ঢাকা ০১:১৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে ময়মনসিংহে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

আরিফ রববানী , ময়মনসিংহ ||
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৮:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০২৩ ৭৬ বার পড়া হয়েছে

‘তামাক নয়, খাদ্য উৎপাদন করুন’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে ময়মনসিংহে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (৩১ মে) সকাল ১০টায় ময়মনসিংহ সদর উপজেলা পরিষদের সামনে উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় ধুমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন বাস্তবায়নে উপজেলা টাঙ্কফোর্স কমিটি ময়মনসিংহ সদর কমিটি
উক্ত র্যালী ও আলোচনা সভা কর্মসূচির আয়োজন করে।

এ সময়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে তামাকমুক্ত করার লক্ষ্যে ও ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০০৫ (সংশোধিত ২০১৩)-এর অধিকতর সংশোধনের লক্ষ্যে প্রস্তাবিত খসড়া আইনটি দ্রুত পাশ করে এর বাস্তবায়নের দাবি জানান বক্তারা।

বক্তারা জানান, খসড়া আইনটি পাশ হলে দেশে তামাকের ব্যবহার হ্রাস এবং এর মারাত্মক স্বাস্থ্য ও অর্থনৈতিক ক্ষতি আরও কমানো সম্ভব হবে।

সর্বোপরি, সংশোধনীটি পাস করা হলে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনটি আরও শক্তিশালী হবে যা বাংলাদেশে তামাকের ব্যবহার কমাবে। তামাক ব্যবহারের ফলে প্রতিবছর যে এক লাখ ৬১ হাজার মানুষের প্রাণহানি হয় সেটিও কমানো সম্ভব হবে।

এছাড়াও তামাক ব্যবহারজনিত কারণে উৎপাদনশীলতা হারানো এবং চিকিৎসা বাবদ বছরে যে ৩০ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হয় তাও কমানো সম্ভব বলে মনে করেন বক্তারা।

তামাক চাষিদের জন্য বিকল্প শস্য উৎপাদন এবং বিপণনের সুযোগ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং তাদের টেকসই, পুষ্টিকর ফসল চাষে উৎসাহিত করা এবং খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ বিষয়ে জনসাধারণ এবং নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে ‘গ্রো ফুড, নট টোব্যাকো যার বাংলা ভাবার্থ করা হয়েছে- তামাক নয়, খাদ্য উৎপাদন করুন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সদস্য রাষ্ট্রসমূহ ১৯৮৭ সালে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস চালু করে। প্রতি বছর ৩১ মে বিশ্বজুড়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

দিবসটি সফল করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশরাফ হোসাইন,
মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান,যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা,উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা,ধুমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন বাস্তবায়নে উপজেলা টাঙ্কফোর্স কমিটি ময়মনসিংহ সদর কমিটির নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং স্থানীয়দের সমন্বয়ে র্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য-বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস প্রতি বছর ৩১ মে তারিখে বিশ্বজুড়ে পালন করা হয়। বিশ্বজুড়ে ২৪ ঘণ্টা সময়সীমা ধরে তামাক সেবনের সমস্ত প্রক্রিয়া থেকে বিরত থাকাতে উৎসাহিত করার উদ্দেশ্যে দিবসটি প্রচলিত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে ময়মনসিংহে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

আপডেট সময় : ০৫:৪৮:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০২৩

‘তামাক নয়, খাদ্য উৎপাদন করুন’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে ময়মনসিংহে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (৩১ মে) সকাল ১০টায় ময়মনসিংহ সদর উপজেলা পরিষদের সামনে উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় ধুমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন বাস্তবায়নে উপজেলা টাঙ্কফোর্স কমিটি ময়মনসিংহ সদর কমিটি
উক্ত র্যালী ও আলোচনা সভা কর্মসূচির আয়োজন করে।

এ সময়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে তামাকমুক্ত করার লক্ষ্যে ও ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০০৫ (সংশোধিত ২০১৩)-এর অধিকতর সংশোধনের লক্ষ্যে প্রস্তাবিত খসড়া আইনটি দ্রুত পাশ করে এর বাস্তবায়নের দাবি জানান বক্তারা।

বক্তারা জানান, খসড়া আইনটি পাশ হলে দেশে তামাকের ব্যবহার হ্রাস এবং এর মারাত্মক স্বাস্থ্য ও অর্থনৈতিক ক্ষতি আরও কমানো সম্ভব হবে।

সর্বোপরি, সংশোধনীটি পাস করা হলে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনটি আরও শক্তিশালী হবে যা বাংলাদেশে তামাকের ব্যবহার কমাবে। তামাক ব্যবহারের ফলে প্রতিবছর যে এক লাখ ৬১ হাজার মানুষের প্রাণহানি হয় সেটিও কমানো সম্ভব হবে।

এছাড়াও তামাক ব্যবহারজনিত কারণে উৎপাদনশীলতা হারানো এবং চিকিৎসা বাবদ বছরে যে ৩০ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হয় তাও কমানো সম্ভব বলে মনে করেন বক্তারা।

তামাক চাষিদের জন্য বিকল্প শস্য উৎপাদন এবং বিপণনের সুযোগ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং তাদের টেকসই, পুষ্টিকর ফসল চাষে উৎসাহিত করা এবং খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ বিষয়ে জনসাধারণ এবং নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে ‘গ্রো ফুড, নট টোব্যাকো যার বাংলা ভাবার্থ করা হয়েছে- তামাক নয়, খাদ্য উৎপাদন করুন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সদস্য রাষ্ট্রসমূহ ১৯৮৭ সালে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস চালু করে। প্রতি বছর ৩১ মে বিশ্বজুড়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

দিবসটি সফল করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশরাফ হোসাইন,
মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান,যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা,উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা,ধুমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন বাস্তবায়নে উপজেলা টাঙ্কফোর্স কমিটি ময়মনসিংহ সদর কমিটির নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং স্থানীয়দের সমন্বয়ে র্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য-বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস প্রতি বছর ৩১ মে তারিখে বিশ্বজুড়ে পালন করা হয়। বিশ্বজুড়ে ২৪ ঘণ্টা সময়সীমা ধরে তামাক সেবনের সমস্ত প্রক্রিয়া থেকে বিরত থাকাতে উৎসাহিত করার উদ্দেশ্যে দিবসটি প্রচলিত হয়েছে।