ঢাকা ১২:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

মোদি ৩.০: যারা আছেন

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৩২:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪ ১৫ বার পড়া হয়েছে

টানা তৃতীয় মেয়াদে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করলেন বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদি। এর মধ্য দিয়ে জওহরলাল নেহরুর পর দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে নরেন্দ্র মোদি ভারতের ইতিহাসে টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হলেন। একইসঙ্গে যাত্রা শুরু হলো মোদি ৩.০’র যাত্রা শুরু হলো। প্রধানমন্ত্রীসহ এই মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা ৭২ যার মধ্যে ৩০ জন পূর্ণমন্ত্রী, ৫ জন প্রতিমন্ত্রী (ইন্ডিপেন্ডেন্ট চার্জ) এবং ৩৬ জন প্রতিমন্ত্রী।

রোববার (৯ জুন) সন্ধ্যায় নয়াদিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে মোদির পর একে একে অন্য মন্ত্রীদের শপথ পাঠ করান দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু।

জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান। এরপর প্রথমে নরেন্দ্র মোদিকে শপথ বাক্য পাঠ করান দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু। এরপর একে একে নতুন মন্ত্রিসভার মন্ত্রীদের শপথ পাঠ করান দ্রৌপদী মুর্মু।

মোদি ৩.০’তে আছেন যারা

৩০ জন পূর্ণমন্ত্রী হলেন— রাজনাথ সিংহ, অমিত শাহ, নিতিন গডকড়ী, জেপি নড্ডা, শিবরাজ সিংহ চৌহান, নির্মলা সীতারমন, এস জয়শঙ্কর, মনোহরলাল খট্টর, এইচডি কুমারস্বামী, পীযূষ গয়াল, ধর্মেন্দ্র প্রধান, জিতনরাম মাঝিঁ, রাজীবরঞ্জন সিংহ, সর্বানন্দ সোনোয়াল, বীরেন্দ্র কুমার, রামমোহন নায়ডু, প্রহ্লাদ জোশী, জুয়েল ওরাওঁ, গিরিরাজ সিংহ, অশ্বিনী বৈষ্ণব, জ্যোতিরাদিত্য শিন্ডে, ভূপেন্দ্র যাদব, গজেন্দ্র সিংহ শেখাওয়াত, অন্নপূর্ণা দেবী, কিরেন রিজিজু, হরদীপ সিংহ পুরী, মনসুখ মান্ডবীয়, জি কিষন রেড্ডি, চিরাগ পাসোয়ান, সিআর পাতিল।

৫ জন প্রতিমন্ত্রী (ইন্ডিপেন্ডেন্ট চার্জ) হলেন— রাও ইন্দ্রজিৎ সিংহ, জিতেন্দ্র সিংহ, অর্জুনরাম মেঘাওয়াল, প্রতাপরাও গণপতরাও জাদভ, জয়ন্ত চৌধরী।

৩৬ জন প্রতিমন্ত্রী হলেন— জিতিন প্রসাদ, শ্রীপদ নায়েক, পঙ্কজ চৌধরি, কিসান পাল, রামদাস অঠওয়ালে, রামনাথ ঠাকুর, নিত্যানন্দ রাই, অনুপ্রিয়া পটেল, ভি সোমান্না, চন্দ্রশেখর পেম্মাসানি, এসপি সিংহ বঘেল, শোভা করন্দলজে, কীর্তিবর্ধন সিংহ, বিএল বর্মা, শান্তনু ঠাকুর, সুরেশ গোপী, এল মুরুগান, অজয় টামটা, বন্দি সঞ্জয় কুমার, কমলেশ পাসোয়ান, ভগীরথ চৌধরি, সতীশচন্দ্র দুবে, সঞ্জয় শেঠ, রভনীত সিংহ বিট্টু, দুর্গাদাস উইকে, রক্ষা খাড়সে, সুকান্ত মজুমদার, সাবিত্রী ঠাকুর, তোখান সাহু, রাজভূষণ চৌধরি, ভূপতি রাজু শ্রীনিবাস বর্মা, হর্ষ মলহোত্র, নিমুবেন জয়ন্তিভাই বামভানিয়া, মুরলীধর মহল, জর্জ কুরিয়ান, পবিত্র মারঘেরিতা।

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুইজ্জু, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে, নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্পকমল দহাল ওরফে প্রচন্ড, মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী প্রবীন্দ জুগনাথসহ ৭ বিদেশি নেতা।

রাষ্ট্রপতি ভবনে উপস্থিত আট হাজার অতিথির মধ্যে রয়েছেন শাখরুখ খান, অক্ষয় কুমার, চলচ্চিত্র পরিচালক রাজকুমার হিরানি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৮তম লোকসভা নির্বাচনে এনডিএ পেয়েছে ২৯৩ আসন এবং ইন্ডিয়া জোট পেয়েছে ২৩২ আসন। এছাড়া অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মিলে পেয়েছে ১৮টি আসন।

দল হিসেবে এককভাবে সবচেয়ে বেশি ২৪০ আসন পেয়েছে বিজেপি। জোটসঙ্গী দলগুলোর মধ্যে তেলেগু দেশাম পার্টি পেয়েছে ১৬ এবং বিহারের নীতীশ কুমারের দল জনতা দল ইউনাইটেড (জেডইউ) পেয়েছে ১২ আসন।

কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট ইন্ডিয়া পেয়েছে ২৩২ আসন। এই ২৩২ আসনের মধ্যে কংগ্রেস এককভাবে পেয়েছে ৯৯ আসন। জোটের শরিক উত্তর প্রদেশের সমাজবাদী পার্টি পেয়েছে ৩৭ আসন, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ২৯, দ্রাবিড়া মুনেত্রা কাজাগাম পেয়েছে ২২ আসন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মোদি ৩.০: যারা আছেন

আপডেট সময় : ১০:৩২:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪

টানা তৃতীয় মেয়াদে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করলেন বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদি। এর মধ্য দিয়ে জওহরলাল নেহরুর পর দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে নরেন্দ্র মোদি ভারতের ইতিহাসে টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হলেন। একইসঙ্গে যাত্রা শুরু হলো মোদি ৩.০’র যাত্রা শুরু হলো। প্রধানমন্ত্রীসহ এই মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা ৭২ যার মধ্যে ৩০ জন পূর্ণমন্ত্রী, ৫ জন প্রতিমন্ত্রী (ইন্ডিপেন্ডেন্ট চার্জ) এবং ৩৬ জন প্রতিমন্ত্রী।

রোববার (৯ জুন) সন্ধ্যায় নয়াদিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে মোদির পর একে একে অন্য মন্ত্রীদের শপথ পাঠ করান দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু।

জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান। এরপর প্রথমে নরেন্দ্র মোদিকে শপথ বাক্য পাঠ করান দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু। এরপর একে একে নতুন মন্ত্রিসভার মন্ত্রীদের শপথ পাঠ করান দ্রৌপদী মুর্মু।

মোদি ৩.০’তে আছেন যারা

৩০ জন পূর্ণমন্ত্রী হলেন— রাজনাথ সিংহ, অমিত শাহ, নিতিন গডকড়ী, জেপি নড্ডা, শিবরাজ সিংহ চৌহান, নির্মলা সীতারমন, এস জয়শঙ্কর, মনোহরলাল খট্টর, এইচডি কুমারস্বামী, পীযূষ গয়াল, ধর্মেন্দ্র প্রধান, জিতনরাম মাঝিঁ, রাজীবরঞ্জন সিংহ, সর্বানন্দ সোনোয়াল, বীরেন্দ্র কুমার, রামমোহন নায়ডু, প্রহ্লাদ জোশী, জুয়েল ওরাওঁ, গিরিরাজ সিংহ, অশ্বিনী বৈষ্ণব, জ্যোতিরাদিত্য শিন্ডে, ভূপেন্দ্র যাদব, গজেন্দ্র সিংহ শেখাওয়াত, অন্নপূর্ণা দেবী, কিরেন রিজিজু, হরদীপ সিংহ পুরী, মনসুখ মান্ডবীয়, জি কিষন রেড্ডি, চিরাগ পাসোয়ান, সিআর পাতিল।

৫ জন প্রতিমন্ত্রী (ইন্ডিপেন্ডেন্ট চার্জ) হলেন— রাও ইন্দ্রজিৎ সিংহ, জিতেন্দ্র সিংহ, অর্জুনরাম মেঘাওয়াল, প্রতাপরাও গণপতরাও জাদভ, জয়ন্ত চৌধরী।

৩৬ জন প্রতিমন্ত্রী হলেন— জিতিন প্রসাদ, শ্রীপদ নায়েক, পঙ্কজ চৌধরি, কিসান পাল, রামদাস অঠওয়ালে, রামনাথ ঠাকুর, নিত্যানন্দ রাই, অনুপ্রিয়া পটেল, ভি সোমান্না, চন্দ্রশেখর পেম্মাসানি, এসপি সিংহ বঘেল, শোভা করন্দলজে, কীর্তিবর্ধন সিংহ, বিএল বর্মা, শান্তনু ঠাকুর, সুরেশ গোপী, এল মুরুগান, অজয় টামটা, বন্দি সঞ্জয় কুমার, কমলেশ পাসোয়ান, ভগীরথ চৌধরি, সতীশচন্দ্র দুবে, সঞ্জয় শেঠ, রভনীত সিংহ বিট্টু, দুর্গাদাস উইকে, রক্ষা খাড়সে, সুকান্ত মজুমদার, সাবিত্রী ঠাকুর, তোখান সাহু, রাজভূষণ চৌধরি, ভূপতি রাজু শ্রীনিবাস বর্মা, হর্ষ মলহোত্র, নিমুবেন জয়ন্তিভাই বামভানিয়া, মুরলীধর মহল, জর্জ কুরিয়ান, পবিত্র মারঘেরিতা।

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুইজ্জু, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে, নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্পকমল দহাল ওরফে প্রচন্ড, মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী প্রবীন্দ জুগনাথসহ ৭ বিদেশি নেতা।

রাষ্ট্রপতি ভবনে উপস্থিত আট হাজার অতিথির মধ্যে রয়েছেন শাখরুখ খান, অক্ষয় কুমার, চলচ্চিত্র পরিচালক রাজকুমার হিরানি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৮তম লোকসভা নির্বাচনে এনডিএ পেয়েছে ২৯৩ আসন এবং ইন্ডিয়া জোট পেয়েছে ২৩২ আসন। এছাড়া অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মিলে পেয়েছে ১৮টি আসন।

দল হিসেবে এককভাবে সবচেয়ে বেশি ২৪০ আসন পেয়েছে বিজেপি। জোটসঙ্গী দলগুলোর মধ্যে তেলেগু দেশাম পার্টি পেয়েছে ১৬ এবং বিহারের নীতীশ কুমারের দল জনতা দল ইউনাইটেড (জেডইউ) পেয়েছে ১২ আসন।

কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট ইন্ডিয়া পেয়েছে ২৩২ আসন। এই ২৩২ আসনের মধ্যে কংগ্রেস এককভাবে পেয়েছে ৯৯ আসন। জোটের শরিক উত্তর প্রদেশের সমাজবাদী পার্টি পেয়েছে ৩৭ আসন, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ২৯, দ্রাবিড়া মুনেত্রা কাজাগাম পেয়েছে ২২ আসন।