ঢাকা ০৭:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডিসেম্বরের মধ্যে রাজাকারদের তালিকা: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৪:৫১:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৩ ৫৯ বার পড়া হয়েছে

চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা সম্ভব হবে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ইতোমধ্যে রাজাকারদের তালিকা তৈরি করতে নীতিমালা প্রণয়নের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) সিলেটের হজরত শাহজালাল রহ. দরগা মসজিদে নামাজ আদায় শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, রাজাকারদের তালিকা তৈরির জন্য আগে কোনো আইন ছিল না। এ বিষয়ে সংসদে নতুন করে আইন পাস করা হয়েছে। এখন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতিকে আহ্বায়ক করে তালিকা প্রণয়নের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে কমিটি কাজ করছে। আশা করা যায়, ডিসেম্বরের মধ্যে তালিকা প্রকাশ করা সম্ভব হবে।

এর আগে সকালে তিনি একদিনের সফরে সিলেট পৌঁছান। বিকেলে হজরত শাহপরান রহ.-এর মাজার জিয়ারত শেষে সিলেট সার্কিট হাউসে রাত যাপনের কথা রয়েছে। বুধবার তিনি সিলেট থেকে নেত্রকোনোয় যাবেন বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে রাজাকার, আলবদর, আলশামস ও স্বাধীনতাবিরোধী ১০ হাজার ৭৮৯ জনের নামের একটি তালিকা প্রকাশ করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। তালিকা প্রকাশের পর দেশজুড়ে শুরু হয় বিতর্ক। কারণ, রাজাকারের তালিকায় গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধার নামও উঠে আসে। শহীদ, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার নামও তালিকায় পাওয়া যায়। এ নিয়ে সংসদে তোপের মুখে পড়েন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। পরে সেই তালিকা স্থগিত করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ডিসেম্বরের মধ্যে রাজাকারদের তালিকা: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৪:৫১:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৩

চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা সম্ভব হবে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ইতোমধ্যে রাজাকারদের তালিকা তৈরি করতে নীতিমালা প্রণয়নের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) সিলেটের হজরত শাহজালাল রহ. দরগা মসজিদে নামাজ আদায় শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, রাজাকারদের তালিকা তৈরির জন্য আগে কোনো আইন ছিল না। এ বিষয়ে সংসদে নতুন করে আইন পাস করা হয়েছে। এখন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতিকে আহ্বায়ক করে তালিকা প্রণয়নের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে কমিটি কাজ করছে। আশা করা যায়, ডিসেম্বরের মধ্যে তালিকা প্রকাশ করা সম্ভব হবে।

এর আগে সকালে তিনি একদিনের সফরে সিলেট পৌঁছান। বিকেলে হজরত শাহপরান রহ.-এর মাজার জিয়ারত শেষে সিলেট সার্কিট হাউসে রাত যাপনের কথা রয়েছে। বুধবার তিনি সিলেট থেকে নেত্রকোনোয় যাবেন বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে রাজাকার, আলবদর, আলশামস ও স্বাধীনতাবিরোধী ১০ হাজার ৭৮৯ জনের নামের একটি তালিকা প্রকাশ করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। তালিকা প্রকাশের পর দেশজুড়ে শুরু হয় বিতর্ক। কারণ, রাজাকারের তালিকায় গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধার নামও উঠে আসে। শহীদ, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার নামও তালিকায় পাওয়া যায়। এ নিয়ে সংসদে তোপের মুখে পড়েন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। পরে সেই তালিকা স্থগিত করা হয়।