ঢাকা ০১:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহে ১নং পুলিশ ফাঁড়িতে এস আই দেবাশীষ সাহার যোগদান

ময়মনসিংহ প্রতিবেদক :
  • আপডেট সময় : ০৫:২০:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৩ ৫১ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার অন্তর্গত ১নং পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার অপরাধ নির্মুলে এলাকার মাদক, ছিনতাই, চাঁদাবাজ চুর,ডাকাতদের নতুন আতঙ্ক হিসাবে ফাঁড়ি ইনচার্জ পদে যোগদান করেছেন কোতোয়ালি মডেল থানার দক্ষ ও সাহসী এস আই বাবু দেবাশীষ সাহা।

সোমবার (২৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় তার কাছে দায়িত্ব হস্তক্ষেপ করেন নিদায়ী ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন। কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ কামাল আকন্দ এস আই বাবু দেবাশীষ সাহাকে চেয়ারে বসিয়ে তার উপর ফাঁড়ি এলাকার নিরাপত্তার দায়িত্বভার অর্পণ করেন। এস আই বাবু দেবাশীষ সাহা এর আগে কোতোয়ালী মডেল থানায় কর্মরত ছিলেন।

পদোন্নতি জনিত কারনে ১নং ফাঁড়ির বিাদায়ী ইনচার্জ আনোয়ার হোসেনকে সিলেট মেট্রোপলিটনে বদলী করা হয়েছে। এর আগে তিনি গত ৫ এপ্রিল ২০২২ইং ১নং ফাঁড়ীতে ইনচার্জ হিসেবে যোগদান করে ১বছর ২০দিন দায়িত্ব পালন করেছেন।

নগরীর গুরুত্বপূর্ণ ১নং ফাঁড়ি ইনচার্জ আনোয়ার হোসেনের বিদায় ও বাবু দেবাশীষ সাহার যোগদান উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ কামাল আকন্দ তার বলেন, কোতোয়ালী থানার সবচেয়ে জনগুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ১নং পুলিশ ফাঁড়ি এলাকা, এখানে কোন সমস্যার সৃষ্টি হলে তার প্রভাব থানায় পড়ে। আনোয়ার হোসেন যতদিন ১নং ফাঁড়ীতে দায়িত্ব পালন করেছেন ততদিন আমাকে কোন চিন্তা করতে হয়নি, আলাদা করে কোন ছক আকঁতে হয়নি। যখন যেখানে যা প্রয়োজন আনোয়ার হোসেনকে বললে সে সকল কিছু দায়িত্বশীলতার মধ্যদিয়ে গুছিয়ে রাখত।

এসময় আনোয়ার হোসেনের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করে তিনি বাবু দেবাশীষ সাহার উদ্দেশ্যে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য – ১নং ফাঁড়ি ইনচার্জ হিসেবে নবযোগদানকৃত বাবু দেবাশীষ সাহা আনোয়ার হোসেনেরমত দায়িত্বশীল ভূমিকা রেখে ১নং ফাঁড়ীর সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অফিসার ইনচার্জ আরও বলেন, আমি দেবাশীষকে বলব সবসময় মাথা ঠান্ডা রেখে দায়িত্ব পালন করতে হবে। আপনার যদি দশ ঘন্টা ডিউটি থাকে তাহলে কেউ আপনার কাছে সেবা নিতে আসলে মাত্র ডিউটি শুরু মনে করে দায়িত্ব পালন করবেন। মনে করেন আপনার ডিউটির শেষের ঘন্টায় চর নিলক্ষীয়া থেকে একজন আসলো সে কিন্তু বুঝবে না যে আপনি দশ ঘন্টা যাবৎ ডিউটি করছেন তাই শেষ ঘন্টাকেও শুরু ভেবেই ঠান্ডা মাথায় কথা বলতে হবে।

এসময় বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক, প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ময়মনসিংহে ১নং পুলিশ ফাঁড়িতে এস আই দেবাশীষ সাহার যোগদান

আপডেট সময় : ০৫:২০:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৩

ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার অন্তর্গত ১নং পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার অপরাধ নির্মুলে এলাকার মাদক, ছিনতাই, চাঁদাবাজ চুর,ডাকাতদের নতুন আতঙ্ক হিসাবে ফাঁড়ি ইনচার্জ পদে যোগদান করেছেন কোতোয়ালি মডেল থানার দক্ষ ও সাহসী এস আই বাবু দেবাশীষ সাহা।

সোমবার (২৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় তার কাছে দায়িত্ব হস্তক্ষেপ করেন নিদায়ী ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন। কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ কামাল আকন্দ এস আই বাবু দেবাশীষ সাহাকে চেয়ারে বসিয়ে তার উপর ফাঁড়ি এলাকার নিরাপত্তার দায়িত্বভার অর্পণ করেন। এস আই বাবু দেবাশীষ সাহা এর আগে কোতোয়ালী মডেল থানায় কর্মরত ছিলেন।

পদোন্নতি জনিত কারনে ১নং ফাঁড়ির বিাদায়ী ইনচার্জ আনোয়ার হোসেনকে সিলেট মেট্রোপলিটনে বদলী করা হয়েছে। এর আগে তিনি গত ৫ এপ্রিল ২০২২ইং ১নং ফাঁড়ীতে ইনচার্জ হিসেবে যোগদান করে ১বছর ২০দিন দায়িত্ব পালন করেছেন।

নগরীর গুরুত্বপূর্ণ ১নং ফাঁড়ি ইনচার্জ আনোয়ার হোসেনের বিদায় ও বাবু দেবাশীষ সাহার যোগদান উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ কামাল আকন্দ তার বলেন, কোতোয়ালী থানার সবচেয়ে জনগুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ১নং পুলিশ ফাঁড়ি এলাকা, এখানে কোন সমস্যার সৃষ্টি হলে তার প্রভাব থানায় পড়ে। আনোয়ার হোসেন যতদিন ১নং ফাঁড়ীতে দায়িত্ব পালন করেছেন ততদিন আমাকে কোন চিন্তা করতে হয়নি, আলাদা করে কোন ছক আকঁতে হয়নি। যখন যেখানে যা প্রয়োজন আনোয়ার হোসেনকে বললে সে সকল কিছু দায়িত্বশীলতার মধ্যদিয়ে গুছিয়ে রাখত।

এসময় আনোয়ার হোসেনের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করে তিনি বাবু দেবাশীষ সাহার উদ্দেশ্যে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য – ১নং ফাঁড়ি ইনচার্জ হিসেবে নবযোগদানকৃত বাবু দেবাশীষ সাহা আনোয়ার হোসেনেরমত দায়িত্বশীল ভূমিকা রেখে ১নং ফাঁড়ীর সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অফিসার ইনচার্জ আরও বলেন, আমি দেবাশীষকে বলব সবসময় মাথা ঠান্ডা রেখে দায়িত্ব পালন করতে হবে। আপনার যদি দশ ঘন্টা ডিউটি থাকে তাহলে কেউ আপনার কাছে সেবা নিতে আসলে মাত্র ডিউটি শুরু মনে করে দায়িত্ব পালন করবেন। মনে করেন আপনার ডিউটির শেষের ঘন্টায় চর নিলক্ষীয়া থেকে একজন আসলো সে কিন্তু বুঝবে না যে আপনি দশ ঘন্টা যাবৎ ডিউটি করছেন তাই শেষ ঘন্টাকেও শুরু ভেবেই ঠান্ডা মাথায় কথা বলতে হবে।

এসময় বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক, প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।