ঢাকা ১২:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

পাকিস্তানে সেনাবাহিনীর গাড়ি বিস্ফোরণে ক্যাপ্টেনসহ নিহত ৭

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:১১:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪ ১৪ বার পড়া হয়েছে

পাকিস্তানে গাড়িতে পেতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে দেশটির সেনাবাহিনীর এক ক্যাপ্টেনসহ ৭ সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন।

সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িতে ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) দিয়ে বিস্ফোরণ ঘটানো হলে কারা প্রাণ হারান। খবর দ্যা ডনের।

রবিবার (৯ জুন) খাইবার-পাখতুনখাওয়া প্রদেশের লাকি মারওয়াতে সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িতে ওই হামলা হয়েছে।

এছাড়া খাইবার পাখতুনখাওয়ার বাজাউরে নিরাপত্তা চেকপোস্টে অতর্কিত হামলা প্রতিহত করার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িটি কাচি কামার এলাকায় যাওয়ার পথে পাঞ্জাবের মিয়ানওয়ালি জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা সুলতানখেল গ্রামের কাছে হামলার শিকার হয়।

পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর ইন্টার সার্ভিস পাবলিক রিলেশনস (আইএসপিআর) এক বিবৃতিতে বলেছে, লাকি মারওয়াত জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়িতে একটি ইম্প্রোভাইজড বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরিত হয়েছে।

দেশটির সেনাবাহিনীর মিডিয়া উইং আরও জানিয়েছে, এতে কাসুরের বাসিন্দা ২৬ বছর বয়সী ক্যাপ্টেন মুহাম্মদ ফারাজ ইলিয়াস, স্কার্দুর ৫০ বছর বয়সী সুবেদার মেজর মুহাম্মদ নাজির, ৩৪ বছর বয়সী ল্যান্স নায়েক মুহাম্মদ আনোয়ার, ৩৬ বছর বয়সী ল্যান্স নায়েক হুসেন আলী, মুলতানের ৩৩ বছর বয়সী সিপাহী আসাদুল্লাহ, গিলগিটের ২৭ বছর বয়সী সিপাহী মনজুর হুসেন এবং রাওয়ালপিন্ডি জেলার ৩১ বছর বয়সী সিপাহী রশিদ মেহমুদ নিহত হন।

আইএসপিআর বলেছে, সন্ত্রাসীদের নির্মূল করার জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে এবং এই জঘন্য হামলায় জড়িত অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

পাকিস্তানে সেনাবাহিনীর গাড়ি বিস্ফোরণে ক্যাপ্টেনসহ নিহত ৭

আপডেট সময় : ১০:১১:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

পাকিস্তানে গাড়িতে পেতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে দেশটির সেনাবাহিনীর এক ক্যাপ্টেনসহ ৭ সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন।

সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িতে ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) দিয়ে বিস্ফোরণ ঘটানো হলে কারা প্রাণ হারান। খবর দ্যা ডনের।

রবিবার (৯ জুন) খাইবার-পাখতুনখাওয়া প্রদেশের লাকি মারওয়াতে সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িতে ওই হামলা হয়েছে।

এছাড়া খাইবার পাখতুনখাওয়ার বাজাউরে নিরাপত্তা চেকপোস্টে অতর্কিত হামলা প্রতিহত করার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িটি কাচি কামার এলাকায় যাওয়ার পথে পাঞ্জাবের মিয়ানওয়ালি জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা সুলতানখেল গ্রামের কাছে হামলার শিকার হয়।

পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর ইন্টার সার্ভিস পাবলিক রিলেশনস (আইএসপিআর) এক বিবৃতিতে বলেছে, লাকি মারওয়াত জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়িতে একটি ইম্প্রোভাইজড বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরিত হয়েছে।

দেশটির সেনাবাহিনীর মিডিয়া উইং আরও জানিয়েছে, এতে কাসুরের বাসিন্দা ২৬ বছর বয়সী ক্যাপ্টেন মুহাম্মদ ফারাজ ইলিয়াস, স্কার্দুর ৫০ বছর বয়সী সুবেদার মেজর মুহাম্মদ নাজির, ৩৪ বছর বয়সী ল্যান্স নায়েক মুহাম্মদ আনোয়ার, ৩৬ বছর বয়সী ল্যান্স নায়েক হুসেন আলী, মুলতানের ৩৩ বছর বয়সী সিপাহী আসাদুল্লাহ, গিলগিটের ২৭ বছর বয়সী সিপাহী মনজুর হুসেন এবং রাওয়ালপিন্ডি জেলার ৩১ বছর বয়সী সিপাহী রশিদ মেহমুদ নিহত হন।

আইএসপিআর বলেছে, সন্ত্রাসীদের নির্মূল করার জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে এবং এই জঘন্য হামলায় জড়িত অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।