ঢাকা ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নেত্রকোণার শ্যামগঞ্জ বাজারে আগুনে পুড়ল শতাধিক দোকান

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:২৫:৩৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩ ৮৩ বার পড়া হয়েছে

অগ্নিকাণ্ড। প্রতীকি ছবি

নেত্রকোণার শ্যামগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ আগুনে পুড়ে গেছে অন্তত শতাধিক দোকান।

বুধবার (২২ মার্চ) রাত পৌনে ১১টার দিকে ওই বাজারের স্বর্ণপট্টি থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিটের প্রচেষ্টায় রাত দেড়টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ময়মনসিংহ বিভাগীয় উপপরিচালক মো. মতিয়ার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, বাজারের সকল দোকানপাট কাছাকাছি হওয়ায় মুহূর্তেই চারদিকে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। তবে কাছে পানি না পাওয়ায় শুরুতে আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়।

পূর্বধলার গোহালাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ময়মনসিংহের গৌরীপুর অংশে শতাধিক দোকান পুড়ে গেছে।

নেত্রকোণার জেলা প্রশাসক (ডিসি) অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে পর্যায়ক্রমে নেত্রকোণার পূর্বধলা, সদর, ময়মনসিংহের গৌরীপুর, ঈশ্বরগঞ্জসহ ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিট অংশ নেয়। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নেত্রকোণার শ্যামগঞ্জ বাজারে আগুনে পুড়ল শতাধিক দোকান

আপডেট সময় : ০৫:২৫:৩৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩

নেত্রকোণার শ্যামগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ আগুনে পুড়ে গেছে অন্তত শতাধিক দোকান।

বুধবার (২২ মার্চ) রাত পৌনে ১১টার দিকে ওই বাজারের স্বর্ণপট্টি থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিটের প্রচেষ্টায় রাত দেড়টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ময়মনসিংহ বিভাগীয় উপপরিচালক মো. মতিয়ার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, বাজারের সকল দোকানপাট কাছাকাছি হওয়ায় মুহূর্তেই চারদিকে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। তবে কাছে পানি না পাওয়ায় শুরুতে আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়।

পূর্বধলার গোহালাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ময়মনসিংহের গৌরীপুর অংশে শতাধিক দোকান পুড়ে গেছে।

নেত্রকোণার জেলা প্রশাসক (ডিসি) অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে পর্যায়ক্রমে নেত্রকোণার পূর্বধলা, সদর, ময়মনসিংহের গৌরীপুর, ঈশ্বরগঞ্জসহ ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিট অংশ নেয়। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা যায়নি।