ঢাকা ০৭:০১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাটোরে এমপি বকুলের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ

নাটোর প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:৩১:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন ২০২৩ ৫৮ বার পড়া হয়েছে

নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে দায়েরকৃত হত্যা মামলা আমলে নিয়ে পিবিআই পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সে সাথে আগামী ২৭ জুলাই মামলার পরবর্তী দিন ধার্য্য করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) দুপুরে জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক আবু সাঈদ এ আদেশ দেন। মামলা সুত্রে জানা যায়, নাটোরের বাগািতপাড়া উপজেলার মাড়িয়া সরকারপাড়া এলাকার আইযুব আলীর কাছে মিথ্যা পাওয়না টাকা দাবী করে আসামীরা। পরে গত ২০২০ সালের ২ ফেব্রæয়ারী সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুলের স্যানালপাড়ার বাসভবনে আইযুব আলী ও তার স্ত্রী শাহনাজ পারভিনকে ডেকে পাঠানো হয়।

পরে শহিদুল ইসলাম বকুলের বাসভবনে গেলে আইয়ুব আলীকে এমপি বকুল নিজেই চড়-থাপ্পর মেরে অন্যদের মারপিট করার নির্দেশ দেয়। এসময় আইয়ুব আলী জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে মারা যায়। এই ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি। গত ১ জুন মৃত আইয়ুব আলীর স্ত্রী শাহানাজ পারভিন সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল সহ ৫ জনের নামে আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক মামলা গ্রহণ করেন। যাহার নং- সিআর ৯০/২৩। ১৫ জুন মামলার শুনানীর দিন মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআই পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দেন আদালত। মামলার অপর আসামীরা হলেন, উপজেলার স্যান্যালপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদ তার ছেলে মহিদুল ইসলাম এবং মাড়িয়া গ্রামের সাজদার রহমানের ছেলে মিজানুর রহমান ও মাইনুল ইসলাম।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নাটোরে এমপি বকুলের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ

আপডেট সময় : ০৫:৩১:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন ২০২৩

নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে দায়েরকৃত হত্যা মামলা আমলে নিয়ে পিবিআই পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সে সাথে আগামী ২৭ জুলাই মামলার পরবর্তী দিন ধার্য্য করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) দুপুরে জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক আবু সাঈদ এ আদেশ দেন। মামলা সুত্রে জানা যায়, নাটোরের বাগািতপাড়া উপজেলার মাড়িয়া সরকারপাড়া এলাকার আইযুব আলীর কাছে মিথ্যা পাওয়না টাকা দাবী করে আসামীরা। পরে গত ২০২০ সালের ২ ফেব্রæয়ারী সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুলের স্যানালপাড়ার বাসভবনে আইযুব আলী ও তার স্ত্রী শাহনাজ পারভিনকে ডেকে পাঠানো হয়।

পরে শহিদুল ইসলাম বকুলের বাসভবনে গেলে আইয়ুব আলীকে এমপি বকুল নিজেই চড়-থাপ্পর মেরে অন্যদের মারপিট করার নির্দেশ দেয়। এসময় আইয়ুব আলী জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে মারা যায়। এই ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি। গত ১ জুন মৃত আইয়ুব আলীর স্ত্রী শাহানাজ পারভিন সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল সহ ৫ জনের নামে আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক মামলা গ্রহণ করেন। যাহার নং- সিআর ৯০/২৩। ১৫ জুন মামলার শুনানীর দিন মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআই পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দেন আদালত। মামলার অপর আসামীরা হলেন, উপজেলার স্যান্যালপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদ তার ছেলে মহিদুল ইসলাম এবং মাড়িয়া গ্রামের সাজদার রহমানের ছেলে মিজানুর রহমান ও মাইনুল ইসলাম।