ঢাকা ১২:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানে মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত ১৭, আহত ৯০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:০২:১৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩ ৭৯ বার পড়া হয়েছে

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর পেশাওয়ার পুলিশ লাইন্সের একটি মসজিদের ভয়াবহ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় এ পর্যন্ত ১৭ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছে কতৃপক্ষ। এ ঘটনায় ৯০ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জিও নিউজ ও দ্য ডন।

পুলিশ কর্মকর্তা সিকান্দার খানের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মসজিদে যোহরের নামাজের সময় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে, যেখানে অসংখ্যক মানুষ জড়ো হয়েছিলো। স্থানীয় সময় আনুমানিক ১.৪০ মিনিটে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে এবং মসজিদ ভবনের একটি অংশ ধসে পড়েছে। এতে বেশ কয়েকজন নিচে চাপা পড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে, বিশেষত যারা নামাজের সময় সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে ছিল।

স্থানীয় লেডি রিডিং হাসপাতালের মুখপাত্র মোহাম্মদ আসিম বিস্ফোরণে আহত ৯০ জনের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান তিনি।ৎ

একজন প্রত্যক্ষদর্শী গণমাধ্যমকে জানান, বিস্ফোরণের সময় মসজিদে কমপক্ষে ১২০ জন মানুষ উপস্থিত ছিল। তিনি আরও জানান আহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ ছিল।

সিভিল সেক্রেটারিয়েট অ্যাসোসিয়েশন পেশোয়ারের সভাপতি তাসাভুর ইকবাল বলেছেন, পুলিশ লাইনস এলাকার নিরাপত্তা সর্বদা উচ্চ এবং কেউ তাদের পরিচয় এবং দেহ তল্লাশি ছাড়া প্রবেশ করতে পারে না। এটি একটি আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ছিল কারণ বোমারু হামলাকারীটি মসজিদের অভ্যন্তরীণ প্রাঙ্গণের মধ্যে ছিল।

এঘটনার নিন্দা করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো-জারদারি বলেছেন, এই হামলার পেছনে যা রয়েছে সেই সন্ত্রাসী ও তাদের সহায়তাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইরমান খান টুইট বার্তায় বলেন, পুলিশ লাইন মসজিদে নামাজের সময় সন্ত্রাসী আত্মঘাতী হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। নিহত ও আহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

পাকিস্তানে মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত ১৭, আহত ৯০

আপডেট সময় : ১০:০২:১৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর পেশাওয়ার পুলিশ লাইন্সের একটি মসজিদের ভয়াবহ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় এ পর্যন্ত ১৭ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছে কতৃপক্ষ। এ ঘটনায় ৯০ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জিও নিউজ ও দ্য ডন।

পুলিশ কর্মকর্তা সিকান্দার খানের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মসজিদে যোহরের নামাজের সময় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে, যেখানে অসংখ্যক মানুষ জড়ো হয়েছিলো। স্থানীয় সময় আনুমানিক ১.৪০ মিনিটে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে এবং মসজিদ ভবনের একটি অংশ ধসে পড়েছে। এতে বেশ কয়েকজন নিচে চাপা পড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে, বিশেষত যারা নামাজের সময় সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে ছিল।

স্থানীয় লেডি রিডিং হাসপাতালের মুখপাত্র মোহাম্মদ আসিম বিস্ফোরণে আহত ৯০ জনের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান তিনি।ৎ

একজন প্রত্যক্ষদর্শী গণমাধ্যমকে জানান, বিস্ফোরণের সময় মসজিদে কমপক্ষে ১২০ জন মানুষ উপস্থিত ছিল। তিনি আরও জানান আহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ ছিল।

সিভিল সেক্রেটারিয়েট অ্যাসোসিয়েশন পেশোয়ারের সভাপতি তাসাভুর ইকবাল বলেছেন, পুলিশ লাইনস এলাকার নিরাপত্তা সর্বদা উচ্চ এবং কেউ তাদের পরিচয় এবং দেহ তল্লাশি ছাড়া প্রবেশ করতে পারে না। এটি একটি আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ছিল কারণ বোমারু হামলাকারীটি মসজিদের অভ্যন্তরীণ প্রাঙ্গণের মধ্যে ছিল।

এঘটনার নিন্দা করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো-জারদারি বলেছেন, এই হামলার পেছনে যা রয়েছে সেই সন্ত্রাসী ও তাদের সহায়তাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইরমান খান টুইট বার্তায় বলেন, পুলিশ লাইন মসজিদে নামাজের সময় সন্ত্রাসী আত্মঘাতী হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। নিহত ও আহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।