ঢাকা ১১:২৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

দ. আফ্রিকাকে ১১৩ রানে থামিয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১১:১২:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪ ১২ বার পড়া হয়েছে

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে বিশ্বকাপের চলতি আসরে টানা দ্বিতীয় জয়ের স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

প্রোটিয়াদের ১১৩ রানে থামিয়ে সেই কাজটা এগিয়ে রাখলেন বোলাররা। এবার ব্যাটসম্যানরা নিজেদের দায়িত্ব ঠিকঠাক পালন করতে পারলেই জয় পাবে বাংলাদেশ।

প্রোটিয়া শিবিরে একের পর এক আঘাত হানেন তরুণ পেসার তানজিম হাসান সাকিব। তার গতির শিকার হয়ে ফেরেন দক্ষিণ আফ্রিকার দুই তারকা ওপেনার রিজা হেনড্রিকস ও কুইন্টন ডি কক।

ইনিংসের প্রথম ওভারের একিবারে শেষ বলে প্রোটিয়া ওপেনার রিজা হেনড্রিকসকে এলবিডব্লিউ করেন সাকিব। তার বিদায়ে ১ ওভারে ১১ রানে প্রথম উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে তৃতীয় বলে দক্ষিণ আফ্রিকার অভিজ্ঞ ওপেনার কুইন্টন ডি কককে ফেরান তানজিম সাকিব। ২.৩ ওভারে ১৯ রানে সাজঘরে ফেরার আগে ১১ বলে এক চার আর দুই ছক্কায় ১৮ রান করে ফেরেন ডি কক।

চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক এইডেন মার্করামকে বোল্ড করে ফেরান বাংলাদেশ দলের তারকা পেসার তাসকিন আহমেদ।মার্করাম ৮ বলে ৪ রান করে ফেরেন।

এরপর প্রোটিয়া শিবিরে ফের আঘাত হানেন তানজিম হাসান সাকিব। ইনিংসের পঞ্চম ওভারের দ্বিতীয় বলে সাকিব আল হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন ট্রিস্টান স্টাবস। ৫ বলে শূন্য রানে ফেরেন তিনি। তার বিদায়ে ৪.২ ওভারে মাত্র ২৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

২৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে যাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকাকে খেলায় ফেরান ডেভিড মিলার ও হেনরি ক্লেসেন। দুজনের ৭৯ রানের জুটি দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিয়ে গিয়েছিল কাঙ্ক্ষিত ১৩০ বা এর আশেপাশের স্কোরের দিকে। কিন্তু তাসকিনের বলে ক্লাসেন আর ১৯তম ওভারে রিশাদের বলে মিলার বোল্ড হওয়াতে দক্ষিণ আফ্রিকা আটকে গেছে আগেভাগেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

দ. আফ্রিকাকে ১১৩ রানে থামিয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ

আপডেট সময় : ১১:১২:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে বিশ্বকাপের চলতি আসরে টানা দ্বিতীয় জয়ের স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

প্রোটিয়াদের ১১৩ রানে থামিয়ে সেই কাজটা এগিয়ে রাখলেন বোলাররা। এবার ব্যাটসম্যানরা নিজেদের দায়িত্ব ঠিকঠাক পালন করতে পারলেই জয় পাবে বাংলাদেশ।

প্রোটিয়া শিবিরে একের পর এক আঘাত হানেন তরুণ পেসার তানজিম হাসান সাকিব। তার গতির শিকার হয়ে ফেরেন দক্ষিণ আফ্রিকার দুই তারকা ওপেনার রিজা হেনড্রিকস ও কুইন্টন ডি কক।

ইনিংসের প্রথম ওভারের একিবারে শেষ বলে প্রোটিয়া ওপেনার রিজা হেনড্রিকসকে এলবিডব্লিউ করেন সাকিব। তার বিদায়ে ১ ওভারে ১১ রানে প্রথম উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে তৃতীয় বলে দক্ষিণ আফ্রিকার অভিজ্ঞ ওপেনার কুইন্টন ডি কককে ফেরান তানজিম সাকিব। ২.৩ ওভারে ১৯ রানে সাজঘরে ফেরার আগে ১১ বলে এক চার আর দুই ছক্কায় ১৮ রান করে ফেরেন ডি কক।

চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক এইডেন মার্করামকে বোল্ড করে ফেরান বাংলাদেশ দলের তারকা পেসার তাসকিন আহমেদ।মার্করাম ৮ বলে ৪ রান করে ফেরেন।

এরপর প্রোটিয়া শিবিরে ফের আঘাত হানেন তানজিম হাসান সাকিব। ইনিংসের পঞ্চম ওভারের দ্বিতীয় বলে সাকিব আল হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন ট্রিস্টান স্টাবস। ৫ বলে শূন্য রানে ফেরেন তিনি। তার বিদায়ে ৪.২ ওভারে মাত্র ২৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

২৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে যাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকাকে খেলায় ফেরান ডেভিড মিলার ও হেনরি ক্লেসেন। দুজনের ৭৯ রানের জুটি দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিয়ে গিয়েছিল কাঙ্ক্ষিত ১৩০ বা এর আশেপাশের স্কোরের দিকে। কিন্তু তাসকিনের বলে ক্লাসেন আর ১৯তম ওভারে রিশাদের বলে মিলার বোল্ড হওয়াতে দক্ষিণ আফ্রিকা আটকে গেছে আগেভাগেই।