ঢাকা ০৫:০২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরিশালে ১৩২ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৬:১৬:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারী ২০২৩ ৮৫ বার পড়া হয়েছে

বরিশালের ৫টি সরকারি বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির ভ‌র্তির আবেদনে জালিয়াতি ধরা পড়ায় ১৩২ শিক্ষার্থীর ভ‌র্তি বা‌তিল করা হ‌য়েছে। মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) ব‌রিশা‌লের অতি‌রিক্ত জেলা প্রশাসক (‌শিক্ষা ও আইসিটি) মনদীপ ঘরাই বিষয়‌টি নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন।

তিনি বলেন, তৃতীয় শ্রেণিতে একাধিক জন্মনিবন্ধন ব্যবহার করায় প্রথম পর্যায়ে ১৩২ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করা হয়েছে। একের অধিক জন্মনিবন্ধন তৈরি করে একাধিক নাম ব্যবহার করে ভর্তিতে তথ্য গড়মিল করেছে তারা।
তিনি আরও বলেন, বরিশাল সরকারি জিলা স্কুলে ৫২ জন, বরিশাল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫১ জন, মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ৪ জন, শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৪ জন ও সরকারি শহীদ আরজুমনি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৪ জনসহ মোট ১৩২ জনের ভর্তি বাতিল করা হয়েছে। বাতিল প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। তবে যাদের ভর্তি বাতিল হচ্ছে তারা অন্য স্কুলে ভর্তি হতে পারবে।

এ বিষয়ে বরিশাল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহাবুবা হোসেন বলেন, ভর্তি বাতিল করায় অবশ্যই সেই শিক্ষার্থীর মন খারাপ হয়েছে। কিন্তু এজন্য দায়ী তাদের অভিভাবক। পিতা-মাতার ভুলে খেসারত গুনছেন শিক্ষার্থীরা। ভর্তির পর তাদের ভর্তি বাতিল হয়ে যাওয়া দুঃখজনক ঘটনা। তবে জানলে অবাক হবেন, ভর্তির জন্য এক শিক্ষার্থী ১১টি আবেদন পর্যন্ত করেছে।

শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পাপিয়া জেসমিন বলেন, যে শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল হলো এতে তার ক্ষণিক মন খারাপ হবে। কিন্তু এই শিক্ষা তার পাওয়া উচিত। এর মাধ্যমে হয়তো ভবিষ্যতে দুর্নীতির বিষয়ে নিরুৎসাহিত হবে যে খারাপ কাজ করলে ফলাফল ভালো হয় না।
তিনি আরও বলেন, আমাদের অনেক অভিভাবক নিজের অজান্তেই তাদের সন্তানদের অসৎ হতে উৎসাহিত করছেন। যার প্রমাণ একাধিক নাম, ঠিকানা, ভুল তথ্য দিয়ে স্কুলে ভর্তি করার চেষ্টা। এটা স্রেফ প্রতারণা। আমিও চাই যারা প্রতারণার মাধ্যমে ভর্তি হয়েছে তাদের ভর্তি বাতিল হোক।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বরিশালে ১৩২ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল

আপডেট সময় : ০৬:১৬:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারী ২০২৩

বরিশালের ৫টি সরকারি বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির ভ‌র্তির আবেদনে জালিয়াতি ধরা পড়ায় ১৩২ শিক্ষার্থীর ভ‌র্তি বা‌তিল করা হ‌য়েছে। মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) ব‌রিশা‌লের অতি‌রিক্ত জেলা প্রশাসক (‌শিক্ষা ও আইসিটি) মনদীপ ঘরাই বিষয়‌টি নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন।

তিনি বলেন, তৃতীয় শ্রেণিতে একাধিক জন্মনিবন্ধন ব্যবহার করায় প্রথম পর্যায়ে ১৩২ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করা হয়েছে। একের অধিক জন্মনিবন্ধন তৈরি করে একাধিক নাম ব্যবহার করে ভর্তিতে তথ্য গড়মিল করেছে তারা।
তিনি আরও বলেন, বরিশাল সরকারি জিলা স্কুলে ৫২ জন, বরিশাল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫১ জন, মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ৪ জন, শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৪ জন ও সরকারি শহীদ আরজুমনি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৪ জনসহ মোট ১৩২ জনের ভর্তি বাতিল করা হয়েছে। বাতিল প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। তবে যাদের ভর্তি বাতিল হচ্ছে তারা অন্য স্কুলে ভর্তি হতে পারবে।

এ বিষয়ে বরিশাল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহাবুবা হোসেন বলেন, ভর্তি বাতিল করায় অবশ্যই সেই শিক্ষার্থীর মন খারাপ হয়েছে। কিন্তু এজন্য দায়ী তাদের অভিভাবক। পিতা-মাতার ভুলে খেসারত গুনছেন শিক্ষার্থীরা। ভর্তির পর তাদের ভর্তি বাতিল হয়ে যাওয়া দুঃখজনক ঘটনা। তবে জানলে অবাক হবেন, ভর্তির জন্য এক শিক্ষার্থী ১১টি আবেদন পর্যন্ত করেছে।

শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পাপিয়া জেসমিন বলেন, যে শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল হলো এতে তার ক্ষণিক মন খারাপ হবে। কিন্তু এই শিক্ষা তার পাওয়া উচিত। এর মাধ্যমে হয়তো ভবিষ্যতে দুর্নীতির বিষয়ে নিরুৎসাহিত হবে যে খারাপ কাজ করলে ফলাফল ভালো হয় না।
তিনি আরও বলেন, আমাদের অনেক অভিভাবক নিজের অজান্তেই তাদের সন্তানদের অসৎ হতে উৎসাহিত করছেন। যার প্রমাণ একাধিক নাম, ঠিকানা, ভুল তথ্য দিয়ে স্কুলে ভর্তি করার চেষ্টা। এটা স্রেফ প্রতারণা। আমিও চাই যারা প্রতারণার মাধ্যমে ভর্তি হয়েছে তাদের ভর্তি বাতিল হোক।