ঢাকা ০৯:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমি জবরদখল ও গাছ কাটার প্রতিবাদে মানববন্ধন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ১১:৩৭:১৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৬ বার পড়া হয়েছে

চাঁপাইনববাগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে কোল আদিবাসীবৃন্দ। আদিবাসীদের জমি জবরদখল ও গাছ কাটার প্রতিবাদে এ মানববন্ধন হয়।

২৯ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে বৈলঠা গ্রামের কোল আদিবাসীবৃন্দের আয়োজনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে গ্রাম বাসীর পক্ষে শ্রী নরেশ কোল জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁনের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

মানববন্ধন ও স্মারক লিপি থেকে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বৈলঠা গ্রামের কোল আদিবাসীদের জমি থেকে মৃত সলিমুদ্দিনের ছেলে মো. বুলবুল, সফিকুল ইসলাম, মো. মশি, মো. সাইফুল ইসলাম ও মৃত ইয়াসিন মাস্টারের ছেলে মো. শহিদ প্রভাষকের নেতৃত্বে অজ্ঞাতনামা ২০ থেকে ২৫ জন মিলে ৫ থেকে ৬ টি আম গাছ এবং ১০ থেকে ১২টি মেহগুনি গাছ কাটে। পরবর্তীতে আদিবাসীদের বাঁধার সম্মুখীনে কাটা গাছগুলো জমিতে রেখেই চলে আসে তারা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ন কোল, লক্ষন কোল মাস্টার, নিমল কোল মাস্টার, বীরেন কোল, শ্রীভ লাল কোল ও রাভ্রণ কোলসহ আরোও অনেকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমি জবরদখল ও গাছ কাটার প্রতিবাদে মানববন্ধন

আপডেট সময় : ১১:৩৭:১৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

চাঁপাইনববাগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে কোল আদিবাসীবৃন্দ। আদিবাসীদের জমি জবরদখল ও গাছ কাটার প্রতিবাদে এ মানববন্ধন হয়।

২৯ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে বৈলঠা গ্রামের কোল আদিবাসীবৃন্দের আয়োজনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে গ্রাম বাসীর পক্ষে শ্রী নরেশ কোল জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁনের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

মানববন্ধন ও স্মারক লিপি থেকে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বৈলঠা গ্রামের কোল আদিবাসীদের জমি থেকে মৃত সলিমুদ্দিনের ছেলে মো. বুলবুল, সফিকুল ইসলাম, মো. মশি, মো. সাইফুল ইসলাম ও মৃত ইয়াসিন মাস্টারের ছেলে মো. শহিদ প্রভাষকের নেতৃত্বে অজ্ঞাতনামা ২০ থেকে ২৫ জন মিলে ৫ থেকে ৬ টি আম গাছ এবং ১০ থেকে ১২টি মেহগুনি গাছ কাটে। পরবর্তীতে আদিবাসীদের বাঁধার সম্মুখীনে কাটা গাছগুলো জমিতে রেখেই চলে আসে তারা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ন কোল, লক্ষন কোল মাস্টার, নিমল কোল মাস্টার, বীরেন কোল, শ্রীভ লাল কোল ও রাভ্রণ কোলসহ আরোও অনেকে।