ঢাকা ১২:৫২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইমরান খানের বক্তব্য টিভিতে সম্প্রচারে নিষেধাজ্ঞা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৬:১৭:১৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩ ৭৮ বার পড়া হয়েছে

পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বক্তৃতা ও মন্তব্য সম্প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির ইলেকট্রনিক মিডিয়া নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ (পিইএমআরএ)। গতকাল রোববার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম দ্য ডন।

এক বিবৃতিতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের চেয়ারম্যান ইমরান খান লাগাতার রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ করে যাচ্ছেন এবং তার উস্কানিমূলক বক্তব্যের মাধ্যমে সরকারি প্রতিষ্ঠান ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন। তার এ ধরনের বক্তব্য জনসাধারণে শান্তি-শৃঙ্খলা ভঙের কারণ হতে পারে।

এর আগে লাহোরে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে তার বাসভবন থেকে গ্রেপ্তার করতে গিয়ে খালি হাতে ফিরেছে পুলিশ। এর কিছুক্ষণ পর নিজ বাসভবন থেকে নেতাকর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেয় ইমরান খান।

তিনি বলেন, কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সামনে কখনো মাথা নত করিনি। আপনারাও এটি করবেন না।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর রোববারের ওই ভাষণ দেশটির টিভি চ্যানেলগুলোতেও সম্প্রচারের কয়েক ঘণ্টা পর এই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। যা নির্দেশনা জারির পর থেকে তা তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর হয়েছে।

গত সপ্তাহে আলোচিত তোষাখানা মামলায় ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে দেশটির আদালত। ওই মামলার অভিযোগে বলা হয়, ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় বিদেশের নেতাদের কাছ থেকে যেসব উপহার পেয়েছিলেন সেগুলোর কথা তিনি সঠিকভাবে জানাননি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ইমরান খানের বক্তব্য টিভিতে সম্প্রচারে নিষেধাজ্ঞা

আপডেট সময় : ০৬:১৭:১৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩

পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বক্তৃতা ও মন্তব্য সম্প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির ইলেকট্রনিক মিডিয়া নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ (পিইএমআরএ)। গতকাল রোববার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম দ্য ডন।

এক বিবৃতিতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের চেয়ারম্যান ইমরান খান লাগাতার রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ করে যাচ্ছেন এবং তার উস্কানিমূলক বক্তব্যের মাধ্যমে সরকারি প্রতিষ্ঠান ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন। তার এ ধরনের বক্তব্য জনসাধারণে শান্তি-শৃঙ্খলা ভঙের কারণ হতে পারে।

এর আগে লাহোরে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে তার বাসভবন থেকে গ্রেপ্তার করতে গিয়ে খালি হাতে ফিরেছে পুলিশ। এর কিছুক্ষণ পর নিজ বাসভবন থেকে নেতাকর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেয় ইমরান খান।

তিনি বলেন, কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সামনে কখনো মাথা নত করিনি। আপনারাও এটি করবেন না।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর রোববারের ওই ভাষণ দেশটির টিভি চ্যানেলগুলোতেও সম্প্রচারের কয়েক ঘণ্টা পর এই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। যা নির্দেশনা জারির পর থেকে তা তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর হয়েছে।

গত সপ্তাহে আলোচিত তোষাখানা মামলায় ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে দেশটির আদালত। ওই মামলার অভিযোগে বলা হয়, ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় বিদেশের নেতাদের কাছ থেকে যেসব উপহার পেয়েছিলেন সেগুলোর কথা তিনি সঠিকভাবে জানাননি।