ঢাকা ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ক্ষমা চাইবেন না ইমরান খান

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৩১:২৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪ ১২ বার পড়া হয়েছে

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক-ই ইনসাফ (পিটিআই) দলের প্রধান ইমরান খান বলেছেন, গত বছরের ৯ মে যে সহিংসতা হয়েছে, তার জন্য আমি ক্ষমা চাইব না।

এর কারণ হিসেবে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী জানান, সে সময় তিনি কারাগারে ছিলেন এবং ওই সহিংস প্রতিবাদের বিষয়ে কিছুই তিনি জানতেন না। খবর দ্যা ডনের।

দেশটির আদিয়ালা কারাগারে বুধবার (৮ মে) ১৯ কোটি ডলার দুর্নীতি মামলার আইনি প্রক্রিয়া শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

এসময় গত বছরের ৯ মে-র সহিংস প্রতিবাদের জন্য ক্ষমা চাইবেন কি না, এমন প্রশ্নে তিনি জানান, সে সময় তিনি আটক ছিলেন এবং ওই প্রতিবাদের বিষয়ে কিছুই জানতেন না।

ইমরান উল্লেখ করেন, এই প্রতিবাদের বিষয়ে শুধুমাত্র তখনই জানতে পারেন যখন তাকে পাকিস্তানের তখনকার বিচারপতি উমর আতা বান্দিয়ালের সামনে আদালতে হাজির করা হয়।

তিনি বলেন, আমি ইতোমধ্যেই ওই সহিংস প্রতিবাদের নিন্দা করেছি। মঙ্গলবার পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ (আইএসপিআর) এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আহমেদ শরিফ রাওয়ালপিন্ডিতে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ৯ মে-র প্রতিবাদের বিষয়ে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতারা প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত তাদের সঙ্গে কোনো সংলাপ হবে না।

গত বছরের ৯ মে ইমরান খানকে গ্রেফতার করার পর পাকিস্তানের বেশ কিছু শহরে সহিংস প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে। এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা সামরিক বাহিনীর বেশ কয়েকটি স্থাপনায় হামলা চালায়। এর প্রতিক্রিয়ায় পিটিআই নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক দমনপীড়ন চালানো শুরু হয়।

ইমরান বলেছেন, কর্তৃপক্ষ যদি সংলাপে আগ্রহী না হয় তাহলে পিটিআইও এর জন্য অপেক্ষা করবে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ক্ষমা চাইবেন না ইমরান খান

আপডেট সময় : ১০:৩১:২৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক-ই ইনসাফ (পিটিআই) দলের প্রধান ইমরান খান বলেছেন, গত বছরের ৯ মে যে সহিংসতা হয়েছে, তার জন্য আমি ক্ষমা চাইব না।

এর কারণ হিসেবে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী জানান, সে সময় তিনি কারাগারে ছিলেন এবং ওই সহিংস প্রতিবাদের বিষয়ে কিছুই তিনি জানতেন না। খবর দ্যা ডনের।

দেশটির আদিয়ালা কারাগারে বুধবার (৮ মে) ১৯ কোটি ডলার দুর্নীতি মামলার আইনি প্রক্রিয়া শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

এসময় গত বছরের ৯ মে-র সহিংস প্রতিবাদের জন্য ক্ষমা চাইবেন কি না, এমন প্রশ্নে তিনি জানান, সে সময় তিনি আটক ছিলেন এবং ওই প্রতিবাদের বিষয়ে কিছুই জানতেন না।

ইমরান উল্লেখ করেন, এই প্রতিবাদের বিষয়ে শুধুমাত্র তখনই জানতে পারেন যখন তাকে পাকিস্তানের তখনকার বিচারপতি উমর আতা বান্দিয়ালের সামনে আদালতে হাজির করা হয়।

তিনি বলেন, আমি ইতোমধ্যেই ওই সহিংস প্রতিবাদের নিন্দা করেছি। মঙ্গলবার পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ (আইএসপিআর) এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আহমেদ শরিফ রাওয়ালপিন্ডিতে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ৯ মে-র প্রতিবাদের বিষয়ে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতারা প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত তাদের সঙ্গে কোনো সংলাপ হবে না।

গত বছরের ৯ মে ইমরান খানকে গ্রেফতার করার পর পাকিস্তানের বেশ কিছু শহরে সহিংস প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে। এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা সামরিক বাহিনীর বেশ কয়েকটি স্থাপনায় হামলা চালায়। এর প্রতিক্রিয়ায় পিটিআই নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক দমনপীড়ন চালানো শুরু হয়।

ইমরান বলেছেন, কর্তৃপক্ষ যদি সংলাপে আগ্রহী না হয় তাহলে পিটিআইও এর জন্য অপেক্ষা করবে না।