ঢাকা ০৫:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাটোরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ২ সন্তানসহ মায়ের মৃত্যু

নাটোর প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ০৭:০৩:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মার্চ ২০২৩ ৭৭ বার পড়া হয়েছে

নাটোরের বড়াইগ্রামে একটি বাড়িতে বিস্ফোরণের পর আগুনে পুড়ে দুই শিশু সন্তানসহ এক মায়ের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের খাকসা উত্তরপাড়া এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। এসময় ওই বাড়ির ৪টি ঘরের সমস্ত মালামালসহ সম্পূর্ণ ভষ্মিভুত হয়।

অগ্নিকান্ডে ওয়ালিউল্লাহর স্ত্রী সুমা খাতুন (৩৫), মেয়ে অমিয়া খাতুন (৯) ও ছেলে ওমর আলী (৪) এর মৃত্যু হয়। বড়াইগ্রাম সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজিব আগুনে পুড়ে দুই সন্তানসহ মায়ের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বড়াইগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মমিন আলী জানান, খাকসা গ্রামের ওয়ালিউল্লাহ মিয়ার বাড়িতে রাত সাড়ে নয়টার দিকে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। এসময় গৃহবধু সুমা খাতুন তার দুই সন্তান অমিয়া এবং ওমরকে নিয়ে ঘুমাতে যান। ওয়ালিউল্লাহ তখনও বাজার থেকে বাড়ি ফিরেন নাই। এসময় হঠাৎ চারদিক থেকে আগুনের লেলিহান তাদেরকে ঘিরে ফেলে। তারা ঘরের ভেতর থেকে চিৎকার করতে পারলেও কেউ তাদের উদ্ধার করতে পারেনি। তারা নিজেরাও বের হয়ে আসতে পারেনি। ফলে নিজ বিছানাতেই করুন মৃত্যু হয়।

মমিন আলী আরও বলেন, খবর পেয়ে বনপাড়া থেকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে ঘন্টাব্যাপি চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। ততক্ষনে পুরে সব শেষ। তিনি আরও বলেন, ব্যক্তিগত তহবিল থেকে তাৎক্ষনিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে। পরে ইউএনও’র সাথে কথা বলে আরও সহায়তা দেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নাটোরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ২ সন্তানসহ মায়ের মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৭:০৩:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ মার্চ ২০২৩

নাটোরের বড়াইগ্রামে একটি বাড়িতে বিস্ফোরণের পর আগুনে পুড়ে দুই শিশু সন্তানসহ এক মায়ের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের খাকসা উত্তরপাড়া এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। এসময় ওই বাড়ির ৪টি ঘরের সমস্ত মালামালসহ সম্পূর্ণ ভষ্মিভুত হয়।

অগ্নিকান্ডে ওয়ালিউল্লাহর স্ত্রী সুমা খাতুন (৩৫), মেয়ে অমিয়া খাতুন (৯) ও ছেলে ওমর আলী (৪) এর মৃত্যু হয়। বড়াইগ্রাম সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজিব আগুনে পুড়ে দুই সন্তানসহ মায়ের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বড়াইগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মমিন আলী জানান, খাকসা গ্রামের ওয়ালিউল্লাহ মিয়ার বাড়িতে রাত সাড়ে নয়টার দিকে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। এসময় গৃহবধু সুমা খাতুন তার দুই সন্তান অমিয়া এবং ওমরকে নিয়ে ঘুমাতে যান। ওয়ালিউল্লাহ তখনও বাজার থেকে বাড়ি ফিরেন নাই। এসময় হঠাৎ চারদিক থেকে আগুনের লেলিহান তাদেরকে ঘিরে ফেলে। তারা ঘরের ভেতর থেকে চিৎকার করতে পারলেও কেউ তাদের উদ্ধার করতে পারেনি। তারা নিজেরাও বের হয়ে আসতে পারেনি। ফলে নিজ বিছানাতেই করুন মৃত্যু হয়।

মমিন আলী আরও বলেন, খবর পেয়ে বনপাড়া থেকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে ঘন্টাব্যাপি চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। ততক্ষনে পুরে সব শেষ। তিনি আরও বলেন, ব্যক্তিগত তহবিল থেকে তাৎক্ষনিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে। পরে ইউএনও’র সাথে কথা বলে আরও সহায়তা দেওয়া হবে।