ঢাকা ০৪:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

টেকনাফে ৬ মাসে ৫০ জনকে অপহরণ

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৩:০৬:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩ ৪৯ বার পড়া হয়েছে

টেকনাফে একের পর এক অপহরণের ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে। গেল ছয় মাসে টেকনাফের পাহাড়ি এলাকায় অন্তত ৫০ জন অপহরণের শিকার হয়েছেন। সর্বশেষ রোববার (১৯ মার্চ) সকালে এক কৃষককে অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্তরা মুক্তিপণের জন্য অপহরণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ওই কৃষকের নাম মোহাম্মদ ছৈয়দ। তিনি হ্নীলা ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া এলাকার বাসিন্দা।রোবাবর সকাল ১০টায় টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন, ‘সকালে জুম্মাপাড়ায় নিজের ক্ষেতে কাজ করতে যান কৃষক মোহাম্মদ ছৈয়দ। একপর্যায়ে মুখোশ পরা একদল অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্ত তাকে তুলে নিয়ে যায়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মুক্তিপণের দাবিতে কৃষক মোহাম্মদ ছৈয়দকে অপহরণ করা হয়েছে। এর আগেও জুম্মাপাড়ার আশপাশের এলাকায় মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণের ঘটনা ঘটেছিল।

টেকনাফ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. নাছির উদ্দিন বলেন, ‘সকালে হ্নীলা ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া থেকে এক কৃষককে অপহরণের খবর স্থানীয়দের কাছ থেকে জেনেছি। পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গেছে। তারা ফিরলে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে।

গত ছয় মাসে টেকনাফের পাহাড় থেকে ৫০ জনকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ১৭ জন রোহিঙ্গা হলেও ৩৩ জন স্থানীয় বাসিন্দা। যেখানে ২৯ জন মুক্তিপণের টাকা দিয়ে ফেরত আসার তথ্য জানিয়েছিল। সর্বশেষ গত ১৬ মার্চ ৭ জন অপহরণের পর সাড়ে ৬ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে ফেরত আসে। পুলিশ সর্বশেষ ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেপ্তারও করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

টেকনাফে ৬ মাসে ৫০ জনকে অপহরণ

আপডেট সময় : ০৩:০৬:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩

টেকনাফে একের পর এক অপহরণের ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে। গেল ছয় মাসে টেকনাফের পাহাড়ি এলাকায় অন্তত ৫০ জন অপহরণের শিকার হয়েছেন। সর্বশেষ রোববার (১৯ মার্চ) সকালে এক কৃষককে অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্তরা মুক্তিপণের জন্য অপহরণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ওই কৃষকের নাম মোহাম্মদ ছৈয়দ। তিনি হ্নীলা ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া এলাকার বাসিন্দা।রোবাবর সকাল ১০টায় টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন, ‘সকালে জুম্মাপাড়ায় নিজের ক্ষেতে কাজ করতে যান কৃষক মোহাম্মদ ছৈয়দ। একপর্যায়ে মুখোশ পরা একদল অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্ত তাকে তুলে নিয়ে যায়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মুক্তিপণের দাবিতে কৃষক মোহাম্মদ ছৈয়দকে অপহরণ করা হয়েছে। এর আগেও জুম্মাপাড়ার আশপাশের এলাকায় মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণের ঘটনা ঘটেছিল।

টেকনাফ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. নাছির উদ্দিন বলেন, ‘সকালে হ্নীলা ইউনিয়নের জুম্মাপাড়া থেকে এক কৃষককে অপহরণের খবর স্থানীয়দের কাছ থেকে জেনেছি। পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গেছে। তারা ফিরলে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে।

গত ছয় মাসে টেকনাফের পাহাড় থেকে ৫০ জনকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ১৭ জন রোহিঙ্গা হলেও ৩৩ জন স্থানীয় বাসিন্দা। যেখানে ২৯ জন মুক্তিপণের টাকা দিয়ে ফেরত আসার তথ্য জানিয়েছিল। সর্বশেষ গত ১৬ মার্চ ৭ জন অপহরণের পর সাড়ে ৬ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে ফেরত আসে। পুলিশ সর্বশেষ ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেপ্তারও করেছে।