ঢাকা ০৪:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ডমিঙ্গোর বিদায়, কোচ নিয়ে নতুন পরিকল্পনা

ক্রীড়া ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৯:৩৭:৫৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০২২ ৮৬ বার পড়া হয়েছে

ডমিঙ্গোর ব্যাপারে বিসিবির এখন একটা সিদ্ধান্তই নেওয়া বাকি-কবে তাকে দায়িত্ব থেকে মুক্তি দেওয়া যায়। বিসিবির সঙ্গে ডমিঙ্গোর বর্তমান চুক্তি ২০২৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।

এর আগে চাকুরিচ্যুত করতে হলে তাকে তিন মাসের নোটিশ দিতে হবে, যেটা আজ-কালের মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে পেয়ে যাওয়ার কথা ডমিঙ্গোর। বিসিবি তাকে বাদ দেওয়ার চিন্তাটা অবশ্য এরই মধ্যে জেনে গেছেন তিনি।

আগামী মার্চে অনুষ্ঠেয় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টোয়েন্টির হোম সিরিজের আগে বা সিরিজের মধ্যেই নতুন কোচের নাম ঘোষণা করতে পারে বিসিবি।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানও দিয়েছেন সেই আভাস। ডমিঙ্গোর পারফরম্যান্সে সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও জাতীয় দল নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার কথা বলতে গিয়ে তার মন্তব্য, ‘আমরা একটা পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছি। স্বল্পমেয়াদি নয়, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছি। তিন-চার বছরের পরিকল্পনা। এটার জন্য যদি পরিবর্তন দরকার হয়, তাহলে পরিবর্তন আসবে।’

নাজমুল হাসান স্পষ্টভাবে কিছু না বললেও বিসিবির একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, ভারত সিরিজের পর কালই দক্ষিণ আফ্রিকা ফিরে যাওয়া ডমিঙ্গোকে আর না রাখার ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে বোর্ড।

জাতীয় দলের প্রধান কোচ হিসেবে তিনি না পারছেন যথেষ্ট কর্তৃত্ব দেখাতে, না পারছেন খেলোয়াড়দের অনুপ্রাণিত করতে-এমন পর্যবেক্ষণ থেকেই ডমিঙ্গোকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত।

তা ছাড়া সিরিজ বা টুর্নামেন্ট না হলে শুধু অনুশীলনের জন্য তার বাংলাদেশে থাকতে না চাওয়াও নাকি এর একটা কারণ। নতুন কোচের সঙ্গেও বিসিবির কথাবার্তা অনেকটা পাকা হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে সূত্র।

তবে নতুন কোচ কে হচ্ছেন, সেটি নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। বাংলাদেশ দল ইংল্যান্ড সিরিজটা নতুন কোচের অধীনে খেলবে কি না, নিশ্চিত নয় সেটিও।

নোটিশের তিন মাস বিসিবি ডমিঙ্গোকে অন্য কোনো কাজে লাগাবে নাকি পুরোপুরিই দায়মুক্তি দিয়ে দেবে, তা নিয়ে কিছুটা দ্বিধাদ্বন্দ্ব আছে। অবশ্য এ ক্ষেত্রে ডমিঙ্গোর মতামত এবং আর্থিক বিষয়ে সমঝোতায় আসারও ব্যাপার আছে। নোটিশ না দিয়ে চাকুরিচ্যুত করলে চুক্তি অনুযায়ী তিন মাসের বেতন দিতে হবে তাকে। আয়কর বাদ দিয়ে ডমিঙ্গোর বর্তমান বেতন মাসে প্রায় ১৮ হাজার ডলার।

ইংল্যান্ড সিরিজের আগে নতুন কোচ যোগ না দিলে বিসিবির পরিকল্পনা আছে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টেকনিক্যাল কনসালট্যান্টের দায়িত্ব পালন করা শ্রীধরন শ্রীরামকে দিয়ে সিরিজটি চালিয়ে নেওয়ার। সঙ্গে অন্য কোচরা তো থাকবেনই।

শ্রীরামের শর্ত অনুযায়ী আইপিএলের সময়টুকু বাদ দিয়ে তাকে টি-টোয়েন্টি দলের কোচের দায়িত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। সঙ্গে ইংল্যান্ড সিরিজে ওয়ানডে দলের কোচ থাকারও প্রস্তাব দেওয়া হতে পারে এই ভারতীয়কে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ডমিঙ্গোর বিদায়, কোচ নিয়ে নতুন পরিকল্পনা

আপডেট সময় : ০৯:৩৭:৫৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০২২

ডমিঙ্গোর ব্যাপারে বিসিবির এখন একটা সিদ্ধান্তই নেওয়া বাকি-কবে তাকে দায়িত্ব থেকে মুক্তি দেওয়া যায়। বিসিবির সঙ্গে ডমিঙ্গোর বর্তমান চুক্তি ২০২৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।

এর আগে চাকুরিচ্যুত করতে হলে তাকে তিন মাসের নোটিশ দিতে হবে, যেটা আজ-কালের মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে পেয়ে যাওয়ার কথা ডমিঙ্গোর। বিসিবি তাকে বাদ দেওয়ার চিন্তাটা অবশ্য এরই মধ্যে জেনে গেছেন তিনি।

আগামী মার্চে অনুষ্ঠেয় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টোয়েন্টির হোম সিরিজের আগে বা সিরিজের মধ্যেই নতুন কোচের নাম ঘোষণা করতে পারে বিসিবি।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানও দিয়েছেন সেই আভাস। ডমিঙ্গোর পারফরম্যান্সে সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও জাতীয় দল নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার কথা বলতে গিয়ে তার মন্তব্য, ‘আমরা একটা পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছি। স্বল্পমেয়াদি নয়, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছি। তিন-চার বছরের পরিকল্পনা। এটার জন্য যদি পরিবর্তন দরকার হয়, তাহলে পরিবর্তন আসবে।’

নাজমুল হাসান স্পষ্টভাবে কিছু না বললেও বিসিবির একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, ভারত সিরিজের পর কালই দক্ষিণ আফ্রিকা ফিরে যাওয়া ডমিঙ্গোকে আর না রাখার ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে বোর্ড।

জাতীয় দলের প্রধান কোচ হিসেবে তিনি না পারছেন যথেষ্ট কর্তৃত্ব দেখাতে, না পারছেন খেলোয়াড়দের অনুপ্রাণিত করতে-এমন পর্যবেক্ষণ থেকেই ডমিঙ্গোকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত।

তা ছাড়া সিরিজ বা টুর্নামেন্ট না হলে শুধু অনুশীলনের জন্য তার বাংলাদেশে থাকতে না চাওয়াও নাকি এর একটা কারণ। নতুন কোচের সঙ্গেও বিসিবির কথাবার্তা অনেকটা পাকা হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে সূত্র।

তবে নতুন কোচ কে হচ্ছেন, সেটি নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। বাংলাদেশ দল ইংল্যান্ড সিরিজটা নতুন কোচের অধীনে খেলবে কি না, নিশ্চিত নয় সেটিও।

নোটিশের তিন মাস বিসিবি ডমিঙ্গোকে অন্য কোনো কাজে লাগাবে নাকি পুরোপুরিই দায়মুক্তি দিয়ে দেবে, তা নিয়ে কিছুটা দ্বিধাদ্বন্দ্ব আছে। অবশ্য এ ক্ষেত্রে ডমিঙ্গোর মতামত এবং আর্থিক বিষয়ে সমঝোতায় আসারও ব্যাপার আছে। নোটিশ না দিয়ে চাকুরিচ্যুত করলে চুক্তি অনুযায়ী তিন মাসের বেতন দিতে হবে তাকে। আয়কর বাদ দিয়ে ডমিঙ্গোর বর্তমান বেতন মাসে প্রায় ১৮ হাজার ডলার।

ইংল্যান্ড সিরিজের আগে নতুন কোচ যোগ না দিলে বিসিবির পরিকল্পনা আছে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টেকনিক্যাল কনসালট্যান্টের দায়িত্ব পালন করা শ্রীধরন শ্রীরামকে দিয়ে সিরিজটি চালিয়ে নেওয়ার। সঙ্গে অন্য কোচরা তো থাকবেনই।

শ্রীরামের শর্ত অনুযায়ী আইপিএলের সময়টুকু বাদ দিয়ে তাকে টি-টোয়েন্টি দলের কোচের দায়িত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। সঙ্গে ইংল্যান্ড সিরিজে ওয়ানডে দলের কোচ থাকারও প্রস্তাব দেওয়া হতে পারে এই ভারতীয়কে।