ঢাকা ১২:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারত তাদের নীতিতে চলবে, আমাদের নির্বাচন আমাদের মতো

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৯:০৮:০০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ জুন ২০২৩ ৫১ বার পড়া হয়েছে

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ভারতের ভূমিকার ব্যাপারে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভারত তাদের নীতিতে চলে। আর আমাদের দেশের নির্বাচন সংবিধান ও আইন অনুযায়ী যথাসময়ে হবে।

বুধবার (২১ জুন) দুপুরে গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই কথা বলেন। সুইজারল্যান্ড ও কাতার সফর সম্পর্কে জানাতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

নির্বাচনে ভারতের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারত একটি স্বাধীন দেশ। তারা কী করবে না করবে সেটা তাদের ব্যাপার। তারা তাদের নীতিতে চলবে। এখানে আশা-নিরাশার কিছু নেই। আমাদের সংবিধান আছে। নির্বাচনি আইন আছে। নির্বাচন সেভাবে হওয়ার সেভাবে হবে।

সংখ্যালঘুদের নিয়ে বিভিন্ন অপপ্রচার শুরু হয়েছে জানিয়ে অপর এক প্রশ্নের জবাবে সরকারপ্রধান বলেন, আমাদের দেশে যারা বিভিন্ন ধর্মীয় প্রধান আছেন, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান তারা ইতোমধ্যে বিবৃতি দিয়েছেন। যেখানে তারা বলেছেন, তার এখানে খুব ভালো অবস্থায় আছেন। তারা নিজেরাই বলেছেন। ছয় কংগ্রেসম্যানের চিঠিতে সংখ্যালঘু নির্যাতনের যে কথা লেখা ছিল সেটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এখানে একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখে সবাই চলছে।

নির্বাচনকে সামনে রেখে এ ধরনের অপপ্রচার আরও হবে জানিয়ে এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

HHH

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আজকে যে বিএনপিসহ কিছু দল মাঠে নেমেছে তাদের অসুবিধা কোথায়। সমস্যাটা কী? মানুষ দুই বেলা ভাত খাচ্ছে। মানুষ কিছুটা চাপে আছে, সেটা বুঝি। মানুষের দুঃখ-কষ্ট আমরা উপলব্ধি করতে পারি৷ সবকিছু সহজ করা যেতে পারে, আমরা সেটা করার চেষ্টা করছি।

আগাম নির্বাচন নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীয় নির্বাচন এগিয়ে আনার সুযোগ নেই। সংবিধান অনুযায়ী সময়মতো নির্বাচন হবে। মানুষ ভোট দিলে আবার ক্ষমতায় আসব। না দিলে নাই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি আগেও বলেছি, নির্বাচন কমিশন যখন ঘোষণা দেবে তখন নির্বাচন হবে। মানুষ ভোট দেবে।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশি-বিদেশি কিছু মানুষ হয়ত নৈরাজ্যের চেষ্টা করবে। দেশি-বিদেশি অনেক ষড়যন্ত্র হবে। কিন্তু আমার প্রশ্ন, দেশের সচেতন নাগরিকরা কেন এসব নিয়ে চিন্তা করবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আমার আত্মবিশ্বাস আছে। দেশের উন্নয়ন করেছি। দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছি। এখন পছন্দ হলে ভোট দেবে, আর না দিলে চলে যাবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ভারত তাদের নীতিতে চলবে, আমাদের নির্বাচন আমাদের মতো

আপডেট সময় : ০৯:০৮:০০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ জুন ২০২৩

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ভারতের ভূমিকার ব্যাপারে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভারত তাদের নীতিতে চলে। আর আমাদের দেশের নির্বাচন সংবিধান ও আইন অনুযায়ী যথাসময়ে হবে।

বুধবার (২১ জুন) দুপুরে গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই কথা বলেন। সুইজারল্যান্ড ও কাতার সফর সম্পর্কে জানাতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

নির্বাচনে ভারতের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারত একটি স্বাধীন দেশ। তারা কী করবে না করবে সেটা তাদের ব্যাপার। তারা তাদের নীতিতে চলবে। এখানে আশা-নিরাশার কিছু নেই। আমাদের সংবিধান আছে। নির্বাচনি আইন আছে। নির্বাচন সেভাবে হওয়ার সেভাবে হবে।

সংখ্যালঘুদের নিয়ে বিভিন্ন অপপ্রচার শুরু হয়েছে জানিয়ে অপর এক প্রশ্নের জবাবে সরকারপ্রধান বলেন, আমাদের দেশে যারা বিভিন্ন ধর্মীয় প্রধান আছেন, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান তারা ইতোমধ্যে বিবৃতি দিয়েছেন। যেখানে তারা বলেছেন, তার এখানে খুব ভালো অবস্থায় আছেন। তারা নিজেরাই বলেছেন। ছয় কংগ্রেসম্যানের চিঠিতে সংখ্যালঘু নির্যাতনের যে কথা লেখা ছিল সেটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এখানে একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখে সবাই চলছে।

নির্বাচনকে সামনে রেখে এ ধরনের অপপ্রচার আরও হবে জানিয়ে এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

HHH

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আজকে যে বিএনপিসহ কিছু দল মাঠে নেমেছে তাদের অসুবিধা কোথায়। সমস্যাটা কী? মানুষ দুই বেলা ভাত খাচ্ছে। মানুষ কিছুটা চাপে আছে, সেটা বুঝি। মানুষের দুঃখ-কষ্ট আমরা উপলব্ধি করতে পারি৷ সবকিছু সহজ করা যেতে পারে, আমরা সেটা করার চেষ্টা করছি।

আগাম নির্বাচন নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীয় নির্বাচন এগিয়ে আনার সুযোগ নেই। সংবিধান অনুযায়ী সময়মতো নির্বাচন হবে। মানুষ ভোট দিলে আবার ক্ষমতায় আসব। না দিলে নাই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি আগেও বলেছি, নির্বাচন কমিশন যখন ঘোষণা দেবে তখন নির্বাচন হবে। মানুষ ভোট দেবে।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশি-বিদেশি কিছু মানুষ হয়ত নৈরাজ্যের চেষ্টা করবে। দেশি-বিদেশি অনেক ষড়যন্ত্র হবে। কিন্তু আমার প্রশ্ন, দেশের সচেতন নাগরিকরা কেন এসব নিয়ে চিন্তা করবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আমার আত্মবিশ্বাস আছে। দেশের উন্নয়ন করেছি। দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছি। এখন পছন্দ হলে ভোট দেবে, আর না দিলে চলে যাবো।