ঢাকা ১২:৫৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় ছয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাময়িক সিলগালা ও তিনটিতে জরিমানা

বগুড়া প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:০৬:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩ ৫৯ বার পড়া হয়েছে

সরকারি নির্দেশ অমান্য করে কোচিং সেন্টারে পাঠদান পরিচালনা করায় ছয় প্রতিষ্ঠানকে সাময়িক সিলগালা করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সাথে আরও তিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে অর্থদ- দেন আদালত।

মঙ্গলবার(০২ মে) বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শহরের জলেশ্বরীতলা, সেউজগাড়ী এবং উপশহর এলাকায় অভিযানে এসব সিলগালা করা হয়। আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রেবেকা সুলতানা। এসময় এপিবিএন সদস্যরা সহায়তা করে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেবেকা সুলতানা ডলি জানান, এসএসসি পরীক্ষা উপলক্ষে সারাদেশে সব ধরণের কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশনা রয়েছে। তারপরেও কিছু কোচিং সেন্টার সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে পাঠদান পরিচালনা করে আসছিল। পরে শহরের জলেশ্বরীতলা, সেউজগাড়ী এবং উপশহর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছয় প্রতিষ্ঠান সাময়িক সিলগালা এবং আরও তিন প্রতিষ্ঠানে মোট ৬০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

তিনি আরও জানান, কিছু কোচিং সেন্টার অফিস খোলা রাখায় সেটিও বন্ধ রাখার জন্য সতর্ক করা হয়। জনস্বার্থে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।

বগুড়া কোচিং সেন্টার এসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান জানান, প্রশাসন সভা করে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখতে নির্দেশনা দিয়েছেন। কিন্তু কিছু শিক্ষক ব্যক্তিগতভাবে প্রাইভেট পড়াচ্ছে। তাদেরকেও এসএসসি পরীক্ষা চলাকালে তা বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

বগুড়ায় ছয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাময়িক সিলগালা ও তিনটিতে জরিমানা

আপডেট সময় : ০৫:০৬:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩

সরকারি নির্দেশ অমান্য করে কোচিং সেন্টারে পাঠদান পরিচালনা করায় ছয় প্রতিষ্ঠানকে সাময়িক সিলগালা করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সাথে আরও তিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে অর্থদ- দেন আদালত।

মঙ্গলবার(০২ মে) বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শহরের জলেশ্বরীতলা, সেউজগাড়ী এবং উপশহর এলাকায় অভিযানে এসব সিলগালা করা হয়। আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রেবেকা সুলতানা। এসময় এপিবিএন সদস্যরা সহায়তা করে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেবেকা সুলতানা ডলি জানান, এসএসসি পরীক্ষা উপলক্ষে সারাদেশে সব ধরণের কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশনা রয়েছে। তারপরেও কিছু কোচিং সেন্টার সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে পাঠদান পরিচালনা করে আসছিল। পরে শহরের জলেশ্বরীতলা, সেউজগাড়ী এবং উপশহর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছয় প্রতিষ্ঠান সাময়িক সিলগালা এবং আরও তিন প্রতিষ্ঠানে মোট ৬০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

তিনি আরও জানান, কিছু কোচিং সেন্টার অফিস খোলা রাখায় সেটিও বন্ধ রাখার জন্য সতর্ক করা হয়। জনস্বার্থে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।

বগুড়া কোচিং সেন্টার এসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান জানান, প্রশাসন সভা করে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখতে নির্দেশনা দিয়েছেন। কিন্তু কিছু শিক্ষক ব্যক্তিগতভাবে প্রাইভেট পড়াচ্ছে। তাদেরকেও এসএসসি পরীক্ষা চলাকালে তা বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।