ঢাকা ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাল রফতানিতে ২০ শতাংশ শুল্কের মেয়াদ বাড়াল ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৩:৪০:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৩৬ বার পড়া হয়েছে

দেশের বাজারে সরবরাহ ও দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে সেদ্ধ চাল রফতানির ওপর যে ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ভারত, সেই মেয়াদ আরেক দফা বাড়িয়েছে দেশটি। চাল রফতানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক অনির্দিষ্টকাল জারি থাকবে বলে গতকাল ভারতের অর্থ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। খবর ইকোনমিক টাইমস ও এনডিটিভির।

পর্যাপ্ত স্থানীয় মজুত বজায় রাখা এবং দেশে দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে গত বছরের আগস্ট মাসে চাল রফতানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ২০২৩ সালের ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত এই শুল্কারোপের এই আদেশ জারি থাকবে বলে তখন বলা হয়েছিল। পরে সেই মেয়াদ বাড়িয়ে ২০২৪ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত করা হয়েছিল। কিন্তু গতকাল বুধবার জানানো হয়, পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত এই শুল্ক জারি থাকবে।

ভারতের খুচরা মূলস্ফীতি কমে ৫ দশমিক ১০ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, যা ডিসেম্বরে ছিল চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

ভারতের কৃষি মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, ২০২২-২০২৩ শস্য বছরে চালের উৎপাদন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৫ দশমিক ৫৪ মিলিয়ন টনে, যা তার আগের বছরের ১২৯ দশমিক ৪৭ মিলিয়ন টনের চেয়ে বেশি।

উল্লেখ্য, বিশ্বের মোট চাল রফতানির ৪০ শতাংশেরও বেশি আসে ভারত থেকে। এই দেশটি থেকে চাল রফতানি কমে যাওয়ার অর্থ হলো বিশ্ববাজারে খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

চাল রফতানিতে ২০ শতাংশ শুল্কের মেয়াদ বাড়াল ভারত

আপডেট সময় : ০৩:৪০:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

দেশের বাজারে সরবরাহ ও দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে সেদ্ধ চাল রফতানির ওপর যে ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ভারত, সেই মেয়াদ আরেক দফা বাড়িয়েছে দেশটি। চাল রফতানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক অনির্দিষ্টকাল জারি থাকবে বলে গতকাল ভারতের অর্থ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। খবর ইকোনমিক টাইমস ও এনডিটিভির।

পর্যাপ্ত স্থানীয় মজুত বজায় রাখা এবং দেশে দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে গত বছরের আগস্ট মাসে চাল রফতানিতে ২০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ২০২৩ সালের ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত এই শুল্কারোপের এই আদেশ জারি থাকবে বলে তখন বলা হয়েছিল। পরে সেই মেয়াদ বাড়িয়ে ২০২৪ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত করা হয়েছিল। কিন্তু গতকাল বুধবার জানানো হয়, পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত এই শুল্ক জারি থাকবে।

ভারতের খুচরা মূলস্ফীতি কমে ৫ দশমিক ১০ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, যা ডিসেম্বরে ছিল চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

ভারতের কৃষি মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, ২০২২-২০২৩ শস্য বছরে চালের উৎপাদন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৫ দশমিক ৫৪ মিলিয়ন টনে, যা তার আগের বছরের ১২৯ দশমিক ৪৭ মিলিয়ন টনের চেয়ে বেশি।

উল্লেখ্য, বিশ্বের মোট চাল রফতানির ৪০ শতাংশেরও বেশি আসে ভারত থেকে। এই দেশটি থেকে চাল রফতানি কমে যাওয়ার অর্থ হলো বিশ্ববাজারে খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়া।