ঢাকা ০৯:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে রাসিক মেয়রের মতবিনিময় সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক//
  • আপডেট সময় : ১০:২১:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪ ২১ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক ও স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত নগর ভবনে সরিৎ দত্ত গুপ্ত সভাকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আবাসন, খাবার, পরিবহন, যানজট নিয়ন্ত্রণ, নিরাপত্তা ব্যবস্থা, নিরবিচ্ছন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ, স্বাস্থ্যসেবা, পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম জোরদারকরণ, হেল্পডেক্স, ভ্রাম্যমান টয়লেট স্থাপনের বিষয়ে সহ সার্বিক বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী পরিচ্ছন্ন ও শান্তির নগরী হিসেবে সারাদেশে সুনাম রয়েছে। সেই সুনামকে আরো সমুজ্জ্বল করতে চাই। যে সকল ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকগণ আসবেন, তারা যেন রাজশাহী সম্পর্কে ভালো ধারণা নিয়ে ফেরত যান। সকলে সার্বিক সহযোগিতায় রাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে চাই। রাজশাহীতে নতুন নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আনা হচ্ছে। আগামীতে আরো আসবে, রাজশাহী হবে এডুকেশন হাব। সেই সাথে পর্যটন নগরী।

রাসিক মেয়র বলেন, ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের নিকট হতে অটোরিক্সা, রিক্সা ও বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় এবং খাবারের বাড়তি দাম রাখা যাবে না। এটি নিশ্চিত করতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে অনুরোধ জানানো হবে। বোতলজাত পানির ব্যবস্থা, প্রাথমিক চিকিৎসা নিশ্চিতে এ্যাম্বুলেন্সসহ মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হবে। ট্রেনে অতিরিক্ত কোচ সংযোজন করতে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হবে।

সভায় রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, রাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এবারের ভর্তি পরীক্ষায় প্রায় ১ লাখ ৮৫ হাজার শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। সঙ্গে প্রায় সমসংখ্যক অভিভাবকরা রাজশাহীতে আসবেন। রাজশাহী শহরের সুনাম রয়েছে, সেই সুনাম ধরে রেখে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করতে সকলের সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে এই নগরীর নাগরিকদেরও দায়িত্ব রয়েছে। ভর্তি পরীক্ষা যেন উৎসবে পরিণত হয়। মেয়র মহোদয়ের নেতৃত্বে আজকে সমন্বয় সভা হলো। সভাটি আয়োজন করায় মেয়র মহোদয়ের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, আমরা ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট সকলকে চিঠি দিয়েছি। প্রতি বছরের ন্যায় আবারো সিটি কর্পোরেশনের সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন। ট্রেনে নতুন বহি সংযোজনে ইতোমধ্যে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, রাজশাহীতে সকল বিভাগ ও সংস্থার মধ্যে চমৎকার সমন্বয় রয়েছে। আমরা সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সফলভাবে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করবো। এক্ষেত্রে জেলা প্রশাসন সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবে।

আরএমপি‘র ডিসি (ট্রাফিক) অর্নিবান চাকমা বলেন, সুন্দর ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা রাখা হবে। ক্যাম্পাস ও আশপাশের কিছু রোড ওয়ানওয়ে করে দেওয়া হবে। বাস পার্কিয়ের জন্য নির্ধারিত জায়গা নির্ধারণ করা হবে। কাজলা গেট দিয়ে কোন পরীক্ষার্থী বের হতে পারবেন না। তাদের প্রধান ফটক দিয়ে বের হতে হবে।

আরএমপি‘র ডিসি (সিটিএসবি) মোঃ আব্দুর রকিব বলেন, ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হবে। পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা থাকবেন। গুজব প্রতিরোধে সাইবার ক্রাইম ইউনিট কাজ করবে।

নেসকোর প্রধান প্রকৌশলী জাকির হোসেন বলেন, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। ১ থেকে ১০ মার্চ পর্যন্ত রাজশাহী শহরে কোন লোডশেডিং হবে না।

সভায় উপস্থিত ছিলেন রাবির উপ-উপাচার্য প্রফেসর মোঃ সুলতান উল ইসলাম, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক হুমায়নু কবির, রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, প্যানেল মেয়র-২ ও ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাসেল জামান, সচিব মোঃ মোবারক হোসেন, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম, রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হামিদুল ইসলাম সাজু, সাধারণ সম্পাদক ও ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহাতাব হোসেন চৌধুরী, মহানগর মেস মালিক সমিতির সভাপতি এনায়েতুর রহমান সহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিভাগ ও সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় আরো বক্তব্য দেন রেজিস্ট্রার ড. মো. তারিকুল ইসলাম, প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, আইসিটি সেলের পরিচালক খাদেমুল ইসলাম, জনসংযোগ প্রশাসক প্রফেসর প্রদীপ কুমার পান্ডে, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক আখতার হামিদ খান, মহানগর মেস মালিক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাইসান আহমেদ, জলা রেস্তোরা মালিক সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম, মহানগর ইজিবাইক মালিক সমবায় সমিতির সভাপতি শরিফুল ইসলাম ।

উল্লেখ্য, আগামী ৫ থেকে ৭ মার্চ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি ইউনিটে ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে রাসিক মেয়রের মতবিনিময় সভা

আপডেট সময় : ১০:২১:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক ও স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত নগর ভবনে সরিৎ দত্ত গুপ্ত সভাকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আবাসন, খাবার, পরিবহন, যানজট নিয়ন্ত্রণ, নিরাপত্তা ব্যবস্থা, নিরবিচ্ছন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ, স্বাস্থ্যসেবা, পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম জোরদারকরণ, হেল্পডেক্স, ভ্রাম্যমান টয়লেট স্থাপনের বিষয়ে সহ সার্বিক বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী পরিচ্ছন্ন ও শান্তির নগরী হিসেবে সারাদেশে সুনাম রয়েছে। সেই সুনামকে আরো সমুজ্জ্বল করতে চাই। যে সকল ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকগণ আসবেন, তারা যেন রাজশাহী সম্পর্কে ভালো ধারণা নিয়ে ফেরত যান। সকলে সার্বিক সহযোগিতায় রাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে চাই। রাজশাহীতে নতুন নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আনা হচ্ছে। আগামীতে আরো আসবে, রাজশাহী হবে এডুকেশন হাব। সেই সাথে পর্যটন নগরী।

রাসিক মেয়র বলেন, ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের নিকট হতে অটোরিক্সা, রিক্সা ও বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় এবং খাবারের বাড়তি দাম রাখা যাবে না। এটি নিশ্চিত করতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে অনুরোধ জানানো হবে। বোতলজাত পানির ব্যবস্থা, প্রাথমিক চিকিৎসা নিশ্চিতে এ্যাম্বুলেন্সসহ মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হবে। ট্রেনে অতিরিক্ত কোচ সংযোজন করতে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হবে।

সভায় রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, রাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এবারের ভর্তি পরীক্ষায় প্রায় ১ লাখ ৮৫ হাজার শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। সঙ্গে প্রায় সমসংখ্যক অভিভাবকরা রাজশাহীতে আসবেন। রাজশাহী শহরের সুনাম রয়েছে, সেই সুনাম ধরে রেখে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করতে সকলের সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে এই নগরীর নাগরিকদেরও দায়িত্ব রয়েছে। ভর্তি পরীক্ষা যেন উৎসবে পরিণত হয়। মেয়র মহোদয়ের নেতৃত্বে আজকে সমন্বয় সভা হলো। সভাটি আয়োজন করায় মেয়র মহোদয়ের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, আমরা ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট সকলকে চিঠি দিয়েছি। প্রতি বছরের ন্যায় আবারো সিটি কর্পোরেশনের সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন। ট্রেনে নতুন বহি সংযোজনে ইতোমধ্যে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, রাজশাহীতে সকল বিভাগ ও সংস্থার মধ্যে চমৎকার সমন্বয় রয়েছে। আমরা সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সফলভাবে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করবো। এক্ষেত্রে জেলা প্রশাসন সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবে।

আরএমপি‘র ডিসি (ট্রাফিক) অর্নিবান চাকমা বলেন, সুন্দর ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা রাখা হবে। ক্যাম্পাস ও আশপাশের কিছু রোড ওয়ানওয়ে করে দেওয়া হবে। বাস পার্কিয়ের জন্য নির্ধারিত জায়গা নির্ধারণ করা হবে। কাজলা গেট দিয়ে কোন পরীক্ষার্থী বের হতে পারবেন না। তাদের প্রধান ফটক দিয়ে বের হতে হবে।

আরএমপি‘র ডিসি (সিটিএসবি) মোঃ আব্দুর রকিব বলেন, ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হবে। পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা থাকবেন। গুজব প্রতিরোধে সাইবার ক্রাইম ইউনিট কাজ করবে।

নেসকোর প্রধান প্রকৌশলী জাকির হোসেন বলেন, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। ১ থেকে ১০ মার্চ পর্যন্ত রাজশাহী শহরে কোন লোডশেডিং হবে না।

সভায় উপস্থিত ছিলেন রাবির উপ-উপাচার্য প্রফেসর মোঃ সুলতান উল ইসলাম, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক হুমায়নু কবির, রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, প্যানেল মেয়র-২ ও ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাসেল জামান, সচিব মোঃ মোবারক হোসেন, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম, রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হামিদুল ইসলাম সাজু, সাধারণ সম্পাদক ও ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহাতাব হোসেন চৌধুরী, মহানগর মেস মালিক সমিতির সভাপতি এনায়েতুর রহমান সহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিভাগ ও সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় আরো বক্তব্য দেন রেজিস্ট্রার ড. মো. তারিকুল ইসলাম, প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, আইসিটি সেলের পরিচালক খাদেমুল ইসলাম, জনসংযোগ প্রশাসক প্রফেসর প্রদীপ কুমার পান্ডে, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক আখতার হামিদ খান, মহানগর মেস মালিক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাইসান আহমেদ, জলা রেস্তোরা মালিক সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম, মহানগর ইজিবাইক মালিক সমবায় সমিতির সভাপতি শরিফুল ইসলাম ।

উল্লেখ্য, আগামী ৫ থেকে ৭ মার্চ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি ইউনিটে ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।