ঢাকা ০৮:১৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুঠিয়ায় ইজারাদারকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টায় ২০ জনের নামে মামলা

মেহেদী হাসান, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:২৪:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩ ৪৮ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহীর পুঠিয়ায় হাট ইজারাদার নাজমুল ইসলাম সুমনকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার দায়ে ২০ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন তার বাবা নজরুল ইসলাম (এহিয়া)। সোমবার দুপুরে আহত সুমনের অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রামেক হাসপাতাল থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে বলে তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

আসামিরা হলেন, রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ (৪৫), উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাকিবুর রহমান মিঠু (৩০), নিয়ামুল হক জুয়েল (৩৫), মো. রিপন (২৮), মো. টাইপ (২৮), হামিদ হাসান (২২), মিম সরকার (২২), মেহেদী হাসান (২৮), হাসিবুল হোসেন শান্ত (২৫), মাসুদ রানা (৩২), মোনায়েম খান (৪৫), মো. খোকন (৩০), মো. মিঠু (৩২), মো. মিলন (২৮), আবুল বাসার (৩২), মাহফুজুর রহমান ডলার (৪০), মো. জয় (২৩), আব্দুল মান্নান (৪২), শরিফুল ইসলাম সেন্টু (২৬) ও মো. সাজ্জাদ (২৮)।

আসামীরা সকলেই পুঠিয়ার ঝলমলিয়া ও জিউপাড়া এলাকার। এদের মধ্যে সাকিবুর রহমান মিঠু ও রিপনকে ঘটনার পরপরই গ্রেফতার করেছেন পুলিশ।

রোববার বিকালে পুঠিয়ার হাড়োখালি নামক বাজারে সুমনের গতি রোধ করে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসামিরা। তাদের চাহিদামত ওই টাকা দিতে অস্বীকার করলে সুমনকে বিভিন্ন রকমের ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কোপানো হয় বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।
পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফারুক হোসেন বলেন, এই ঘটনায় দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বাকি আসামিদের গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

পুঠিয়ায় ইজারাদারকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টায় ২০ জনের নামে মামলা

আপডেট সময় : ০৫:২৪:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুলাই ২০২৩

রাজশাহীর পুঠিয়ায় হাট ইজারাদার নাজমুল ইসলাম সুমনকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার দায়ে ২০ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন তার বাবা নজরুল ইসলাম (এহিয়া)। সোমবার দুপুরে আহত সুমনের অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রামেক হাসপাতাল থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে বলে তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

আসামিরা হলেন, রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ (৪৫), উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাকিবুর রহমান মিঠু (৩০), নিয়ামুল হক জুয়েল (৩৫), মো. রিপন (২৮), মো. টাইপ (২৮), হামিদ হাসান (২২), মিম সরকার (২২), মেহেদী হাসান (২৮), হাসিবুল হোসেন শান্ত (২৫), মাসুদ রানা (৩২), মোনায়েম খান (৪৫), মো. খোকন (৩০), মো. মিঠু (৩২), মো. মিলন (২৮), আবুল বাসার (৩২), মাহফুজুর রহমান ডলার (৪০), মো. জয় (২৩), আব্দুল মান্নান (৪২), শরিফুল ইসলাম সেন্টু (২৬) ও মো. সাজ্জাদ (২৮)।

আসামীরা সকলেই পুঠিয়ার ঝলমলিয়া ও জিউপাড়া এলাকার। এদের মধ্যে সাকিবুর রহমান মিঠু ও রিপনকে ঘটনার পরপরই গ্রেফতার করেছেন পুলিশ।

রোববার বিকালে পুঠিয়ার হাড়োখালি নামক বাজারে সুমনের গতি রোধ করে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসামিরা। তাদের চাহিদামত ওই টাকা দিতে অস্বীকার করলে সুমনকে বিভিন্ন রকমের ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কোপানো হয় বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।
পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফারুক হোসেন বলেন, এই ঘটনায় দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বাকি আসামিদের গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।