট। এর মাধ্যমে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ব্যবসায়ীদের এই ক্ষতি পূরণ করা সম্ভব নয়। আমরা চেষ্টা করব ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করার জন্য।

পুড়ে যাওয়া মার্কেট পরিদর্শনকালে অন্যদের মধ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন বিএনপির মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ইশরাক হোসেন বলেন, জনগণের জন্য সরকার। জনগণের ট্যাক্সেই রাষ্ট্র পরিচালিত হয়। আর এই জনগণের বিপদে সরকারের পাশে থাকা নৈতিক দায়িত্ব। সামনে ঈদ, এই ঈদকে সামনে রেখে সরকার যে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা বলছে, সেটি ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে বিদ্রূপ করার শামিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বঙ্গবাজারে আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে মজা করেছে সরকার: আব্বাস

আপডেট সময় : ১০:৪৭:৪০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩

রাজধানীর গুলিস্তানের বঙ্গবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে সরকার তামাশা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

বুধবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে বঙ্গবাজারের পুড়ে যাওয়া মার্কেট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।
সরকার এই ১৫ হাজার টাকা কাকে দেবে- এমন প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, একটা দোকানের কর্মচারী আছে, মালিক আছে ও মালিকের পরিবার আছে। ১৫ হাজার টাকা অপ্রতুল। এটাকে আরও বেশি করা উচিত। এখানে যতগুলো মালিক ও কর্মচারী তাদের প্রত্যেককে সহযোগিতা দেওয়া উচিত।

বিএনপির এই নেতা বলেন, আমরা দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দেখেছি। সব দোকান পুড়ে গেছে। এটা একটা এক্সিডেন্ট। এর মাধ্যমে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ব্যবসায়ীদের এই ক্ষতি পূরণ করা সম্ভব নয়। আমরা চেষ্টা করব ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করার জন্য।

পুড়ে যাওয়া মার্কেট পরিদর্শনকালে অন্যদের মধ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন বিএনপির মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ইশরাক হোসেন বলেন, জনগণের জন্য সরকার। জনগণের ট্যাক্সেই রাষ্ট্র পরিচালিত হয়। আর এই জনগণের বিপদে সরকারের পাশে থাকা নৈতিক দায়িত্ব। সামনে ঈদ, এই ঈদকে সামনে রেখে সরকার যে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা বলছে, সেটি ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে বিদ্রূপ করার শামিল।