ঢাকা ০৪:১০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বগুড়া প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:২৬:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩ ৫০ বার পড়া হয়েছে

বগুড়ায় পূর্বশত্রুতার জেরে নাহিদুল ইসলাম নাহিদ (৩০) নামে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার মালগ্রাম উত্তরপাড়ার ডাবতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নাহিদুল ইসলাম নাহিদ বগুড়া সদর উপজেলার মালগ্রাম কলেজ পাড়া এলাকার মাছ ব্যবসায়ী ঝন্টু শেখের ছেলে। তিনি শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। পাশাপাশি একটি বেসরকারি ব্যাংকের এজেন্ট শাখায় কাজ করতেন।

নিহত নাহিদের স্বজনরা জানান, রাত ৮ দিকে ডাবতলা এলাকায় সাদাফ ছাত্রাবাসের পিছনে নাহিদসহ ৭/৮ জন মিলে আড্ডা দিচ্ছিলেন। হঠাৎ করে স্থানীয় ১০/১২ জন দেশিয় অস্ত্র হাতে এসে দা দিয়ে নাহিদকে কোপাতে থাকে। এতে নাহিদের হাত, পেট এবং পা গুরুতর জখম হয়। পরে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে নাহিদ মারা যান।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার রহমান শান্ত বলেন, নিহত নাহিদ বগুড়া শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের পূর্নাঙ্গ প্রস্তাবিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

এ ঘটনায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) স্নিগ্ধ আখতার বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। খুব শীঘ্রই তাদের গ্রেপ্তার করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

আপডেট সময় : ০৫:২৬:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩

বগুড়ায় পূর্বশত্রুতার জেরে নাহিদুল ইসলাম নাহিদ (৩০) নামে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার মালগ্রাম উত্তরপাড়ার ডাবতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নাহিদুল ইসলাম নাহিদ বগুড়া সদর উপজেলার মালগ্রাম কলেজ পাড়া এলাকার মাছ ব্যবসায়ী ঝন্টু শেখের ছেলে। তিনি শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। পাশাপাশি একটি বেসরকারি ব্যাংকের এজেন্ট শাখায় কাজ করতেন।

নিহত নাহিদের স্বজনরা জানান, রাত ৮ দিকে ডাবতলা এলাকায় সাদাফ ছাত্রাবাসের পিছনে নাহিদসহ ৭/৮ জন মিলে আড্ডা দিচ্ছিলেন। হঠাৎ করে স্থানীয় ১০/১২ জন দেশিয় অস্ত্র হাতে এসে দা দিয়ে নাহিদকে কোপাতে থাকে। এতে নাহিদের হাত, পেট এবং পা গুরুতর জখম হয়। পরে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে নাহিদ মারা যান।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার রহমান শান্ত বলেন, নিহত নাহিদ বগুড়া শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের পূর্নাঙ্গ প্রস্তাবিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

এ ঘটনায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) স্নিগ্ধ আখতার বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। খুব শীঘ্রই তাদের গ্রেপ্তার করা হবে।