ঢাকা ০৪:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাফ নদী থেকে অস্ত্র ও গুলিসহ মাদক পাচারকারী আটক

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১১:১৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩ ৮৬ বার পড়া হয়েছে

কোস্টগার্ড পূর্বজোনের অধিনস্ত বিসিজি টেকনাফ স্টেশনের একটি অপারেশন দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নাফ নদীতে অভিযান পরিচালনা করে ২টি পিস্তল, ২রাউন্ড গুলি ও ১১৪ ক্যান বিদেশি বিয়ারসহ একজন মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে এতথ্য নিশ্চিত করেন কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান,বিএন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) ভোর আনুমানিক ৪টায় কোস্টগার্ড পূর্বজোনের অধিনস্ত বিসিজি স্টেশন টেকনাফের একটি অপারেশন দল নাফ নদীতে একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযান চলাকালীন নাফ নদীর কেকে খালের মোহনায় সন্দেহজনক একটি ডিঙি নৌকা দেখা যায়। কোস্ট গার্ড সদস্য কর্তৃক নৌকাটিকে থামার সংকেত দেয়া হলে কোস্ট গার্ড এর উপস্থিতি টের পেয়ে নৌকাটি খুব দ্রুত সময়ে পার্শ্ববর্তী হোছকার খাল সংলগ্ন প্যারাবনের মধ্যে প্রবেশ করে। কোস্ট গার্ড সদস্যগণ নৌকাটিকে ধাওয়া করতে করতে প্যারাবনের মধ্যে প্রবেশ করে, এক পর্যায়ে নৌকাতে থাকা কিছু সংখ্যক লোক নৌকাটি নিয়ে একদিকে চলে যায় এবং কিছু সংখ্যক লোক কয়েকটি প্লাস্টিকের বস্তা নিয়ে বরফ কলের দিকে পালাতে থাকে। এসময় কোস্ট গার্ড সদস্যরা লোকগুলোর পিছু নিয়ে বরফকলের দিকে ধাওয়া করতে থাকলে বরফ কলের পুকুর পাড়ে ৪ টি বস্তা ফেলে দিয়ে পালানোর সময় মোঃ আয়ুব (২১) নামের একজন মায়ানমার নাগরিককে আটক করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে বস্তাগুলো তল্লাশি চালিয়ে ১১৪ ক্যান আন্দামান গোল্ড বিয়ার , ৩৮৫ প্যাকেট বার্মিজ চা পাতা এবং চা পাতার বস্তার মধ্যে অভিনব কায়দায় লুকায়িত অবস্থায় ২টি দেশীয় পিস্তল ০২ রাউন্ড তাজা গোলা জব্দ করা হয়।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান আরও বলেন, আটককৃত মায়ানমার নাগরিককে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, টেকনাফের মুচনী রেজিস্টার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্পে তার মা, বাবা ও আত্নীয় স্বজনরা বসবাস করায় সে প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ- মায়ানমারে যাতায়াত করে থাকে। জব্দকৃত দেশীয় পিস্তল, গোলা, বিয়ার এবং চা পাতা সহ আটককৃত ব্যক্তিকে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নাফ নদী থেকে অস্ত্র ও গুলিসহ মাদক পাচারকারী আটক

আপডেট সময় : ১১:১৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩

কোস্টগার্ড পূর্বজোনের অধিনস্ত বিসিজি টেকনাফ স্টেশনের একটি অপারেশন দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নাফ নদীতে অভিযান পরিচালনা করে ২টি পিস্তল, ২রাউন্ড গুলি ও ১১৪ ক্যান বিদেশি বিয়ারসহ একজন মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে এতথ্য নিশ্চিত করেন কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান,বিএন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) ভোর আনুমানিক ৪টায় কোস্টগার্ড পূর্বজোনের অধিনস্ত বিসিজি স্টেশন টেকনাফের একটি অপারেশন দল নাফ নদীতে একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযান চলাকালীন নাফ নদীর কেকে খালের মোহনায় সন্দেহজনক একটি ডিঙি নৌকা দেখা যায়। কোস্ট গার্ড সদস্য কর্তৃক নৌকাটিকে থামার সংকেত দেয়া হলে কোস্ট গার্ড এর উপস্থিতি টের পেয়ে নৌকাটি খুব দ্রুত সময়ে পার্শ্ববর্তী হোছকার খাল সংলগ্ন প্যারাবনের মধ্যে প্রবেশ করে। কোস্ট গার্ড সদস্যগণ নৌকাটিকে ধাওয়া করতে করতে প্যারাবনের মধ্যে প্রবেশ করে, এক পর্যায়ে নৌকাতে থাকা কিছু সংখ্যক লোক নৌকাটি নিয়ে একদিকে চলে যায় এবং কিছু সংখ্যক লোক কয়েকটি প্লাস্টিকের বস্তা নিয়ে বরফ কলের দিকে পালাতে থাকে। এসময় কোস্ট গার্ড সদস্যরা লোকগুলোর পিছু নিয়ে বরফকলের দিকে ধাওয়া করতে থাকলে বরফ কলের পুকুর পাড়ে ৪ টি বস্তা ফেলে দিয়ে পালানোর সময় মোঃ আয়ুব (২১) নামের একজন মায়ানমার নাগরিককে আটক করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে বস্তাগুলো তল্লাশি চালিয়ে ১১৪ ক্যান আন্দামান গোল্ড বিয়ার , ৩৮৫ প্যাকেট বার্মিজ চা পাতা এবং চা পাতার বস্তার মধ্যে অভিনব কায়দায় লুকায়িত অবস্থায় ২টি দেশীয় পিস্তল ০২ রাউন্ড তাজা গোলা জব্দ করা হয়।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান আরও বলেন, আটককৃত মায়ানমার নাগরিককে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, টেকনাফের মুচনী রেজিস্টার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্পে তার মা, বাবা ও আত্নীয় স্বজনরা বসবাস করায় সে প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ- মায়ানমারে যাতায়াত করে থাকে। জব্দকৃত দেশীয় পিস্তল, গোলা, বিয়ার এবং চা পাতা সহ আটককৃত ব্যক্তিকে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।