ঢাকা ০২:১৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহ সদরে রাস্তা না থাকায় চরম দুর্ভোগে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার

আরিফ রববানী , ময়মনসিংহ ||
  • আপডেট সময় : ০৫:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ জুন ২০২৩ ৭৩ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহ সদর উপজেলা পরানগঞ্জ ইউনিয়নে চলাচলের রাস্তা না থাকায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে
আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আফাজ উদ্দিন এর পরিবারকে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মুক্তিযোদ্ধা আফাজ উদ্দিনের বাড়ি থেকে পাকা রাস্তার আকাব আলী বাড়ি থেকে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা নেই। জমির আইল দিয়ে পরিবারের লোকজনকে যাতায়াত করতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে কোনো জনপ্রতিনিধি আমাদের দিকে নজর দেয়না বলে জানিয়ে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আব্দুল মজিদ অভিযোগের সুরে জানান-সারা বর্ষায় জমির হাইল দিয়ে চলাচল করতে হয়। কেউ অসুস্থ হলে কোলে করে নিয়ে যেতে হয় রাস্তায়। এব্যাপারে প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছেন মুক্তিযোদ্ধার পরিবারটি।

এই বিষয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা আফাজ উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান মাঝখানের ৩/৪ শতাংশ জমি দিলে আমাদের চলাফেরা সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যেত। বীর মুক্তিযোদ্ধা আরও বলেন আব্দুল মান্নান গংদের জমির উপর দিয়ে রাস্তা দিয়েছিলেন জমি সংক্রান্ত বিরোধী আমাদের চলাফেরা রাস্তায় বাশ দিয়ে বেঁধে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এতে রাস্তা না থাকায় চরম দুর্ভোগ পাওয়াতে হচ্ছে। ১৯৭১ সালে নয় মাস যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করে এনেছি এখন রাস্তার অভাবে আমি ও আমার পরিবারের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

একটি সুত্রে জানা যায়, আব্দুল হাই জমি দিতে চেয়ে ছিলেন পূর্বের শত্রুতা জেরে আব্দুল মান্নান, হাসিম উদ্দিন, হানিফা, খোকা মিয়া গংদের নির্দেশে আব্দুল হাই জমি দিতে অনিচ্ছুক প্রকাশ করেন। রাস্তা দিলে আমার চলাফেরার রাস্তা বন্ধ হয়ে যাবে। ভয়ভীতি দেখিয়ে আব্দুল হাইকে জিম্মি করে রাখে রাস্তা না দেওয়ার জন্য । সাংবাদিকদের আব্দুল মান্নান জানান আমাদের জমির উপর দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা আফাজ উদ্দিনের বাড়িতে দুটি রাস্তা দেয়া হয় একটি বন্ধ করে দিয়েছি আরেকটি পুরাতন রাস্তা চলমান রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ময়মনসিংহ সদরে রাস্তা না থাকায় চরম দুর্ভোগে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার

আপডেট সময় : ০৫:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ জুন ২০২৩

ময়মনসিংহ সদর উপজেলা পরানগঞ্জ ইউনিয়নে চলাচলের রাস্তা না থাকায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে
আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আফাজ উদ্দিন এর পরিবারকে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মুক্তিযোদ্ধা আফাজ উদ্দিনের বাড়ি থেকে পাকা রাস্তার আকাব আলী বাড়ি থেকে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা নেই। জমির আইল দিয়ে পরিবারের লোকজনকে যাতায়াত করতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে কোনো জনপ্রতিনিধি আমাদের দিকে নজর দেয়না বলে জানিয়ে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আব্দুল মজিদ অভিযোগের সুরে জানান-সারা বর্ষায় জমির হাইল দিয়ে চলাচল করতে হয়। কেউ অসুস্থ হলে কোলে করে নিয়ে যেতে হয় রাস্তায়। এব্যাপারে প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছেন মুক্তিযোদ্ধার পরিবারটি।

এই বিষয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা আফাজ উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান মাঝখানের ৩/৪ শতাংশ জমি দিলে আমাদের চলাফেরা সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যেত। বীর মুক্তিযোদ্ধা আরও বলেন আব্দুল মান্নান গংদের জমির উপর দিয়ে রাস্তা দিয়েছিলেন জমি সংক্রান্ত বিরোধী আমাদের চলাফেরা রাস্তায় বাশ দিয়ে বেঁধে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এতে রাস্তা না থাকায় চরম দুর্ভোগ পাওয়াতে হচ্ছে। ১৯৭১ সালে নয় মাস যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করে এনেছি এখন রাস্তার অভাবে আমি ও আমার পরিবারের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

একটি সুত্রে জানা যায়, আব্দুল হাই জমি দিতে চেয়ে ছিলেন পূর্বের শত্রুতা জেরে আব্দুল মান্নান, হাসিম উদ্দিন, হানিফা, খোকা মিয়া গংদের নির্দেশে আব্দুল হাই জমি দিতে অনিচ্ছুক প্রকাশ করেন। রাস্তা দিলে আমার চলাফেরার রাস্তা বন্ধ হয়ে যাবে। ভয়ভীতি দেখিয়ে আব্দুল হাইকে জিম্মি করে রাখে রাস্তা না দেওয়ার জন্য । সাংবাদিকদের আব্দুল মান্নান জানান আমাদের জমির উপর দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা আফাজ উদ্দিনের বাড়িতে দুটি রাস্তা দেয়া হয় একটি বন্ধ করে দিয়েছি আরেকটি পুরাতন রাস্তা চলমান রয়েছে।