ঢাকা ০১:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফোর্বসের তালিকায় শীর্ষ ১০ ধনী ক্রীড়াবিদ, কার কত আয়?

ক্রীড়া ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৪৮:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩ ৮৭ বার পড়া হয়েছে

বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম সেরা দুই তারকা লিওনেল মেসি এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। যদিও ক্লাব ফুটবলেও শীর্ষ পর্যায় থেকে এখন অনেকটাই দূরে রোনালদো। কিন্তু সেইসব প্রভাব ফেলতে পারেনি তার বর্তমান রোজগারে। আয়ের ক্ষেত্রে আপাতত তিনিই সবার ওপরে। এমনকি পিছনে ফেলেছেন লিওনেল মেসিকেও। বিপুল অঙ্কের পারিশ্রমিকে পর্তুগিজ তারকার সৌদি আরবে পাড়ি দিয়েছিলেন। জনপ্রিয় ফোর্বস ম্যাগাজিনের তালিকায় পড়েছে তার প্রতিফলন। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি আয় করা ক্রীড়াবিদদের তালিকায় এখন সবার উপরে রয়েছেন ‘সিআরসেভেন’।

ফোর্বসের প্রকাশিত তালিকায় রোনালদো ছাড়িয়ে গিয়েছেন সকলকে। রোনালদোরর আয় ১৩ কোটি ৬০ লক্ষ মার্কিন ডলার। আর এই আয় করেই রোনালদো এখন শীর্ষে। ফোর্বসের তালিকা অনুযায়ী ফুটবলারদের মধ্যে ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি আয় তার। এই তালিকার পরের দুটি নামও দুজন ফুটবলারের। দুইয়ে রয়েছেন সদ্য বিশ্বকাপজয়ী রোনালদোর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। ১৩ কোটি ডলার আয়ে দুইয়ে রয়েছেন তিনি। ১২ কোটি ডলার আয় করে তিনে রয়েছেন পিএসজিতে মেসির সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপ্পে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের পর প্রথমবার এই তালিকার শীর্ষে উঠলেন রোনালদো। তার ক্যারিয়ারে সব মিলিয়ে সবার ওপরে এই নিয়ে তৃতীয়বার উঠলেন তিনি। গত দুই বছরে এই তালিকায় তিনি ছিলেন তিন নম্বরে।

গত জানুয়ারিতে রেকর্ড পারিশ্রমিকে সৌদি আরবের ক্লাব আল-নাসেরে যোগ দেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সৌদি আরবের ক্লাবে তার বার্ষিক পারিশ্রমিক ২২ কোটি মার্কিন ডলারের কাছাকাছি। যদিও এই বিষয়ে ক্লাবের তরফে অফিশিয়ালি কিছু জানানো হয়নি। তবে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর এই তথ্য দিয়েছে। বিজ্ঞাপনের বাজারে রোনালদোরর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।

ফোর্বসের তালিকায় শীর্ষ ১০ ধনী ক্রীড়াবিদ । ছবি: সংগৃহীত

ফোর্বস তাদের এই তালিকা প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে বিবেচনায় নিয়েছে পারিশ্রমিক, প্রাইজ মানিও সব ধরনের বোনাস। ফোর্বসের হিসাব অনুযায়ী, মাঠ থেকে অর্থাৎ পারিশ্রমিক এবং প্রাইজ মানি মিলিয়ে রোনালদোর আয় ছিল ৪ কোটি ৬০ লক্ষ ডলার। মাঠের বাইরে অর্থাৎ বিজ্ঞাপন জগত থেকে ৯ কোটি ডলার আয় করেছেন তিনি।

ফোর্বস যে তালিকা বরাবর প্রকাশ করে সেই তালিকার ইতিহাসে মাঠের বাইরে থেকে ৯ কোটি ডলার আয় করেছিলেন কেবলমাত্র তিনজন ক্রীড়াবিদ-যাদের মধ্যে রয়েছেন টেনিস তারকা রজার ফেদেরার, গলফ তারকা টাইগার উডস ও আইরিশ বক্সার কনর ম্যাকগ্রেগর।

মাঠের ভেতরে ও বাইরে, দুটি ক্ষেত্রেই মেসির আয় সাড়ে ৬ কোটি ডলার। মাঠের আয়ে রোনালদো-মেসিকে মাত দিয়েছেন এমবাপ্পে। মাঠ থেকে তার আয় ১০ কোটি ডলার। বাস্কেটবল তারকা তথা কিংবদন্তি লেব্রন জেমস তালিকায় চারে রয়েছেন। তার আয় ১১ কোটি ৯৫ লক্ষ ডলার। মেক্সিকান বক্সার কানেলো আলভারেস পাঁচে রয়েছেন। তার আয় ১১ কোটি ডলার।

যথাক্রমে তালিকায় ছয় নম্বরে গলফ স্টার ডাস্টিন জনসন। গতবছর ডাস্টিনের পকেটে এসেছে ৮৬ মিলিয়ন পাউন্ড। তালিকার সাত নম্বরে আরেক গলফার। ফিল মিকেনসন গতবছর উপার্জন করেছেন ৮৫ মিলিয়ন পাউন্ড। আটে রয়েছেন আরেক বাস্কেটবল স্টার। স্টিফেন গতবছর উপার্জন করেছেন ৮১ মিলিয়ন পাউন্ড।

ফোর্বসের তালিকায় নয় নম্বরে টেনিসের সর্বকালের অন্যতম সেরা রজার ফেদেরার। টেনিস থেকে অবসরের পরেও সেরা দশে রয়েছেন তিনি। ৯ কোটি ৫১ লক্ষ ডলার আয় করেছেন ফেদেরার। তালিকায় সবার শেষে কেভিন ডুরান্ট। শেষও এক বাস্কেটবল খেলোয়াড়। ডুরান্ডের ২০২২ সালে উপার্জন ছিল ৭২ মিলিয়ন পাউন্ড।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস, জি নিউজ

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ফোর্বসের তালিকায় শীর্ষ ১০ ধনী ক্রীড়াবিদ, কার কত আয়?

আপডেট সময় : ১০:৪৮:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩

বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম সেরা দুই তারকা লিওনেল মেসি এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। যদিও ক্লাব ফুটবলেও শীর্ষ পর্যায় থেকে এখন অনেকটাই দূরে রোনালদো। কিন্তু সেইসব প্রভাব ফেলতে পারেনি তার বর্তমান রোজগারে। আয়ের ক্ষেত্রে আপাতত তিনিই সবার ওপরে। এমনকি পিছনে ফেলেছেন লিওনেল মেসিকেও। বিপুল অঙ্কের পারিশ্রমিকে পর্তুগিজ তারকার সৌদি আরবে পাড়ি দিয়েছিলেন। জনপ্রিয় ফোর্বস ম্যাগাজিনের তালিকায় পড়েছে তার প্রতিফলন। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি আয় করা ক্রীড়াবিদদের তালিকায় এখন সবার উপরে রয়েছেন ‘সিআরসেভেন’।

ফোর্বসের প্রকাশিত তালিকায় রোনালদো ছাড়িয়ে গিয়েছেন সকলকে। রোনালদোরর আয় ১৩ কোটি ৬০ লক্ষ মার্কিন ডলার। আর এই আয় করেই রোনালদো এখন শীর্ষে। ফোর্বসের তালিকা অনুযায়ী ফুটবলারদের মধ্যে ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি আয় তার। এই তালিকার পরের দুটি নামও দুজন ফুটবলারের। দুইয়ে রয়েছেন সদ্য বিশ্বকাপজয়ী রোনালদোর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। ১৩ কোটি ডলার আয়ে দুইয়ে রয়েছেন তিনি। ১২ কোটি ডলার আয় করে তিনে রয়েছেন পিএসজিতে মেসির সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপ্পে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের পর প্রথমবার এই তালিকার শীর্ষে উঠলেন রোনালদো। তার ক্যারিয়ারে সব মিলিয়ে সবার ওপরে এই নিয়ে তৃতীয়বার উঠলেন তিনি। গত দুই বছরে এই তালিকায় তিনি ছিলেন তিন নম্বরে।

গত জানুয়ারিতে রেকর্ড পারিশ্রমিকে সৌদি আরবের ক্লাব আল-নাসেরে যোগ দেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সৌদি আরবের ক্লাবে তার বার্ষিক পারিশ্রমিক ২২ কোটি মার্কিন ডলারের কাছাকাছি। যদিও এই বিষয়ে ক্লাবের তরফে অফিশিয়ালি কিছু জানানো হয়নি। তবে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর এই তথ্য দিয়েছে। বিজ্ঞাপনের বাজারে রোনালদোরর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।

ফোর্বসের তালিকায় শীর্ষ ১০ ধনী ক্রীড়াবিদ । ছবি: সংগৃহীত

ফোর্বস তাদের এই তালিকা প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে বিবেচনায় নিয়েছে পারিশ্রমিক, প্রাইজ মানিও সব ধরনের বোনাস। ফোর্বসের হিসাব অনুযায়ী, মাঠ থেকে অর্থাৎ পারিশ্রমিক এবং প্রাইজ মানি মিলিয়ে রোনালদোর আয় ছিল ৪ কোটি ৬০ লক্ষ ডলার। মাঠের বাইরে অর্থাৎ বিজ্ঞাপন জগত থেকে ৯ কোটি ডলার আয় করেছেন তিনি।

ফোর্বস যে তালিকা বরাবর প্রকাশ করে সেই তালিকার ইতিহাসে মাঠের বাইরে থেকে ৯ কোটি ডলার আয় করেছিলেন কেবলমাত্র তিনজন ক্রীড়াবিদ-যাদের মধ্যে রয়েছেন টেনিস তারকা রজার ফেদেরার, গলফ তারকা টাইগার উডস ও আইরিশ বক্সার কনর ম্যাকগ্রেগর।

মাঠের ভেতরে ও বাইরে, দুটি ক্ষেত্রেই মেসির আয় সাড়ে ৬ কোটি ডলার। মাঠের আয়ে রোনালদো-মেসিকে মাত দিয়েছেন এমবাপ্পে। মাঠ থেকে তার আয় ১০ কোটি ডলার। বাস্কেটবল তারকা তথা কিংবদন্তি লেব্রন জেমস তালিকায় চারে রয়েছেন। তার আয় ১১ কোটি ৯৫ লক্ষ ডলার। মেক্সিকান বক্সার কানেলো আলভারেস পাঁচে রয়েছেন। তার আয় ১১ কোটি ডলার।

যথাক্রমে তালিকায় ছয় নম্বরে গলফ স্টার ডাস্টিন জনসন। গতবছর ডাস্টিনের পকেটে এসেছে ৮৬ মিলিয়ন পাউন্ড। তালিকার সাত নম্বরে আরেক গলফার। ফিল মিকেনসন গতবছর উপার্জন করেছেন ৮৫ মিলিয়ন পাউন্ড। আটে রয়েছেন আরেক বাস্কেটবল স্টার। স্টিফেন গতবছর উপার্জন করেছেন ৮১ মিলিয়ন পাউন্ড।

ফোর্বসের তালিকায় নয় নম্বরে টেনিসের সর্বকালের অন্যতম সেরা রজার ফেদেরার। টেনিস থেকে অবসরের পরেও সেরা দশে রয়েছেন তিনি। ৯ কোটি ৫১ লক্ষ ডলার আয় করেছেন ফেদেরার। তালিকায় সবার শেষে কেভিন ডুরান্ট। শেষও এক বাস্কেটবল খেলোয়াড়। ডুরান্ডের ২০২২ সালে উপার্জন ছিল ৭২ মিলিয়ন পাউন্ড।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস, জি নিউজ