ঢাকা ০৪:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জামালগঞ্জে হাওর বাঁচাও আন্দোলনের ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচি পালন

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০১:৪৫:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩ ৬৭ বার পড়া হয়েছে

সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচী পালন করেছে জামালগঞ্জ উপজেলা হাওর বাঁচাও আন্দোলন কমিটি।

রবিবার ১২ মার্চ সকাল ১১ টায় জামালগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড কার্যালয় হতে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা প্রাঙ্গনে এসে ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেন উপজেলার কৃষক জনতাসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে বক্তব্যে বলেন, নানা অনিয়ম, সীমাহীন দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা, নীতিমালা উপেক্ষা করে প্রকল্প গ্রহন, অক্ষত-অল্প ক্ষতিগ্রস্ত প্রকল্পে বিপুল বরাদ্ধ দিয়ে সরকারের অর্থ নষ্ট এবং বর্ধিত সময়েও ফসল রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ করতে না পারার কারনেই আজকের এই ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচী পালিত হচ্ছে। অত্র বেনারে পর্যায়ক্রমে জেলার ১২টি উপজেলার প্রতিটি ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচিসহ আরও বেপক কর্মসূচি পালন করা হবে।
এসময় বক্তারা আরো বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বেপক গাফিলতি ও অব্যবস্থাপনাই দায়ি।নানা কারনে পিআইসিরা প্রকল্পের কাজ শুরুই করেছেন নির্ধারিত সময়ের অনেক পরে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজের বেপক গাফিলতির কারনে পিআইসিরা সুযোগ বুজে কাজ করেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নানা অজুহাতে পিআইসিদের বাধেঁর কাজের টাকা পেতেও নানা বিরম্বনার শিকার হতে হয়।কোন কোন সময় পিআইসিরা সুধে টাকা ধার করে বাধেঁর কাজ শেষ করতে হয়। আবার কোন কোন সময় পিআইসিরা মামলাও খেতে হয়।কিন্তু কোন কোন সময় পিআইসিদের নানা অজুহাতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা প্রকপ্লের টাকা কেটে দেয়। আবার আগাম পাহাড়ি ঢল ও অকাল বন্যার আগে বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ায় জেলার কৃষকের বোরো ফসল ঝুঁকিতে রয়েছে। দূর্বল বাঁধের কারনে ২০২২ সালের মতো ফের ফসল ডুবির ঘটনা ঘটলে কৃষকদের সাথে নিয়ে কঠোর কর্মসূচি ঘোষাণারও হুঁশিয়ারি দেন বিক্ষোভকারীরা।
অন্যান্যেদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, হাওর বাঁচাও কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়, জেলা কমিটির সভাপতি ইয়াকুব বখত বাহলুল, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক মিলন, সাবেক সদস্য সচিব রাজু আহমেদ, জামালগঞ্জ উপজেলা কমিটির সভাপতি শাহানা আল আজাদ, সাধারণ সম্পাদক অঞ্জন পুরকায়স্থ ও যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, হাওর বাঁচা আন্দোলন নেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

জামালগঞ্জে হাওর বাঁচাও আন্দোলনের ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচি পালন

আপডেট সময় : ০১:৪৫:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩

সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচী পালন করেছে জামালগঞ্জ উপজেলা হাওর বাঁচাও আন্দোলন কমিটি।

রবিবার ১২ মার্চ সকাল ১১ টায় জামালগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড কার্যালয় হতে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা প্রাঙ্গনে এসে ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেন উপজেলার কৃষক জনতাসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে বক্তব্যে বলেন, নানা অনিয়ম, সীমাহীন দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা, নীতিমালা উপেক্ষা করে প্রকল্প গ্রহন, অক্ষত-অল্প ক্ষতিগ্রস্ত প্রকল্পে বিপুল বরাদ্ধ দিয়ে সরকারের অর্থ নষ্ট এবং বর্ধিত সময়েও ফসল রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ করতে না পারার কারনেই আজকের এই ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচী পালিত হচ্ছে। অত্র বেনারে পর্যায়ক্রমে জেলার ১২টি উপজেলার প্রতিটি ইউএনও অফিস ঘেরাও কর্মসূচিসহ আরও বেপক কর্মসূচি পালন করা হবে।
এসময় বক্তারা আরো বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বেপক গাফিলতি ও অব্যবস্থাপনাই দায়ি।নানা কারনে পিআইসিরা প্রকল্পের কাজ শুরুই করেছেন নির্ধারিত সময়ের অনেক পরে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজের বেপক গাফিলতির কারনে পিআইসিরা সুযোগ বুজে কাজ করেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নানা অজুহাতে পিআইসিদের বাধেঁর কাজের টাকা পেতেও নানা বিরম্বনার শিকার হতে হয়।কোন কোন সময় পিআইসিরা সুধে টাকা ধার করে বাধেঁর কাজ শেষ করতে হয়। আবার কোন কোন সময় পিআইসিরা মামলাও খেতে হয়।কিন্তু কোন কোন সময় পিআইসিদের নানা অজুহাতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা প্রকপ্লের টাকা কেটে দেয়। আবার আগাম পাহাড়ি ঢল ও অকাল বন্যার আগে বাঁধের কাজ শেষ না হওয়ায় জেলার কৃষকের বোরো ফসল ঝুঁকিতে রয়েছে। দূর্বল বাঁধের কারনে ২০২২ সালের মতো ফের ফসল ডুবির ঘটনা ঘটলে কৃষকদের সাথে নিয়ে কঠোর কর্মসূচি ঘোষাণারও হুঁশিয়ারি দেন বিক্ষোভকারীরা।
অন্যান্যেদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, হাওর বাঁচাও কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়, জেলা কমিটির সভাপতি ইয়াকুব বখত বাহলুল, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক মিলন, সাবেক সদস্য সচিব রাজু আহমেদ, জামালগঞ্জ উপজেলা কমিটির সভাপতি শাহানা আল আজাদ, সাধারণ সম্পাদক অঞ্জন পুরকায়স্থ ও যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, হাওর বাঁচা আন্দোলন নেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ।