ঢাকা ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তাহেরপুর পৌরসভায় যানবাহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ১৫

নাজিম হাসান, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৫৪:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মে ২০২৪ ৬ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহীর বাগমারার তাহেরপুর পৌরসভাসহ বিভিন্ন সড়কে যানবাহন থেকে অবৈধ ভাবে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে ১৫ জন চাঁদাবাজকে হাতে নাথে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাহেরপুর পৌরসভার ভাবনপুরের মুন্টুসহ অনেক চাঁদাবাজ ঘটনারস্থল থেকে পালিয়েগেছে। সোমবার আনুমানিক বেলা সাড়ে ১২ টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করে চাঁদাবাজদেরকে আটক করে র‌্যাব-৫ রাজশাহীর টহল দল। আটককৃরা হলেন, তাহেরপুর পৌরসভার মৃত মাখনের ছেলে নাইম,মৃত মেরাজের ছেলে তোফাজ্জল,বাবু,আলমগীর, মিঠু, আসাদ হাসান, সজিব ইসলাম (২১), আমিরুল হক,হিরু চন্দ্র,দুর্গাপুর উপজেলার গোপালপাড়ার বাগাতপাড়া গ্রামের মৃত ইউসুব আলীর ছেলে দুলাল এবং তার ছেলেসহ বাকি চাঁদাবাজদের নাম পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসি জানায়, আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধির নেতৃত্বে চাঁদাবাজদের একটি গ্রুপ কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে ভবানীগঞ্জ ও তাহেরপুর পৌরসভাসহ বিভিন্ন হাট-বাজারে রাস্তার মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে বেড়িকেট দিয়ে রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী ট্রাক, ট্রাক্টর, সিএনজি ও অটোরিক্সা, ভ্যানগাড়িসহ বিভিন্ন যানবাহন থেকে অবৈধ ভাবে জোরপূর্বক চাঁদা আদায় করে আসছিল। চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র চাঁদাবাজদের সাথে চালকদের একাধিকবার সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। কিন্তু প্রভাবশালীদের মদদ থাকায় ওই সব সংষর্ষের ঘটনায় থানা পুলিশ কোন মামলাও নেয়নি। ভূক্তভোগীদের অভিযোগ চাঁদাবাজরা প্রভাবশালী ওই জনপ্রতিনিধির ছত্রছায়ায় বেপরোয়াভাবে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি করলেও স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয় না।ফলে বিভিন্ন এলাকায় চাঁদাবাজরা আরো বেপোয়ারা হয়ে উঠে। কয়েকদিন আগে চাঁদাবাজির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এরপর বিষয়টি র‌্যাবের নজরে আসলে রবিবার দুপুরে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর একটি টহল দল অভিযান চালিয়ে তাহেরপুর পৌরসভার চৈতালী পট্রির মোড়, তিলিপাড়ার মোড়, কলেজ মোড় ও রামরামার হাচারীর মোড় থেকে তাদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের বিভিন্ন ধরনের রশিদও উদ্ধার করা হয়। তবে এরির্পোট লেখা পর্যন্ত তাদেরকে বাগমারা থানায় সোপর্দ করা হয়নি। এ বিষয়ে র‌্যাব-৫ রাজশাহীর মোলাøপাড়া ক্যাম্পের সিওর সাথে যোগযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

তাহেরপুর পৌরসভায় যানবাহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ১৫

আপডেট সময় : ১০:৫৪:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মে ২০২৪

রাজশাহীর বাগমারার তাহেরপুর পৌরসভাসহ বিভিন্ন সড়কে যানবাহন থেকে অবৈধ ভাবে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে ১৫ জন চাঁদাবাজকে হাতে নাথে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাহেরপুর পৌরসভার ভাবনপুরের মুন্টুসহ অনেক চাঁদাবাজ ঘটনারস্থল থেকে পালিয়েগেছে। সোমবার আনুমানিক বেলা সাড়ে ১২ টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করে চাঁদাবাজদেরকে আটক করে র‌্যাব-৫ রাজশাহীর টহল দল। আটককৃরা হলেন, তাহেরপুর পৌরসভার মৃত মাখনের ছেলে নাইম,মৃত মেরাজের ছেলে তোফাজ্জল,বাবু,আলমগীর, মিঠু, আসাদ হাসান, সজিব ইসলাম (২১), আমিরুল হক,হিরু চন্দ্র,দুর্গাপুর উপজেলার গোপালপাড়ার বাগাতপাড়া গ্রামের মৃত ইউসুব আলীর ছেলে দুলাল এবং তার ছেলেসহ বাকি চাঁদাবাজদের নাম পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসি জানায়, আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধির নেতৃত্বে চাঁদাবাজদের একটি গ্রুপ কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে ভবানীগঞ্জ ও তাহেরপুর পৌরসভাসহ বিভিন্ন হাট-বাজারে রাস্তার মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে বেড়িকেট দিয়ে রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী ট্রাক, ট্রাক্টর, সিএনজি ও অটোরিক্সা, ভ্যানগাড়িসহ বিভিন্ন যানবাহন থেকে অবৈধ ভাবে জোরপূর্বক চাঁদা আদায় করে আসছিল। চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র চাঁদাবাজদের সাথে চালকদের একাধিকবার সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। কিন্তু প্রভাবশালীদের মদদ থাকায় ওই সব সংষর্ষের ঘটনায় থানা পুলিশ কোন মামলাও নেয়নি। ভূক্তভোগীদের অভিযোগ চাঁদাবাজরা প্রভাবশালী ওই জনপ্রতিনিধির ছত্রছায়ায় বেপরোয়াভাবে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি করলেও স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয় না।ফলে বিভিন্ন এলাকায় চাঁদাবাজরা আরো বেপোয়ারা হয়ে উঠে। কয়েকদিন আগে চাঁদাবাজির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এরপর বিষয়টি র‌্যাবের নজরে আসলে রবিবার দুপুরে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর একটি টহল দল অভিযান চালিয়ে তাহেরপুর পৌরসভার চৈতালী পট্রির মোড়, তিলিপাড়ার মোড়, কলেজ মোড় ও রামরামার হাচারীর মোড় থেকে তাদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের বিভিন্ন ধরনের রশিদও উদ্ধার করা হয়। তবে এরির্পোট লেখা পর্যন্ত তাদেরকে বাগমারা থানায় সোপর্দ করা হয়নি। এ বিষয়ে র‌্যাব-৫ রাজশাহীর মোলাøপাড়া ক্যাম্পের সিওর সাথে যোগযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।