ঢাকা ০৪:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘বিদেশিদের নির্দেশনা আওয়ামী লীগ অনুসরণ করবে না’–ওবায়দুল কাদের

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ৬৩ বার পড়া হয়েছে

দেশের নির্বাচনের ব্যাপারে বিদেশিদের কোনো নির্দেশনা আওয়ামী লীগ অনুসরণ করবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, নির্বাচন নির্বাচনের গতিতেই হবে, আগামী নির্বাচন বিশ্বাসযোগ্য ও সুষ্ঠু হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর গুলশানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের অ্যাম্বাসেডরদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এই কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচন নির্বাচনের গতিতেই হবে। আগামী নির্বাচন বিশ্বাসযোগ্য ও সুষ্ঠু হবে। নির্বাচন কমিশন স্বাধীন কর্তৃত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আওয়ামী লীগ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছে।’

‘নির্বাচনকেন্দ্রিক কখনও বিদেশিদের কোনো নির্দেশনা আওয়ামী লীগ অনুসরণ করবে না’ বলে স্পষ্ট জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘বিএনপি বিদেশিদের সাথে চুপিচুপি বৈঠক করে আর আওয়ামী লীগ জানান দিয়ে বৈঠক করে। নির্বাচনের জন্য অনেক পরিবর্তন হয়েছে, সেটা আওয়ামী লীগ সরকারের অবদানেই হয়েছে।’

কাদের বলেন, ‘পঁচাত্তরের পর আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই আইনের মাধ্যমে স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়। আওয়ামী লীগের ত্রুটিমুক্ত সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চায়, এর জন্য বর্তমান সরকার যা যা করণীয় তাই করবে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে বৈঠক শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী জানান, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যরাও বিএনপিসহ সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ এবং সুষ্ঠু-সুন্দর ও নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করেছেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অভিযোগ করে, ‘যে দল রাষ্ট্রপতির আহ্বান প্রত্যাখ্যান করে, নির্বাচন কমিশনের ডায়ালগ প্রত্যাখ্যান করে, তারা ডেমোক্রেসি চায় না। বিএনপির মনের দিক থেকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় না। তারা জানে, আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনার সরকার আবারও ক্ষমতায় আসবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে, তারা (বিএনপি) আবারও ২০১৪-১৫ সালের মতো আগুন সন্ত্রাসে দেশকে অস্থিতিশীল করে ক্ষমতায় যেতে চায়। নির্বাচনের ভয়ে দেশে আন্দোলন নামে স্থিতিশীল দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়।’

হেরে যাওয়ার ভয়ে বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় না বলেও দাবি করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, আগামী নির্বাচন কেমন হবে, বিএনপি নির্বাচনে আসবে কি না ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে এসব বিষয়ে কথা হয়েছে। পাশাপাশি রাজনৈতিক ও ব্যবসা-বাণিজ্য নিয়ে কথা হয়েছে। এসময় ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাতটি দেশের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেছেন বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

‘বিদেশিদের নির্দেশনা আওয়ামী লীগ অনুসরণ করবে না’–ওবায়দুল কাদের

আপডেট সময় : ০৯:৫৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

দেশের নির্বাচনের ব্যাপারে বিদেশিদের কোনো নির্দেশনা আওয়ামী লীগ অনুসরণ করবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, নির্বাচন নির্বাচনের গতিতেই হবে, আগামী নির্বাচন বিশ্বাসযোগ্য ও সুষ্ঠু হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর গুলশানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের অ্যাম্বাসেডরদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এই কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচন নির্বাচনের গতিতেই হবে। আগামী নির্বাচন বিশ্বাসযোগ্য ও সুষ্ঠু হবে। নির্বাচন কমিশন স্বাধীন কর্তৃত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আওয়ামী লীগ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছে।’

‘নির্বাচনকেন্দ্রিক কখনও বিদেশিদের কোনো নির্দেশনা আওয়ামী লীগ অনুসরণ করবে না’ বলে স্পষ্ট জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘বিএনপি বিদেশিদের সাথে চুপিচুপি বৈঠক করে আর আওয়ামী লীগ জানান দিয়ে বৈঠক করে। নির্বাচনের জন্য অনেক পরিবর্তন হয়েছে, সেটা আওয়ামী লীগ সরকারের অবদানেই হয়েছে।’

কাদের বলেন, ‘পঁচাত্তরের পর আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই আইনের মাধ্যমে স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়। আওয়ামী লীগের ত্রুটিমুক্ত সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চায়, এর জন্য বর্তমান সরকার যা যা করণীয় তাই করবে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে বৈঠক শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী জানান, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যরাও বিএনপিসহ সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ এবং সুষ্ঠু-সুন্দর ও নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করেছেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অভিযোগ করে, ‘যে দল রাষ্ট্রপতির আহ্বান প্রত্যাখ্যান করে, নির্বাচন কমিশনের ডায়ালগ প্রত্যাখ্যান করে, তারা ডেমোক্রেসি চায় না। বিএনপির মনের দিক থেকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় না। তারা জানে, আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনার সরকার আবারও ক্ষমতায় আসবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে, তারা (বিএনপি) আবারও ২০১৪-১৫ সালের মতো আগুন সন্ত্রাসে দেশকে অস্থিতিশীল করে ক্ষমতায় যেতে চায়। নির্বাচনের ভয়ে দেশে আন্দোলন নামে স্থিতিশীল দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়।’

হেরে যাওয়ার ভয়ে বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চায় না বলেও দাবি করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, আগামী নির্বাচন কেমন হবে, বিএনপি নির্বাচনে আসবে কি না ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে এসব বিষয়ে কথা হয়েছে। পাশাপাশি রাজনৈতিক ও ব্যবসা-বাণিজ্য নিয়ে কথা হয়েছে। এসময় ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাতটি দেশের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেছেন বলে জানান ওবায়দুল কাদের।