ঢাকা ০১:১২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এক পুরুষের ৪০ স্ত্রী!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৬:৫৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৩ ৬৬ বার পড়া হয়েছে

শিরোনাম দেখে নিশ্চয়ই চমকে গেছেন। একজনের সর্বোচ্চ ১,২,৩,৪ কিংবা ১০ জন স্ত্রীর কথা শুনেছেন। কিন্তু এক স্বামীর ৪০ স্ত্রী এটা কীভাবে সম্ভব। এমন কথা তো আর শুনেনি। শুনতে অবাক লাগলেও ঘটনা মিথ্যে নয়।

অবাক করা এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের বিহারে। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে শোরগোল পড়েছে। ঘটনাটি প্রথম জানা গেছে আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে। কর্মীরা যখন তথ্য সংগ্রহ যান, তখন একে একে কয়েকজন নারী নিজের স্বামীর নাম বলেন ‘রূপচাঁদ’।

শুরুতে আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহে যাওয়া কর্মীরা ততটা পাত্তা দেননি। কিন্তু একই নাম বারবার আসতে থাকায় তারা অবাক হয়ে যান। গুনে দেখা যায়, একে একে ৪০ জন নারী তাদের স্বামীর নাম একই বলেছেন।

পরে কর্মীরা ওই নারীদের সন্তানদের কাছে বাবার নাম জিজ্ঞাসা করেন। সবাই একই উত্তর দেন, তাদের বাবার নাম রূপচাঁদ। পরে আদমশুমারিতে এই নাম নথিভুক্ত করা হয়। যদিও রূপচাঁদ নামে আদতে কোনো ব্যক্তি আছেন কি না, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। কেননা, আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহে যাওয়া কর্মীরা এই তথ্য পেয়েছিলেন বিহারের এমন একটি এলাকা থেকে, যেখানে যৌনকর্মীরা বসবাস করেন।

ওই এলাকার ৭ নম্বর ওয়ার্ডে তথ্য সংগ্রহের সময় এই বিষয় নজরে আসে। সেখানে বসবাস করা নারীরা নিজেদের স্বামীর নামের জায়গায় রূপচাঁদ নামটি ব্যবহার করেন। তাদের সবার সন্তানদের বাবার নামের জায়গায় এ নাম ব্যবহার করা হয়।

বিহার রাজ্যে গত ৭ জানুয়ারি থেকে আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহ শুরু হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারের এই রাজ্যে আদমশুমারি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চলছে। প্রকল্পটি পরিচালনায় ব্যয় হচ্ছে ৫০০ কোটি রুপি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

এক পুরুষের ৪০ স্ত্রী!

আপডেট সময় : ০৮:৫৬:৫৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৩

শিরোনাম দেখে নিশ্চয়ই চমকে গেছেন। একজনের সর্বোচ্চ ১,২,৩,৪ কিংবা ১০ জন স্ত্রীর কথা শুনেছেন। কিন্তু এক স্বামীর ৪০ স্ত্রী এটা কীভাবে সম্ভব। এমন কথা তো আর শুনেনি। শুনতে অবাক লাগলেও ঘটনা মিথ্যে নয়।

অবাক করা এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের বিহারে। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে শোরগোল পড়েছে। ঘটনাটি প্রথম জানা গেছে আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে। কর্মীরা যখন তথ্য সংগ্রহ যান, তখন একে একে কয়েকজন নারী নিজের স্বামীর নাম বলেন ‘রূপচাঁদ’।

শুরুতে আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহে যাওয়া কর্মীরা ততটা পাত্তা দেননি। কিন্তু একই নাম বারবার আসতে থাকায় তারা অবাক হয়ে যান। গুনে দেখা যায়, একে একে ৪০ জন নারী তাদের স্বামীর নাম একই বলেছেন।

পরে কর্মীরা ওই নারীদের সন্তানদের কাছে বাবার নাম জিজ্ঞাসা করেন। সবাই একই উত্তর দেন, তাদের বাবার নাম রূপচাঁদ। পরে আদমশুমারিতে এই নাম নথিভুক্ত করা হয়। যদিও রূপচাঁদ নামে আদতে কোনো ব্যক্তি আছেন কি না, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। কেননা, আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহে যাওয়া কর্মীরা এই তথ্য পেয়েছিলেন বিহারের এমন একটি এলাকা থেকে, যেখানে যৌনকর্মীরা বসবাস করেন।

ওই এলাকার ৭ নম্বর ওয়ার্ডে তথ্য সংগ্রহের সময় এই বিষয় নজরে আসে। সেখানে বসবাস করা নারীরা নিজেদের স্বামীর নামের জায়গায় রূপচাঁদ নামটি ব্যবহার করেন। তাদের সবার সন্তানদের বাবার নামের জায়গায় এ নাম ব্যবহার করা হয়।

বিহার রাজ্যে গত ৭ জানুয়ারি থেকে আদমশুমারির তথ্য সংগ্রহ শুরু হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারের এই রাজ্যে আদমশুমারি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চলছে। প্রকল্পটি পরিচালনায় ব্যয় হচ্ছে ৫০০ কোটি রুপি।