ঢাকা ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের কোন বিকল্প নাই: রেনী

সোহরাব হোসেন সৌরভ, রাজশাহী ||
  • আপডেট সময় : ০৫:২৯:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩ ৬৭ বার পড়া হয়েছে

আগামী জুন মাসের ২১ তারিখ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। এই নির্বাচন উপলক্ষে নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের আয়োজনে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার বিকেলে ১৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আয়োজনে এবং ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার এর সার্বিক সহযোগিতায় নগরীর ডাবতলা মোড়ে নারী নেতৃদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজশাহী মহানগরের সিনিয়র সহ-সভাপতি, সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়। কারন আওয়ামী লীগ দেশকে স্বাধীন করেছিলো। স্বাধীনতার মহান নায়ক, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এই দেশ স্বাধীন হয়েছে। তাঁর ডাকে দেশের সকল শ্রেণি পেশার মানুষ যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলো। কিন্তু বাংলাদেশের কিছু নরপিচাচ এই মহান নায়ককে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতের অন্ধকারে সপরিবারে হত্যা করে। শুধু তাই নয় তাঁর জানাযা পর্যন্ত ঠিকভাবে করতে দেয়নি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনির আরো বলেন, চার নেতার অন্যতম নেতা এএইচএম কামারুজ্জামান হেনাকেও অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে জেল খানায় হত্যা করে তারা। এ যন্ত্রনা বুকে নিয়ে তাঁরই সুযোগ্য পুত্র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন অনেক কষ্ট করে লেখাপড়া শিখে নিজের সুখ শান্তির কথা ভূলে রাজশাহীবাসীর সেবা ও রাজশাহীর উন্নয়ন করার জন্য রাজনীতি শুরু করেন। তাঁরই হাত ধরে রাজশাহী মহানগরীর এত উন্নয়ন হয়েছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকার পক্ষের প্রার্থীদের ভোট দিয়ে বিজয়ী করার আহ্বান জানান তিনি। সেইসাথে সকল প্রকার অপশক্তিকে মোকাবিলা করার জন্য প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দেন প্রধান অতিথি।

আনার তার বক্তব্যে বলেন, তিনি গতবারের ন্যায় এবারও জনগণের মনোনীত প্রার্থী। এই ওয়ার্ডের জনগণই হলো তাঁর মূল শক্তি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন তাঁর অনুপ্রেরণা। তাঁর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় এবং জনগণের রায়ে তিনি কাউন্সিলর হয়েছিলেন। এবারও জনগণ তাঁকেই বেছে নেবেন বলে আশা প্রকাশ করেন আনার।

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বোয়ালিয়া থানার সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান রতনের সভাপতিত্বে সভা সঞ্চালনা করেন ১৪ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও অত্র ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রাজশাহী মাহনগরের আইন বিষয়ক সম্পাদক মোসাব্বিরুল আলম, সদস্য মোখলেসুর রহমান কচি, বোয়ালিয়া থানা আওয়ামীলীগের (পশ্চিস) সভাপতি আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান রতন ও ১৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবু। এছাড়াও অত্র ওয়ার্ডের সকল নেতাকর্মী ও হাজার হাজার নারী ভোটার উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের কোন বিকল্প নাই: রেনী

আপডেট সময় : ০৫:২৯:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩

আগামী জুন মাসের ২১ তারিখ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। এই নির্বাচন উপলক্ষে নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের আয়োজনে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার বিকেলে ১৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আয়োজনে এবং ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার এর সার্বিক সহযোগিতায় নগরীর ডাবতলা মোড়ে নারী নেতৃদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজশাহী মহানগরের সিনিয়র সহ-সভাপতি, সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়। কারন আওয়ামী লীগ দেশকে স্বাধীন করেছিলো। স্বাধীনতার মহান নায়ক, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এই দেশ স্বাধীন হয়েছে। তাঁর ডাকে দেশের সকল শ্রেণি পেশার মানুষ যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলো। কিন্তু বাংলাদেশের কিছু নরপিচাচ এই মহান নায়ককে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতের অন্ধকারে সপরিবারে হত্যা করে। শুধু তাই নয় তাঁর জানাযা পর্যন্ত ঠিকভাবে করতে দেয়নি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনির আরো বলেন, চার নেতার অন্যতম নেতা এএইচএম কামারুজ্জামান হেনাকেও অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে জেল খানায় হত্যা করে তারা। এ যন্ত্রনা বুকে নিয়ে তাঁরই সুযোগ্য পুত্র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন অনেক কষ্ট করে লেখাপড়া শিখে নিজের সুখ শান্তির কথা ভূলে রাজশাহীবাসীর সেবা ও রাজশাহীর উন্নয়ন করার জন্য রাজনীতি শুরু করেন। তাঁরই হাত ধরে রাজশাহী মহানগরীর এত উন্নয়ন হয়েছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকার পক্ষের প্রার্থীদের ভোট দিয়ে বিজয়ী করার আহ্বান জানান তিনি। সেইসাথে সকল প্রকার অপশক্তিকে মোকাবিলা করার জন্য প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দেন প্রধান অতিথি।

আনার তার বক্তব্যে বলেন, তিনি গতবারের ন্যায় এবারও জনগণের মনোনীত প্রার্থী। এই ওয়ার্ডের জনগণই হলো তাঁর মূল শক্তি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন তাঁর অনুপ্রেরণা। তাঁর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় এবং জনগণের রায়ে তিনি কাউন্সিলর হয়েছিলেন। এবারও জনগণ তাঁকেই বেছে নেবেন বলে আশা প্রকাশ করেন আনার।

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বোয়ালিয়া থানার সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান রতনের সভাপতিত্বে সভা সঞ্চালনা করেন ১৪ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও অত্র ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রাজশাহী মাহনগরের আইন বিষয়ক সম্পাদক মোসাব্বিরুল আলম, সদস্য মোখলেসুর রহমান কচি, বোয়ালিয়া থানা আওয়ামীলীগের (পশ্চিস) সভাপতি আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান রতন ও ১৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবু। এছাড়াও অত্র ওয়ার্ডের সকল নেতাকর্মী ও হাজার হাজার নারী ভোটার উপস্থিত ছিলেন।