ঢাকা ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ত্রিশালে রাস্তা ও খাল খনন কাজের উদ্বোধন

আরিফ রববানী , ময়মনসিংহ ||
  • আপডেট সময় : ১১:০৬:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৪২ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, ত্রিশালের সাবেক ৩বারের মেয়র, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে
১৫২ ময়মনসিংহ-৭ ত্রিশাল আসনের নবনির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য, শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ বলেছেন, সব সময় ত্রিশালের সর্বস্তরের জনগণ, দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীদের পাশে ছিলাম। ভবিষ্যতেও আমাকে পাশে পাবেন। তিনি বলেন, ‘আমি সব সময় জনগণ, দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করি,জনগণকে মুল্যায়ন করি এবং তাদের যে কোন সমস্যা সমাধান করার চেষ্টা করি, ত্রিশালের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য আগামীতেও তা করবো ইনশাআল্লাহ। আপনারা আমাকে সব সময় আপনাদের সন্তান-ভাই হিসেবে সাথে পাবেন। ক্ষমতায় থাকি বা না থাকি, সব সময় আপনাদের পাশে থাকবো।

সোমবার (২৬শে ফেব্রুয়ারী) সকালে উপজেলার কোনাবাড়ী এলাকার জনগণের দীর্ঘ প্রায় ২৫ বছরের সমস্যা ত্রিশাল কোনাবাড়ী পাকা রাস্তা হতে কোনাবাড়ী শিংমাড়ার পাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত রাস্তার কাজ ও খাল খনন কাজের শুভ উদ্বোধন করে জনগণের সমস্যা সমাধান করে সেখানে আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন এমপি আনিছ ।।

এমপি আনিছ বলেন, অতীতে এই এলাকায় যিনি জনপ্রতিনিধি ছিলেন তিনি এলাকাবাসী ও তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাউকে মূল্যায়ন করেননি। তিনি বলেন, ‘আমার প্রয়াত বাবাও সুখে-দুঃখে সবসময় আপনাদের পাশে ছিলেন। বাবার আদর্শ নিয়ে আমিও আছি আপনাদের সেবায়। আপনারা আমাকে ভোট দিয়ে ত্রিশাল পৌরসভার ৩বার মেয়র নির্বাচিত করেছিলেন। মেয়র হিসেবে দীর্ঘ প্রায় ১২বছর দায়িত্ব পালন করেছি। আমার সাধ্যমত কাজ করেছি। চেষ্টার কোনো কমতি ছিলো না, সুখে-দুঃখে আমি আপনাদের পাশে ছিলাম। গত নির্বাচনে আমাকে এমপি নির্বাচিত করেছেন।

তিনি বলেন, মেয়র হিসাবে যেভাবে আপনাদের পাশে ছিলাম,এমপি হিসাবেও আমি আপনাদের পাশে থাকবো। আমি আপনাদের সন্তান হিসাবে সুখে-দুঃখে আপনাদের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি আগামী দিনেও করবো। আমার উপর আপনাদের যে হক তা আমি পালন করার চেষ্টা করবো। এসময় আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে ত্রিশাল কোনাবাড়ী পাকা রাস্তা হতে কোনাবাড়ী শিংমাড়ার পাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত রাস্তার কাজ ও খাল খনন কাজের শুভ উদ্বোধন করেদীর্ঘ প্রায় ২৫ বছরের সমস্যা সমাধান করায় নবনির্বাচিত এমপির প্রশংসায় মেতে উঠেছেন কোনাপাড়া ও পাশ্ববর্তী এলাকার সাধারণ মানুষ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ত্রিশালে রাস্তা ও খাল খনন কাজের উদ্বোধন

আপডেট সময় : ১১:০৬:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, ত্রিশালের সাবেক ৩বারের মেয়র, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে
১৫২ ময়মনসিংহ-৭ ত্রিশাল আসনের নবনির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য, শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ বলেছেন, সব সময় ত্রিশালের সর্বস্তরের জনগণ, দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীদের পাশে ছিলাম। ভবিষ্যতেও আমাকে পাশে পাবেন। তিনি বলেন, ‘আমি সব সময় জনগণ, দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করি,জনগণকে মুল্যায়ন করি এবং তাদের যে কোন সমস্যা সমাধান করার চেষ্টা করি, ত্রিশালের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য আগামীতেও তা করবো ইনশাআল্লাহ। আপনারা আমাকে সব সময় আপনাদের সন্তান-ভাই হিসেবে সাথে পাবেন। ক্ষমতায় থাকি বা না থাকি, সব সময় আপনাদের পাশে থাকবো।

সোমবার (২৬শে ফেব্রুয়ারী) সকালে উপজেলার কোনাবাড়ী এলাকার জনগণের দীর্ঘ প্রায় ২৫ বছরের সমস্যা ত্রিশাল কোনাবাড়ী পাকা রাস্তা হতে কোনাবাড়ী শিংমাড়ার পাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত রাস্তার কাজ ও খাল খনন কাজের শুভ উদ্বোধন করে জনগণের সমস্যা সমাধান করে সেখানে আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন এমপি আনিছ ।।

এমপি আনিছ বলেন, অতীতে এই এলাকায় যিনি জনপ্রতিনিধি ছিলেন তিনি এলাকাবাসী ও তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাউকে মূল্যায়ন করেননি। তিনি বলেন, ‘আমার প্রয়াত বাবাও সুখে-দুঃখে সবসময় আপনাদের পাশে ছিলেন। বাবার আদর্শ নিয়ে আমিও আছি আপনাদের সেবায়। আপনারা আমাকে ভোট দিয়ে ত্রিশাল পৌরসভার ৩বার মেয়র নির্বাচিত করেছিলেন। মেয়র হিসেবে দীর্ঘ প্রায় ১২বছর দায়িত্ব পালন করেছি। আমার সাধ্যমত কাজ করেছি। চেষ্টার কোনো কমতি ছিলো না, সুখে-দুঃখে আমি আপনাদের পাশে ছিলাম। গত নির্বাচনে আমাকে এমপি নির্বাচিত করেছেন।

তিনি বলেন, মেয়র হিসাবে যেভাবে আপনাদের পাশে ছিলাম,এমপি হিসাবেও আমি আপনাদের পাশে থাকবো। আমি আপনাদের সন্তান হিসাবে সুখে-দুঃখে আপনাদের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি আগামী দিনেও করবো। আমার উপর আপনাদের যে হক তা আমি পালন করার চেষ্টা করবো। এসময় আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে ত্রিশাল কোনাবাড়ী পাকা রাস্তা হতে কোনাবাড়ী শিংমাড়ার পাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত রাস্তার কাজ ও খাল খনন কাজের শুভ উদ্বোধন করেদীর্ঘ প্রায় ২৫ বছরের সমস্যা সমাধান করায় নবনির্বাচিত এমপির প্রশংসায় মেতে উঠেছেন কোনাপাড়া ও পাশ্ববর্তী এলাকার সাধারণ মানুষ।