ঢাকা ০৯:২৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্মার্ট ত্রিশাল উপজেলা গড়তে জনগণের সেবক হতে চান’যুবনেতা জুয়েল সরকার

ময়মনসিংহ প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় : ০৯:০২:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২৯ বার পড়া হয়েছে

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসাবে গড়ে তুলতে জনগণের সেবক হতে চান উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, সাবেক ছাত্রনেতা ত্রিশালের সাবেক এমপি ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সরকারের সুযোগ্য সন্তান জাহিদুল ইসলাম জুয়েল সরকার।

বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ত্রিশাল উপজেলা শাখার সভাপতি দায়িত্ব পালন করছেন।
বাবার রাজনীতিক ক্যারিয়ার ও নিজেই উপজেলা যুবলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করার কারণে তার ব্যাপক পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা রয়েছে। এর আগেও তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন নিয়ে পৌরসভার মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।বর্তমানে তিনি সক্রিয়ভাবে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করছেন।

জুয়েল সরকার বাবার আদর্শ ধারণ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্বপ্নের সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলার অন্তর্ভুক্ত ত্রিশাল উপজেলা উপহার দিতে সরকারের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড যথাযথ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে ত্রিশালকে দেশ সেরা উপজেলা হিসাবে গড়ে তুলে চান।

সে লক্ষ্যে ত্রিশাল উপজেলা চেয়ারম্যান পদে দিনরাত গণসংযোগ ও মতবিনিময় করে দলমত নির্বিশেষে উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের দোয়া, সমর্থন ও রায় প্রত্যাশা করছেন। ইতিমধ্যে তিনি ত্রিশালের ১টি পৌরসভা সহ ১২টি ইউনিয়নের সাধারন মানুষের সাথে মত বিনিময় ও গণসংযোগ করে যাচ্ছেন।

কর্মীবান্ধব যুবনেতা জাহিদুল ইসলাম সরকার (জুয়েল) বলেন,তাঁর দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে ত্রিশালে আমূল পরিবর্তন আনতে চান তিনি।মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক উপজেলাকে নান্দনিক ও স্মার্ট হিসাবে গড়ে তুলে বেকার তরুন-তরুণীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি সহ সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের জীবন-মান উন্নয়নে কাজ করে যাবেন বলে মতামত ব্যক্ত করেছেন। এছাড়া দলমত নির্বিশেষে ত্রিশালের সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি বজায় রাখার পাশাপশি ঐত্যিবাহী ব্রহ্মপুত্রের তীরে শিশু-কিশোরদের জন্য একটি বিনোদন পার্ক ও সর্বজনীন কাব গঠনের আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এছাড়া ত্রিশাল থেকে জুয়া ও মাদক নির্মূল করতে সামাজিক নিরাপত্তা সহ আইনশৃঙ্খলার সুন্দর পরিস্থিতি রক্ষায় যা যা দরকার, তিনি তাই করবেন। অপরদিকে শিক্ষার মান উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য সেবা সুনিশ্চিকরণ সহ প্রতিটি ইউনিয়নেই কৃষক-কৃষাণীদের সেবা নিশ্চিতের মধ্য দিয়ে ত্রিশালকে একটি আর্তনির্ভরশীল উপজেলা হিসাবে গড়তে চান। তিনি নির্বাচিত হলে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কক্ষের দরজা সবার জন্য উম্মুক্ত রেখে সর্ব সাধারনের খেদমতে নজীর স্থাপনের মাধ্যমে সবার হৃদয়ে আজীবনের জন্য জায়গা করে নিতে চান। এ বিষয়ে জুয়েল সরকার বলেন, আমি উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হলে জনগণের খেদমতে নিজেকে উৎস্বর্গ করবো, ইনশাল্লাহ।

এর আগেও করোনা দুর্যোগসহ বিভিন্ন দুর্যোগে মানুষের পাশে থাকাসহ উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বিরামপুর গ্রামের জায়েদা খাতুনকে তার নিজস্ব অর্থায়নে ঘর উপহার দিয়ে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছেন
ত্রিশাল উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জুয়েল সরকার। স্বচ্ছ ভাবমূর্তি, শিক্ষিত ও মার্জিত হিসাবে ত্রিশাল উপজেলাব্যাপী তার প্রশংসা রয়েছে। ত্রিশালের রাজনৈতিক অঙ্গনের জীবন্ত কিংবদন্তী মতিন সরকারের সুযোগ্য পুত্র হিসাবে তিনি পিতার হাত ধরেই রাজনীতির হাতেখড়ি । জাহিদুল ইসলাম (জুয়েল সরকার) স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষ, সৎ মানুষ। ত্রিশালের আন্দোলন- সংগ্রাম, ত্যাগ-তিতিক্ষার শক্ত ভূমির ওপর দাঁড়িয়ে আছে তার যোগ্য নেতৃত্ব । জাহিদুল ইসলাম (জুয়েল সরকার) বলেন, আমি পরিচ্ছন্ন রাজনীতি চাই। ত্রিশালে সম্প্রীতির ও পরিবর্তনের রাজনীতি চাই। একটি সুন্দর সম্প্রীতির ত্রিশাল উপহার দিতে চাই। সেলক্ষেই কাজ করে যাচ্ছি।

যুবলীগ নেতা জুয়েল সরকার করোনা মহামারিতে করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সরকারের সহযোগিতার পাশাপাশি অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এসেছেন। তবে ফোনে সাড়া দিয়ে অসহায় আর মধ্যবিত্তদের পাশে ত্রাণ বিতরণে ব্যতিক্রমী উদাহরণ টেনেছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জুয়েল সরকার। কোন ধরনের প্রচার-প্রচারণা আর ফটোসেশন ছাড়াই নিম্নবিত্তদের সহযোগিতার জন্য কাজ করেছেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

স্মার্ট ত্রিশাল উপজেলা গড়তে জনগণের সেবক হতে চান’যুবনেতা জুয়েল সরকার

আপডেট সময় : ০৯:০২:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসাবে গড়ে তুলতে জনগণের সেবক হতে চান উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, সাবেক ছাত্রনেতা ত্রিশালের সাবেক এমপি ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সরকারের সুযোগ্য সন্তান জাহিদুল ইসলাম জুয়েল সরকার।

বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ত্রিশাল উপজেলা শাখার সভাপতি দায়িত্ব পালন করছেন।
বাবার রাজনীতিক ক্যারিয়ার ও নিজেই উপজেলা যুবলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করার কারণে তার ব্যাপক পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা রয়েছে। এর আগেও তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন নিয়ে পৌরসভার মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।বর্তমানে তিনি সক্রিয়ভাবে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করছেন।

জুয়েল সরকার বাবার আদর্শ ধারণ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্বপ্নের সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলার অন্তর্ভুক্ত ত্রিশাল উপজেলা উপহার দিতে সরকারের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড যথাযথ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে ত্রিশালকে দেশ সেরা উপজেলা হিসাবে গড়ে তুলে চান।

সে লক্ষ্যে ত্রিশাল উপজেলা চেয়ারম্যান পদে দিনরাত গণসংযোগ ও মতবিনিময় করে দলমত নির্বিশেষে উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের দোয়া, সমর্থন ও রায় প্রত্যাশা করছেন। ইতিমধ্যে তিনি ত্রিশালের ১টি পৌরসভা সহ ১২টি ইউনিয়নের সাধারন মানুষের সাথে মত বিনিময় ও গণসংযোগ করে যাচ্ছেন।

কর্মীবান্ধব যুবনেতা জাহিদুল ইসলাম সরকার (জুয়েল) বলেন,তাঁর দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে ত্রিশালে আমূল পরিবর্তন আনতে চান তিনি।মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক উপজেলাকে নান্দনিক ও স্মার্ট হিসাবে গড়ে তুলে বেকার তরুন-তরুণীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি সহ সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের জীবন-মান উন্নয়নে কাজ করে যাবেন বলে মতামত ব্যক্ত করেছেন। এছাড়া দলমত নির্বিশেষে ত্রিশালের সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি বজায় রাখার পাশাপশি ঐত্যিবাহী ব্রহ্মপুত্রের তীরে শিশু-কিশোরদের জন্য একটি বিনোদন পার্ক ও সর্বজনীন কাব গঠনের আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এছাড়া ত্রিশাল থেকে জুয়া ও মাদক নির্মূল করতে সামাজিক নিরাপত্তা সহ আইনশৃঙ্খলার সুন্দর পরিস্থিতি রক্ষায় যা যা দরকার, তিনি তাই করবেন। অপরদিকে শিক্ষার মান উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য সেবা সুনিশ্চিকরণ সহ প্রতিটি ইউনিয়নেই কৃষক-কৃষাণীদের সেবা নিশ্চিতের মধ্য দিয়ে ত্রিশালকে একটি আর্তনির্ভরশীল উপজেলা হিসাবে গড়তে চান। তিনি নির্বাচিত হলে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কক্ষের দরজা সবার জন্য উম্মুক্ত রেখে সর্ব সাধারনের খেদমতে নজীর স্থাপনের মাধ্যমে সবার হৃদয়ে আজীবনের জন্য জায়গা করে নিতে চান। এ বিষয়ে জুয়েল সরকার বলেন, আমি উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হলে জনগণের খেদমতে নিজেকে উৎস্বর্গ করবো, ইনশাল্লাহ।

এর আগেও করোনা দুর্যোগসহ বিভিন্ন দুর্যোগে মানুষের পাশে থাকাসহ উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বিরামপুর গ্রামের জায়েদা খাতুনকে তার নিজস্ব অর্থায়নে ঘর উপহার দিয়ে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছেন
ত্রিশাল উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জুয়েল সরকার। স্বচ্ছ ভাবমূর্তি, শিক্ষিত ও মার্জিত হিসাবে ত্রিশাল উপজেলাব্যাপী তার প্রশংসা রয়েছে। ত্রিশালের রাজনৈতিক অঙ্গনের জীবন্ত কিংবদন্তী মতিন সরকারের সুযোগ্য পুত্র হিসাবে তিনি পিতার হাত ধরেই রাজনীতির হাতেখড়ি । জাহিদুল ইসলাম (জুয়েল সরকার) স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষ, সৎ মানুষ। ত্রিশালের আন্দোলন- সংগ্রাম, ত্যাগ-তিতিক্ষার শক্ত ভূমির ওপর দাঁড়িয়ে আছে তার যোগ্য নেতৃত্ব । জাহিদুল ইসলাম (জুয়েল সরকার) বলেন, আমি পরিচ্ছন্ন রাজনীতি চাই। ত্রিশালে সম্প্রীতির ও পরিবর্তনের রাজনীতি চাই। একটি সুন্দর সম্প্রীতির ত্রিশাল উপহার দিতে চাই। সেলক্ষেই কাজ করে যাচ্ছি।

যুবলীগ নেতা জুয়েল সরকার করোনা মহামারিতে করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সরকারের সহযোগিতার পাশাপাশি অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এসেছেন। তবে ফোনে সাড়া দিয়ে অসহায় আর মধ্যবিত্তদের পাশে ত্রাণ বিতরণে ব্যতিক্রমী উদাহরণ টেনেছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জুয়েল সরকার। কোন ধরনের প্রচার-প্রচারণা আর ফটোসেশন ছাড়াই নিম্নবিত্তদের সহযোগিতার জন্য কাজ করেছেন তিনি।