ঢাকা ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাদরাসা শিক্ষার মানোন্নয়নে কাজ কছেন শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক//
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩ ৮০ বার পড়া হয়েছে

বর্তমান সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মাদ্রাসা শিক্ষার মানোন্নয়নে কাজ করছেন বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান। প্রগতিশীল, মেধাবী ও সৃজনশীল ব্যক্তিদের শিক্ষকতায় আকৃষ্ট করা ও শিক্ষককে জ্ঞানসমৃদ্ধ, কুশলী ও দক্ষরূপে গড়ে তোলার জন্য শিক্ষকতা জীবনের প্রথম থেকেই প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও গবেষণাকর্মের প্রয়োজনীয় সুযোগ সৃষ্টি করার লক্ষে কাজ করছেন বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান।

কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের আওতাধীন মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর একটি নবসৃষ্ট সরকারি প্রতিষ্ঠান। গত ২০১৫ সালের আগস্ট মাস হতে কাকরাইলের জাতীয় স্কাউট ভবনে সম্পূর্ণ ভাড়া অফিসে এ দপ্তরের কার্যক্রম শুরু হয় । স্বল্প পরিসরে অফিস কার্যক্রম ঠিকমত পরিচালিত না হওয়ায় এবং কর্মকর্তাদের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না থাকায় বর্তমানে “গাইড হাউস (৭ম এবং ১০ম তলা ), নিউ বেইলি রোড, ঢাকা-১০০০” ভাড়ার ভিত্তিতে এ দপ্তরের কার্যক্রম চলছে ।

সুত্র মতে জানা গেছে- মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মাধ্যমে ৮২২২ টি এমপিও ভূক্ত মাদরাসায় ১,৬০,৮০০ জন শিক্ষক ও কর্মচারীদের প্রতি মাসে বেতন ও ভাতা দেয়া হচ্ছে। এছড়াও ১৫১৯ টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা ৪,৫২৯ জন শিক্ষকদের অনুদান দেয়া হচ্ছে। এই বিপুল সংখ্যক মাদ্রাসার শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকদের প্রশাসনিক এবং একাডেমিক বিষয়ে মনিটরিং এর সার্বিক দায়িত্ব মাদ্রাসা শিক্ষা অধদিপ্তরের। এ অধিদপ্তরের প্রশাসনিক অধিক্ষেত্র সমগ্র বাংলাদশ। এমপওি ভূক্তকরণ, মাদ্রাসা শিক্ষার একাডেমিক এবং কাঠামোগত উন্নয়নের ব্যাপারে মন্ত্রণালয়কে পরার্মশ দেয়া এবং প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা অধিদপ্তরের প্রধান কাজ। বর্তমানে মেমিস এর মাধ্যমে অনলাইন পদ্ধতিতে এমপিওভুক্ত মাদ্রাসার শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিও (বেতন-ভাতা) আবেদন দ্রুতসময়ে প্রক্রিয়াকরণ ও সরাসরি শিক্ষক-কর্মচারীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে প্রদান/বিতরণ নিশ্চিতকরণ করা হয়,সততা স্বচ্ছতার সাথে এই কাজগুলো করে সারা দেশে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছেন অধিদপ্তরের বর্তমান মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান। মহান মুক্তিযোদ্ধের অগ্রনায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্বপ্নের সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলা বিনির্মানে তারই সুযোগ্য কন্যা বর্তমান সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানের সহায়ক ভূমিকা পালেন অধিদপ্তরের পরিচালক, উপপরিচালক পরিদর্শক, উপপরিদর্শক সহ একঝাক মেধাবী অফিসার নিয়ে তিনি অধিদপ্তরটি পরিচালনা করছেন।

সুত্র জানিয়েছে-মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান এর দক্ষ ও সচ্ছ পরিচালনায় সময়মত দেশের মাদ্রাসা গুলোর ম্যানেজিং কমিটি ও গভর্নিং বডি কমিটির বিদ্যুৎ শাহী সদস্য প্রদান, কোন প্রকার হয়রাণী ছাড়া শিক্ষকদের যথাসময়ে বেতন ভাতা প্রদান, যথাযথ নিয়মনীতি দেশের বেসরকারী মাদ্রাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে অধ্যক্ষ উপাধ্যক্ষ, সুপার,সহসুপারসহ তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী নিয়োগে ডিজির প্রতিনিধি হিসেবে তিনি বাছাই করে দক্ষ এবং সৎ মেধাবীদের নিয়োগ বোর্ডের সদস্য মনোনীত করে স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনা সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে সরকারী জাতীয় দিবস গুলোকে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষে উদ্বুদ্ধ করছেন, ইতিমধ্যে তিনি দেশের মাদ্রাসা গুলোতে জেষ্টপ্রভাষকের ভিত্তিতে সহকারী অধ্যাপকের স্কেল প্রদান সহ শিক্ষকদের ভাগ্যোন্নয়নে বিভিন্ন কার্যকলাপ বাস্তবায়ন করেছেন এবং জনবল কাঠামো শিক্ষকদের বেতন টাইম স্কেল ইত্যাদি বিষয়ে সুপরিকল্পিত ভাবে আরো উন্নতি ও জনবল নিয়োগ বিষয়ে মাষ্টার প্ল্যান পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন বলেও জানা গেছে।
এরই মাঝে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) হাবিবুর রহমান এর সার্বিক প্রচেষ্টায় (১৫ই মে) গত দেশের মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদেরকে বিজ্ঞানের প্রতি আগ্রহ তৈরির মাধ্যমে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের উদ্যোগে এই প্রথমবারের মতো বিজ্ঞান মেলা সম্পন্ন করে দেশের সর্বস্তরের জনগণ ও শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক আলোচনার স্থান দখল করে নিয়েছেন মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মাদরাসা শিক্ষার মানোন্নয়নে কাজ কছেন শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান

আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

বর্তমান সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মাদ্রাসা শিক্ষার মানোন্নয়নে কাজ করছেন বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান। প্রগতিশীল, মেধাবী ও সৃজনশীল ব্যক্তিদের শিক্ষকতায় আকৃষ্ট করা ও শিক্ষককে জ্ঞানসমৃদ্ধ, কুশলী ও দক্ষরূপে গড়ে তোলার জন্য শিক্ষকতা জীবনের প্রথম থেকেই প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও গবেষণাকর্মের প্রয়োজনীয় সুযোগ সৃষ্টি করার লক্ষে কাজ করছেন বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান।

কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের আওতাধীন মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর একটি নবসৃষ্ট সরকারি প্রতিষ্ঠান। গত ২০১৫ সালের আগস্ট মাস হতে কাকরাইলের জাতীয় স্কাউট ভবনে সম্পূর্ণ ভাড়া অফিসে এ দপ্তরের কার্যক্রম শুরু হয় । স্বল্প পরিসরে অফিস কার্যক্রম ঠিকমত পরিচালিত না হওয়ায় এবং কর্মকর্তাদের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না থাকায় বর্তমানে “গাইড হাউস (৭ম এবং ১০ম তলা ), নিউ বেইলি রোড, ঢাকা-১০০০” ভাড়ার ভিত্তিতে এ দপ্তরের কার্যক্রম চলছে ।

সুত্র মতে জানা গেছে- মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মাধ্যমে ৮২২২ টি এমপিও ভূক্ত মাদরাসায় ১,৬০,৮০০ জন শিক্ষক ও কর্মচারীদের প্রতি মাসে বেতন ও ভাতা দেয়া হচ্ছে। এছড়াও ১৫১৯ টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা ৪,৫২৯ জন শিক্ষকদের অনুদান দেয়া হচ্ছে। এই বিপুল সংখ্যক মাদ্রাসার শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকদের প্রশাসনিক এবং একাডেমিক বিষয়ে মনিটরিং এর সার্বিক দায়িত্ব মাদ্রাসা শিক্ষা অধদিপ্তরের। এ অধিদপ্তরের প্রশাসনিক অধিক্ষেত্র সমগ্র বাংলাদশ। এমপওি ভূক্তকরণ, মাদ্রাসা শিক্ষার একাডেমিক এবং কাঠামোগত উন্নয়নের ব্যাপারে মন্ত্রণালয়কে পরার্মশ দেয়া এবং প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা অধিদপ্তরের প্রধান কাজ। বর্তমানে মেমিস এর মাধ্যমে অনলাইন পদ্ধতিতে এমপিওভুক্ত মাদ্রাসার শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিও (বেতন-ভাতা) আবেদন দ্রুতসময়ে প্রক্রিয়াকরণ ও সরাসরি শিক্ষক-কর্মচারীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে প্রদান/বিতরণ নিশ্চিতকরণ করা হয়,সততা স্বচ্ছতার সাথে এই কাজগুলো করে সারা দেশে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছেন অধিদপ্তরের বর্তমান মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান। মহান মুক্তিযোদ্ধের অগ্রনায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্বপ্নের সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলা বিনির্মানে তারই সুযোগ্য কন্যা বর্তমান সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানের সহায়ক ভূমিকা পালেন অধিদপ্তরের পরিচালক, উপপরিচালক পরিদর্শক, উপপরিদর্শক সহ একঝাক মেধাবী অফিসার নিয়ে তিনি অধিদপ্তরটি পরিচালনা করছেন।

সুত্র জানিয়েছে-মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান এর দক্ষ ও সচ্ছ পরিচালনায় সময়মত দেশের মাদ্রাসা গুলোর ম্যানেজিং কমিটি ও গভর্নিং বডি কমিটির বিদ্যুৎ শাহী সদস্য প্রদান, কোন প্রকার হয়রাণী ছাড়া শিক্ষকদের যথাসময়ে বেতন ভাতা প্রদান, যথাযথ নিয়মনীতি দেশের বেসরকারী মাদ্রাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে অধ্যক্ষ উপাধ্যক্ষ, সুপার,সহসুপারসহ তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী নিয়োগে ডিজির প্রতিনিধি হিসেবে তিনি বাছাই করে দক্ষ এবং সৎ মেধাবীদের নিয়োগ বোর্ডের সদস্য মনোনীত করে স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনা সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে সরকারী জাতীয় দিবস গুলোকে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষে উদ্বুদ্ধ করছেন, ইতিমধ্যে তিনি দেশের মাদ্রাসা গুলোতে জেষ্টপ্রভাষকের ভিত্তিতে সহকারী অধ্যাপকের স্কেল প্রদান সহ শিক্ষকদের ভাগ্যোন্নয়নে বিভিন্ন কার্যকলাপ বাস্তবায়ন করেছেন এবং জনবল কাঠামো শিক্ষকদের বেতন টাইম স্কেল ইত্যাদি বিষয়ে সুপরিকল্পিত ভাবে আরো উন্নতি ও জনবল নিয়োগ বিষয়ে মাষ্টার প্ল্যান পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন বলেও জানা গেছে।
এরই মাঝে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) হাবিবুর রহমান এর সার্বিক প্রচেষ্টায় (১৫ই মে) গত দেশের মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদেরকে বিজ্ঞানের প্রতি আগ্রহ তৈরির মাধ্যমে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের উদ্যোগে এই প্রথমবারের মতো বিজ্ঞান মেলা সম্পন্ন করে দেশের সর্বস্তরের জনগণ ও শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক আলোচনার স্থান দখল করে নিয়েছেন মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান।