ঢাকা ১২:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

কীসের আশায় মোদিকে সমর্থন দিয়েছেন নীতীশ-নাইডু?

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৫৭:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪ ১৩ বার পড়া হয়েছে

টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিজেপি। তবে লোকসভা নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় এককভাবে সরকার গঠন করতে পারছে না দলটি। এক্ষেত্রে বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্সের (এনডিএ) অন্যতম প্রধান দুই দল জনতা দল ইউনাইটেড (জেডিইউ) নেতা নীতীশ কুমার এবং তেলেগু দেশম পার্টির (টিডিপি) চন্দ্রবাবু নাইডু মোদিকে লিখিত সমর্থন দিয়েছেন। তবে কীসের আশায় তারা মোদিকে সরকার গঠনে সমর্থন জানিয়েছেন তারা, সেই প্রশ্ন উঠেছে।

বুধবার (৫ জুন) বিকেলে নির্বাচনের ফলাফল পর্যালোচনা করতে নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে এনডিএ নেতৃবৃন্দ বৈঠক করেন। সেখানেই মূলত এ দুই দলের নেতাদের দাবিদাওয়া নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা যায়।

এই বিষয়ে নীতীশ ও চন্দ্রবাবুর পক্ষ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য আসেনি। তবে বৈঠকে যে উত্তপ্ত আলোচনা হয়েছে, সেই বিষয়টি ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভিকে একটি সূত্র জানিয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশে সবচেয়ে বেশি ১৬ আসন পাওয়া চন্দ্রবাবু নাইড়ুর দল তেলেগু দেশাম পার্টি (টিডিপি) বিজেপি সরকারের কাছে পাঁচটি মন্ত্রণালয় দাবি করেছে। এসব মন্ত্রণালয়ের মধ্যে টিডিপি অর্থ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর সিট দাবি করেছে বলে জানা গেছে। এর বাইরে দলটি সড়ক, পঞ্চায়েত রাজ, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় চেয়েছে বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে, বিহারে ১২ আসন পেয়েছে স্থানীয় দল জনতা দল ইউনাইটেড (জেডইউ)। দলটির প্রধান সমর্থনের বিনিময়ে বিজেপি সরকারের কাছ থেকে তিনটি মন্ত্রণালয় দাবি করেছে। এর মধ্যে দুটি পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রিত্ব এবং একটি প্রতিমন্ত্রিত্ব বলে জানিয়েছে জেডইউর একটি সূত্র। দুই পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রণালয়ের মধ্য নীতীশ কুমার রেল মন্ত্রণালয় চেয়েছেন বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, এনডিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, ১৮তম লোকসভা নির্বাচনে এনডিএ পেয়েছে ২৯৩ আসন এবং ইন্ডিয়া জোট পেয়েছে ২৩২ আসন। এছাড়া অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মিলে পেয়েছে ১৮টি আসন।

তবে দল হিসেবে এককভাবে সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছে বিজেপি। দলটির দখলে গেছে ২৪০ আসন। এরপর জোটসঙ্গী দলগুলোর মধ্যে তেলেগু দেশাম পার্টি পেয়েছে ১৬ এবং বিহারের নীতীশ কুমারের দল জনতা দল (ইউনাইটেড) পেয়েছে ১২ আসন।

কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট ইন্ডিয়া পেয়েছে ২৩২ আসন। এই ২৩২ আসনের মধ্যে কংগ্রেস এককভাবে পেয়েছে ৯৯ আসন। জোটের শরিক উত্তর প্রদেশের সমাজবাদী পার্টি পেয়েছে ৩৭ আসন, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ২৯, দ্রাবিড়া মুনেত্রা কাজাগাম পেয়েছে ২২ আসন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কীসের আশায় মোদিকে সমর্থন দিয়েছেন নীতীশ-নাইডু?

আপডেট সময় : ১০:৫৭:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিজেপি। তবে লোকসভা নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় এককভাবে সরকার গঠন করতে পারছে না দলটি। এক্ষেত্রে বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্সের (এনডিএ) অন্যতম প্রধান দুই দল জনতা দল ইউনাইটেড (জেডিইউ) নেতা নীতীশ কুমার এবং তেলেগু দেশম পার্টির (টিডিপি) চন্দ্রবাবু নাইডু মোদিকে লিখিত সমর্থন দিয়েছেন। তবে কীসের আশায় তারা মোদিকে সরকার গঠনে সমর্থন জানিয়েছেন তারা, সেই প্রশ্ন উঠেছে।

বুধবার (৫ জুন) বিকেলে নির্বাচনের ফলাফল পর্যালোচনা করতে নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে এনডিএ নেতৃবৃন্দ বৈঠক করেন। সেখানেই মূলত এ দুই দলের নেতাদের দাবিদাওয়া নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা যায়।

এই বিষয়ে নীতীশ ও চন্দ্রবাবুর পক্ষ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য আসেনি। তবে বৈঠকে যে উত্তপ্ত আলোচনা হয়েছে, সেই বিষয়টি ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভিকে একটি সূত্র জানিয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশে সবচেয়ে বেশি ১৬ আসন পাওয়া চন্দ্রবাবু নাইড়ুর দল তেলেগু দেশাম পার্টি (টিডিপি) বিজেপি সরকারের কাছে পাঁচটি মন্ত্রণালয় দাবি করেছে। এসব মন্ত্রণালয়ের মধ্যে টিডিপি অর্থ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর সিট দাবি করেছে বলে জানা গেছে। এর বাইরে দলটি সড়ক, পঞ্চায়েত রাজ, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় চেয়েছে বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে, বিহারে ১২ আসন পেয়েছে স্থানীয় দল জনতা দল ইউনাইটেড (জেডইউ)। দলটির প্রধান সমর্থনের বিনিময়ে বিজেপি সরকারের কাছ থেকে তিনটি মন্ত্রণালয় দাবি করেছে। এর মধ্যে দুটি পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রিত্ব এবং একটি প্রতিমন্ত্রিত্ব বলে জানিয়েছে জেডইউর একটি সূত্র। দুই পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রণালয়ের মধ্য নীতীশ কুমার রেল মন্ত্রণালয় চেয়েছেন বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, এনডিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, ১৮তম লোকসভা নির্বাচনে এনডিএ পেয়েছে ২৯৩ আসন এবং ইন্ডিয়া জোট পেয়েছে ২৩২ আসন। এছাড়া অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মিলে পেয়েছে ১৮টি আসন।

তবে দল হিসেবে এককভাবে সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছে বিজেপি। দলটির দখলে গেছে ২৪০ আসন। এরপর জোটসঙ্গী দলগুলোর মধ্যে তেলেগু দেশাম পার্টি পেয়েছে ১৬ এবং বিহারের নীতীশ কুমারের দল জনতা দল (ইউনাইটেড) পেয়েছে ১২ আসন।

কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট ইন্ডিয়া পেয়েছে ২৩২ আসন। এই ২৩২ আসনের মধ্যে কংগ্রেস এককভাবে পেয়েছে ৯৯ আসন। জোটের শরিক উত্তর প্রদেশের সমাজবাদী পার্টি পেয়েছে ৩৭ আসন, পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ২৯, দ্রাবিড়া মুনেত্রা কাজাগাম পেয়েছে ২২ আসন।