ঢাকা ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাফায় ইসরায়েলি হামলায় হামাস নির্মূল হবে না: ব্লিঙ্কেন

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০২:৫৬:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মে ২০২৪ ৯ বার পড়া হয়েছে

রাফায় ইসরায়েলি হামলার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে কোনো ধরনের হামলা না চালাতে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধসহ বিভিন্নভাবে ইসরায়েলের ওপর চাপ বাড়িয়েছে বাইডেন প্রশাসন। এরই প্রেক্ষিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন সতর্ক করেছেন, রাফা শহরে ইসরায়েলি হামলায় হামাস নির্মূল হবে না, বরং তা নৈরাজ্য উসকে দেবে।

রোববার (১২ মে) তিনি এ মন্তব্য করেন বলে এএফপির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএসের এক অনুষ্ঠানে ব্লিঙ্কেন বলেন, রাফায় পূর্ণমাত্রায় ইসরায়েলি আক্রমণ সম্ভাব্যভাবে অবিশ্বাস্য চড়া মূল্য নিয়ে আসতে পারে। এমনকি রাফায় একটি বড় আক্রমণ হামাসের হুমকির অবসান ঘটাতে পারবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান ইসরায়েলের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জাচি হানেবির সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। এ ফোনালাপে রাফায় ইসরায়েলের সম্ভাব্য বড় আক্রমণের বিষয়ে ওয়াশিংটনের উদ্বেগের কথা হানেবিকে জানিয়ে দিয়েছেন সুলিভান।

ফোনালাপ নিয়ে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাফায় সম্ভাব্য একটি বড় ইসরায়েলি স্থল অভিযান নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের দীর্ঘদিনের উদ্বেগের কথা সুলিভান আবার বলেছেন। সেখানে ১০ লাখের বেশি মানুষের আশ্রয় রয়েছে।

হোয়াইট হাউস আরও বলেছে, হানেবি নিশ্চিত করেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগকে বিবেচনায় নিচ্ছে ইসরায়েল।

তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি।

ইতোমধ্যে রাফার পূর্বাঞ্চলে ইসরায়েলি বোমা হামলায় তিন লাখ ফিলিস্তিনি এলাকা ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশ সতর্ক করে বলেছে, রাফায় পূর্ণমাত্রায় ইসরায়েলি আক্রমণ সেখানে থাকা উদ্বাস্তুদের ওপর একটি বিপর্যয়কর প্রভাব ফেলতে পারে। সেখানে অনেকেই নিদারুণ পরিবেশে থাকছেন।

রাফায় বেসামরিক মানুষ হতাহতের সংখ্যা ন্যূনতম রাখার চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েল।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রাফায় ইসরায়েলি হামলায় হামাস নির্মূল হবে না: ব্লিঙ্কেন

আপডেট সময় : ০২:৫৬:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মে ২০২৪

রাফায় ইসরায়েলি হামলার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে কোনো ধরনের হামলা না চালাতে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধসহ বিভিন্নভাবে ইসরায়েলের ওপর চাপ বাড়িয়েছে বাইডেন প্রশাসন। এরই প্রেক্ষিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন সতর্ক করেছেন, রাফা শহরে ইসরায়েলি হামলায় হামাস নির্মূল হবে না, বরং তা নৈরাজ্য উসকে দেবে।

রোববার (১২ মে) তিনি এ মন্তব্য করেন বলে এএফপির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএসের এক অনুষ্ঠানে ব্লিঙ্কেন বলেন, রাফায় পূর্ণমাত্রায় ইসরায়েলি আক্রমণ সম্ভাব্যভাবে অবিশ্বাস্য চড়া মূল্য নিয়ে আসতে পারে। এমনকি রাফায় একটি বড় আক্রমণ হামাসের হুমকির অবসান ঘটাতে পারবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান ইসরায়েলের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জাচি হানেবির সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। এ ফোনালাপে রাফায় ইসরায়েলের সম্ভাব্য বড় আক্রমণের বিষয়ে ওয়াশিংটনের উদ্বেগের কথা হানেবিকে জানিয়ে দিয়েছেন সুলিভান।

ফোনালাপ নিয়ে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাফায় সম্ভাব্য একটি বড় ইসরায়েলি স্থল অভিযান নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের দীর্ঘদিনের উদ্বেগের কথা সুলিভান আবার বলেছেন। সেখানে ১০ লাখের বেশি মানুষের আশ্রয় রয়েছে।

হোয়াইট হাউস আরও বলেছে, হানেবি নিশ্চিত করেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগকে বিবেচনায় নিচ্ছে ইসরায়েল।

তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি।

ইতোমধ্যে রাফার পূর্বাঞ্চলে ইসরায়েলি বোমা হামলায় তিন লাখ ফিলিস্তিনি এলাকা ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশ সতর্ক করে বলেছে, রাফায় পূর্ণমাত্রায় ইসরায়েলি আক্রমণ সেখানে থাকা উদ্বাস্তুদের ওপর একটি বিপর্যয়কর প্রভাব ফেলতে পারে। সেখানে অনেকেই নিদারুণ পরিবেশে থাকছেন।

রাফায় বেসামরিক মানুষ হতাহতের সংখ্যা ন্যূনতম রাখার চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েল।