ঢাকা ০৩:৩৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় দেড় কোটি টাকার সোনার বারসহ গ্রেপ্তার ৩

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৩৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩ ৭০ বার পড়া হয়েছে

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে ১ কোটি ৪৩ লাখ টাকা মূল্যের ১৫৯ ভরি ওজনের ৪টি সোনার ফ্লাট বারসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।
শুক্রবার রাত ৮টার দিকে জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের শাহাপুর গ্রামে সোনা উদ্ধারের এ ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ সোনা চোরাচালান চক্রের ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে। এদের মধ্যে দুই সোনা চোরাচালানী আহত হয়েছেন। আহত ওই দুই চোরাচালানীকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জীবননগর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জাকিয়া সুলতানা শুক্রবার রাতেই জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের লবিতে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃতরা হলেন- জীবননগর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ঘুগরাগাছি গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের খানের ছেলে আনসার বাহিনীর সদস্য মাজহারুল ইসলাম খান পল্টু (৩২), বাড়ান্দী গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজ খানের ছেলে শাহাবুদ্দিন খান (৩৬) এবং ঘুগরাগাছি গ্রামের হাশেম খানের ছেলে আছির উদ্দিন (৪২)।

চুয়াডাঙ্গা ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জীবননগর উপজেলার রায়পুর-শাহাপুর সড়ক দিয়ে সোনার একটি চালান পাচার করা হবে এমন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর আব্দুল আলিমের নেতৃত্বে একটি দল অভিযানে নামে। রাত ৮টার দিকে টিমটি শাহাপুর গ্রামে অভিযান চালায়। এসময় সন্দেহভাজন দুই জনকে দাঁড় করিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে তাদের হাতে থাকা হাসুয়া নিয়ে ডিবি পুলিশের ওপর হামলা করার চেষ্টা করে। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তিকালে নিজেদের হাতে থাকা হাসুয়ার আঘাতে দুই সোনা চোরাচালানী আহত হয়। এসময় ডিবি পুলিশ একটি প্যাকেটসহ তাদের রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নেয়।

রাতেই হাসপাতালের লবিতে সাংবাদিকদের সামনে উদ্ধারকৃত প্যাকেটটি খোলা হয়। প্যাকেট হতে ৪টি সোনার বার পাওয়া যায়। যার ওজন ১৫৯ ভরি এবং বর্তমান বাজার মূল্য ১ কোটি ৪৩ লক্ষ ১০ হাজার টাকা।

জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাসির উদ্দিন মৃধাসহ পুলিশ ও ডিবির কর্মকর্তাগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

চুয়াডাঙ্গায় দেড় কোটি টাকার সোনার বারসহ গ্রেপ্তার ৩

আপডেট সময় : ১০:৩৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে ১ কোটি ৪৩ লাখ টাকা মূল্যের ১৫৯ ভরি ওজনের ৪টি সোনার ফ্লাট বারসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।
শুক্রবার রাত ৮টার দিকে জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের শাহাপুর গ্রামে সোনা উদ্ধারের এ ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ সোনা চোরাচালান চক্রের ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে। এদের মধ্যে দুই সোনা চোরাচালানী আহত হয়েছেন। আহত ওই দুই চোরাচালানীকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জীবননগর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জাকিয়া সুলতানা শুক্রবার রাতেই জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের লবিতে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃতরা হলেন- জীবননগর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ঘুগরাগাছি গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের খানের ছেলে আনসার বাহিনীর সদস্য মাজহারুল ইসলাম খান পল্টু (৩২), বাড়ান্দী গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজ খানের ছেলে শাহাবুদ্দিন খান (৩৬) এবং ঘুগরাগাছি গ্রামের হাশেম খানের ছেলে আছির উদ্দিন (৪২)।

চুয়াডাঙ্গা ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জীবননগর উপজেলার রায়পুর-শাহাপুর সড়ক দিয়ে সোনার একটি চালান পাচার করা হবে এমন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর আব্দুল আলিমের নেতৃত্বে একটি দল অভিযানে নামে। রাত ৮টার দিকে টিমটি শাহাপুর গ্রামে অভিযান চালায়। এসময় সন্দেহভাজন দুই জনকে দাঁড় করিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে তাদের হাতে থাকা হাসুয়া নিয়ে ডিবি পুলিশের ওপর হামলা করার চেষ্টা করে। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তিকালে নিজেদের হাতে থাকা হাসুয়ার আঘাতে দুই সোনা চোরাচালানী আহত হয়। এসময় ডিবি পুলিশ একটি প্যাকেটসহ তাদের রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নেয়।

রাতেই হাসপাতালের লবিতে সাংবাদিকদের সামনে উদ্ধারকৃত প্যাকেটটি খোলা হয়। প্যাকেট হতে ৪টি সোনার বার পাওয়া যায়। যার ওজন ১৫৯ ভরি এবং বর্তমান বাজার মূল্য ১ কোটি ৪৩ লক্ষ ১০ হাজার টাকা।

জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাসির উদ্দিন মৃধাসহ পুলিশ ও ডিবির কর্মকর্তাগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।