ঢাকা ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জেএমবির দুই সদস্যেকে ৪২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৩:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ৭০ বার পড়া হয়েছে

জঙ্গি সংগঠন জামাতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) দুই সদস্যকে ৩ মামলায় ৪২ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে লালমনিরহাটের একটি আদালত।রোববার সকালে লালমনিরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. মিজানুর রহমান এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, রাকিবুল ইসলাম রাকিব ও নাহিদ হোসেন।

লালমনিরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতে সরকারি কৌঁসুলি মো. আকমল হোসেন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডের অপরাধে দুই আসামিকে ৪২ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। ২০০৯ সন্ত্রাস বিরোধী আইনের তিন মামলায় দুই আসামিকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড ও দুই হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। চারজনকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৯ আগস্ট ডিবি পুলিশের এসআই মিজানুর রহমান ও তার সহযোগীরা হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা রাকিবের বাবা কোরবান আলীর বাড়িতে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের গোপন বৈঠক চলাকালে রাকিবকে আটক করে। রাকিব ইসলামি ছাত্র শিবিরের একজন সক্রিয় সদস্য।

পরবর্তীতে নব প্রভাতের মুয়াজ্জিন মেহেদী হাসান মিশান, হাসানুল বান্না, জামাল উদ্দীন, নাহিদ হাসান ও মেহেদীকে আটক করে তাদের ১৬১ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ। রাষ্ট্রপক্ষ ফৌজদারী কার্যবিধি ৩৪২ ধারায় আসামিদের বিরুদ্ধে ১৭ জন সাক্ষীর বক্তব্য রেকর্ড করে।

কৌঁসুলি মো. আকমল হোসেন জানান, সাজাপ্রাপ্তদের তিনটি মামলার সাজা একই সঙ্গে শুরু হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

জেএমবির দুই সদস্যেকে ৪২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড

আপডেট সময় : ০৩:৪৩:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

জঙ্গি সংগঠন জামাতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) দুই সদস্যকে ৩ মামলায় ৪২ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে লালমনিরহাটের একটি আদালত।রোববার সকালে লালমনিরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. মিজানুর রহমান এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, রাকিবুল ইসলাম রাকিব ও নাহিদ হোসেন।

লালমনিরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতে সরকারি কৌঁসুলি মো. আকমল হোসেন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডের অপরাধে দুই আসামিকে ৪২ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। ২০০৯ সন্ত্রাস বিরোধী আইনের তিন মামলায় দুই আসামিকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড ও দুই হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। চারজনকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৯ আগস্ট ডিবি পুলিশের এসআই মিজানুর রহমান ও তার সহযোগীরা হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা রাকিবের বাবা কোরবান আলীর বাড়িতে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের গোপন বৈঠক চলাকালে রাকিবকে আটক করে। রাকিব ইসলামি ছাত্র শিবিরের একজন সক্রিয় সদস্য।

পরবর্তীতে নব প্রভাতের মুয়াজ্জিন মেহেদী হাসান মিশান, হাসানুল বান্না, জামাল উদ্দীন, নাহিদ হাসান ও মেহেদীকে আটক করে তাদের ১৬১ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ। রাষ্ট্রপক্ষ ফৌজদারী কার্যবিধি ৩৪২ ধারায় আসামিদের বিরুদ্ধে ১৭ জন সাক্ষীর বক্তব্য রেকর্ড করে।

কৌঁসুলি মো. আকমল হোসেন জানান, সাজাপ্রাপ্তদের তিনটি মামলার সাজা একই সঙ্গে শুরু হবে।