ঢাকা ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তারেক জিয়া চোর হ্যায়, গলি গলি মে সুর হ্যায়: কাদের

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:১৭:১৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০২৩ ৫৩ বার পড়া হয়েছে

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিদেশে টাকা পাচার করেছেন দাবি করে তাকে ‘চোর’ বলে আখ্যায়িত করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের৷ বিএনপি আন্দোলনের এত টাকা কোথায় পায় সেটা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

শুক্রবার (২৮ জুলাই) বিকেলে রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে আয়োজিত ‘বিএনপি-জামায়াতের হত্যা, ষড়যন্ত্র ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদ’ শীর্ষক শান্তি সমাবেশে তিনি এই মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারেক রহমান ফখরুলকে বলছে, আন্দোলনে টাকার অভাব হবে না। তারেক রহমান এত টাকা পেল কোথায়? কোটি কোটি টাকা।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘লবিস্ট নিয়োগ করে টাকা দিয়ে৷ কিছুজনকে দিয়ে জাতিসংঘের, যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাম্বাসেডরের কাছে চিঠি লেখে। এই দুঃসাহস তারা পেল কোথায়? হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করেছে।’

এ সময় তিনি বলেন, ‘তারেক জিয়া চোর হ্যায়, গলি গলি মে সুর হ্যায়’।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘খেলা হবে। খেলা হবে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে, ভোট চুরির বিরুদ্ধে, হাওয়া ভবনের বিরুদ্ধে, ভুয়া এক দফার বিরুদ্ধে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের জানমাল রক্ষায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ, শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ অতদ্র প্রহরী হিসেবে কাজ করবে।’

বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘এখন নাকি আপনারা রাস্তা বন্ধ করবেন! ঢাকার প্রবেশমুখে অবস্থান নেবেন! আপনাদের চলার রাস্তাও বন্ধ করে দেব। চোখ রাঙাবেন না। আমাদের শিকড় এই মাটির অনেক গভীরে।’

শেখ হাসিনা বাংলার মানুষের বিশ্বস্ত প্রতিনিধি বলে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশ আজ অনেক উন্নত দেশের তুলনায় ভালো আছে ।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘হতাশ হবেন না। কারও চোখ রাঙনোর পরোয়া বঙ্গবন্ধু কন্যা করেন না। আশ্বত করতে পারি আপনাদের।’

উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘যেদিকে তাকাই তারুণ্যের বিস্তৃতি। যেদিকে তাকাই বঙ্গোপসাগরের ঢেউ।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা সংঘাত চাই না। আমরা সংঘাতের জন্য এই সমাবেশ করছি না। আমরা জনগণের জানমাল পাহারা দিতে এসেছি।’

মনোনয়নপ্রত্যাশীদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ঢাকায় নমিশন নাই। এলাকায় যান। এলাকায় নমিনেশন। কাজ করেন। নেত্রী বিবেচনা করবেন।’

বিএনপির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘যত লাফালাফি, যত তাফালিং করেন ফখরুল সাহেব, তারেক জিয়া, এই লাফালাফিতে কাজ হবে না। যতই তাফালিং করেন ক্ষমতার ময়ুর সিংহাসন বহুদূরে চলে গেছে৷ ওটা খুঁজে পাবেন না।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘রাজনীতির খেলায় আওয়ামী লীগকে কেউ হারাতে পারেনি৷ রাজনীতির খেলায় আওয়ামী লীগ চ্যাম্পিয়ন।’

এ সময় তিনি দাবি করেন, ‘বিএনপির মধ্যে মনোনয়ন বাণিজ্য চলছে৷ লন্ডনগামী যাত্রী বাড়ছে।’ কাদের বলেন, ‘তারেক জিয়ার ধমক খেতে খেতে বেচারার (মির্জা ফখরুল) অবস্থা কাহিল।’

বিএনপির কর্মসূচির দিনে আওয়ামী লীগ কর্মসূচি দিচ্ছে-এমন অভিযোগের জবাব দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা যিনি বলেন, তাকে সবিনয় বলি। ২০১৪-১৫ সাল তিনি বোধহয় দেখেননি।’

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

তারেক জিয়া চোর হ্যায়, গলি গলি মে সুর হ্যায়: কাদের

আপডেট সময় : ০৫:১৭:১৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০২৩

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিদেশে টাকা পাচার করেছেন দাবি করে তাকে ‘চোর’ বলে আখ্যায়িত করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের৷ বিএনপি আন্দোলনের এত টাকা কোথায় পায় সেটা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

শুক্রবার (২৮ জুলাই) বিকেলে রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে আয়োজিত ‘বিএনপি-জামায়াতের হত্যা, ষড়যন্ত্র ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদ’ শীর্ষক শান্তি সমাবেশে তিনি এই মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারেক রহমান ফখরুলকে বলছে, আন্দোলনে টাকার অভাব হবে না। তারেক রহমান এত টাকা পেল কোথায়? কোটি কোটি টাকা।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘লবিস্ট নিয়োগ করে টাকা দিয়ে৷ কিছুজনকে দিয়ে জাতিসংঘের, যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাম্বাসেডরের কাছে চিঠি লেখে। এই দুঃসাহস তারা পেল কোথায়? হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করেছে।’

এ সময় তিনি বলেন, ‘তারেক জিয়া চোর হ্যায়, গলি গলি মে সুর হ্যায়’।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘খেলা হবে। খেলা হবে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে, ভোট চুরির বিরুদ্ধে, হাওয়া ভবনের বিরুদ্ধে, ভুয়া এক দফার বিরুদ্ধে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের জানমাল রক্ষায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ, শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ অতদ্র প্রহরী হিসেবে কাজ করবে।’

বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘এখন নাকি আপনারা রাস্তা বন্ধ করবেন! ঢাকার প্রবেশমুখে অবস্থান নেবেন! আপনাদের চলার রাস্তাও বন্ধ করে দেব। চোখ রাঙাবেন না। আমাদের শিকড় এই মাটির অনেক গভীরে।’

শেখ হাসিনা বাংলার মানুষের বিশ্বস্ত প্রতিনিধি বলে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশ আজ অনেক উন্নত দেশের তুলনায় ভালো আছে ।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘হতাশ হবেন না। কারও চোখ রাঙনোর পরোয়া বঙ্গবন্ধু কন্যা করেন না। আশ্বত করতে পারি আপনাদের।’

উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘যেদিকে তাকাই তারুণ্যের বিস্তৃতি। যেদিকে তাকাই বঙ্গোপসাগরের ঢেউ।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা সংঘাত চাই না। আমরা সংঘাতের জন্য এই সমাবেশ করছি না। আমরা জনগণের জানমাল পাহারা দিতে এসেছি।’

মনোনয়নপ্রত্যাশীদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ঢাকায় নমিশন নাই। এলাকায় যান। এলাকায় নমিনেশন। কাজ করেন। নেত্রী বিবেচনা করবেন।’

বিএনপির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘যত লাফালাফি, যত তাফালিং করেন ফখরুল সাহেব, তারেক জিয়া, এই লাফালাফিতে কাজ হবে না। যতই তাফালিং করেন ক্ষমতার ময়ুর সিংহাসন বহুদূরে চলে গেছে৷ ওটা খুঁজে পাবেন না।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘রাজনীতির খেলায় আওয়ামী লীগকে কেউ হারাতে পারেনি৷ রাজনীতির খেলায় আওয়ামী লীগ চ্যাম্পিয়ন।’

এ সময় তিনি দাবি করেন, ‘বিএনপির মধ্যে মনোনয়ন বাণিজ্য চলছে৷ লন্ডনগামী যাত্রী বাড়ছে।’ কাদের বলেন, ‘তারেক জিয়ার ধমক খেতে খেতে বেচারার (মির্জা ফখরুল) অবস্থা কাহিল।’

বিএনপির কর্মসূচির দিনে আওয়ামী লীগ কর্মসূচি দিচ্ছে-এমন অভিযোগের জবাব দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা যিনি বলেন, তাকে সবিনয় বলি। ২০১৪-১৫ সাল তিনি বোধহয় দেখেননি।’