ঢাকা ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৪ ঘণ্টা বাবার লাশ সড়কে রেখে হত্যাকারীদের শাস্তি দাবি মেয়ের

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৭:১০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মার্চ ২০২৩ ৭২ বার পড়া হয়েছে

দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে কহিনূর মিয়া (৪৫) নামে এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বাবার লাশ ৪ ঘণ্টা সামনে সড়কে রেখে বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন করেছে মেয়েসহ তার পরিবার ও এলাকাবাসী।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) বিকালে ৪টা থেকে সন্ধ্যা রাত ৭ পর্যন্ত উপজেলার ঘাটাইল-সাগরদীঘি সড়কের উত্তর ধলাপাড়া চৌধুরীবাড়ি ব্রিজ সংলগ্ন এই অবরোধ ও বিক্ষোভ করে তারা।

এতে করে সড়কের দুদিকে যানজটের সৃষ্টি হয়। এ খবরে গোপালপুর সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার মো. সোহেল রানা এবং ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজহারুল ইসলাম সরকারের আশ্বাসে তারা অবরোধ তুলে নেন বিক্ষুব্ধরা।

এ ঘটনায় ঘাটাইল ওসি আজহারুল ইসলাম সরকার বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার বিকেলে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি।

এ বিষয়ে গোপালপুর সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার মো. সোহেল রানা বলেন, নিহতের পরিবারে পক্ষ থেকে অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ ও জড়িত আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

প্রসঙ্গত, উপজেলার ধলাপাড়া ইউনিয়নের উত্তর ধলাপাড়া গ্রামের সামী চৌধুরীর সঙ্গে প্রতিবেশী কহিনুর মিয়ার জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

গত বুধবার (৮ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে একই গ্রামের বাজেয়িদ, তারা মিয়া ও ইসমাইল কহিনুরকে ডেকে বায়েজিদের বাড়িতে নিয়ে আসে। এরপর বায়েজিদের বাড়িতে কহিনূর এলে সামি চৌধুরীসহ কহিনূরের কথা কাটাকাটি হয়।

এরই জেরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে ধলাপাড়া বাজারে চিকিৎসক হাফিজ উদ্দিনের নিকট নিয়ে যায়। কহিনূরের বুকে চাপ অনুভব করায় তাকে ইসিজি করার পরামর্শ দেন এবং পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

৪ ঘণ্টা বাবার লাশ সড়কে রেখে হত্যাকারীদের শাস্তি দাবি মেয়ের

আপডেট সময় : ০৫:৪৭:১০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মার্চ ২০২৩

দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে কহিনূর মিয়া (৪৫) নামে এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বাবার লাশ ৪ ঘণ্টা সামনে সড়কে রেখে বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন করেছে মেয়েসহ তার পরিবার ও এলাকাবাসী।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) বিকালে ৪টা থেকে সন্ধ্যা রাত ৭ পর্যন্ত উপজেলার ঘাটাইল-সাগরদীঘি সড়কের উত্তর ধলাপাড়া চৌধুরীবাড়ি ব্রিজ সংলগ্ন এই অবরোধ ও বিক্ষোভ করে তারা।

এতে করে সড়কের দুদিকে যানজটের সৃষ্টি হয়। এ খবরে গোপালপুর সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার মো. সোহেল রানা এবং ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজহারুল ইসলাম সরকারের আশ্বাসে তারা অবরোধ তুলে নেন বিক্ষুব্ধরা।

এ ঘটনায় ঘাটাইল ওসি আজহারুল ইসলাম সরকার বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার বিকেলে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি।

এ বিষয়ে গোপালপুর সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার মো. সোহেল রানা বলেন, নিহতের পরিবারে পক্ষ থেকে অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ ও জড়িত আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

প্রসঙ্গত, উপজেলার ধলাপাড়া ইউনিয়নের উত্তর ধলাপাড়া গ্রামের সামী চৌধুরীর সঙ্গে প্রতিবেশী কহিনুর মিয়ার জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

গত বুধবার (৮ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে একই গ্রামের বাজেয়িদ, তারা মিয়া ও ইসমাইল কহিনুরকে ডেকে বায়েজিদের বাড়িতে নিয়ে আসে। এরপর বায়েজিদের বাড়িতে কহিনূর এলে সামি চৌধুরীসহ কহিনূরের কথা কাটাকাটি হয়।

এরই জেরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে ধলাপাড়া বাজারে চিকিৎসক হাফিজ উদ্দিনের নিকট নিয়ে যায়। কহিনূরের বুকে চাপ অনুভব করায় তাকে ইসিজি করার পরামর্শ দেন এবং পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।