ঢাকা ০১:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইনিংস হারের শঙ্কা উড়িয়ে আইরিশদের লিড

ক্রীড়া ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১১:০৭:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৩ ৫৭ বার পড়া হয়েছে

গতকাল দ্রুতই ৪ উইকেট হারিয়ে ইনিংস ব্যবধানে হারের শঙ্কায় পড়েছিল আয়ারল্যান্ড। তবে আজ প্রথম সেশনে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পর লাঞ্চ বিরতি থেকে ফিরেও বাংলাদেশি বোলারদের বেশ ভোগাচ্ছে আইরিশ ব্যাটাররা। মূলত টাকারের ব্যাটেই দ্বিতীয় ইনিংসে এখন লিড নিয়েছে সফরকারীরা।

দ্বিতীয় ইনিংসে এখনও পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে আয়ারল্যান্ডের সংগ্রহ ১৭৭ রান। টাকার উইকেটে আছেন ৭৬ রান নিয়ে, অপর অপরাজিত ব্যাটার ম্যাকব্রাইনের সংগ্রহ ১৮ রান। ৪ উইকেট হাতে নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ২২ রানে এগিয়ে আছে আইরিশরা।

এর আগে তৃতীয় দিনের শুরুটা দারুণ করেছিল আয়ারল্যান্ড। আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটার ট্যাক্টর এবং মুর দেখে-শুনে ভালোই খেলছিলেন। ঠাণ্ডা মাথায় খেলে শুরুর প্রায় এক ঘন্টা উইকেটে কাটিয়ে দিয়েছিলেন তারা। এই দুইজনের ব্যাটে কিছুটা হলেও প্রতিরোধ গড়েছিল সফরকারীরা।

তবে ১৬ রানে থামতে হয়েছে মুরকে। আক্রমণে এসে নিজের দ্বিতীয় ওভারেই এই ব্যাটারকে ফিরিয়েছেন শরিফুল ইসলাম। এই পেসারের করা ৩৩তম ওভারের প্রথম বলটি খানিকটা খাটো লেন্থে ছিল। সেখানে পুল করতে গিয়ে উইকেট কিপারের হাতে ধরা পড়েছেন মুর। এরফলে ৫১ রানের মধ্যেই টপ অর্ডারের চার ব্যাটাতর সাজঘরে ফেরেন।

বাংলাদেশের পাওয়া প্রথম ইনিংসের লিডটা তখন পাহাড়সমই ছিল আয়ারল্যান্ডের জন্য। তবে পঞ্চম উইকেটে সেই পাহাড় টপকানোরইব স্বপ্ন দেখতে শুরু করে তারা। ট্যাক্টর আর টাকার দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলেন। এই জুটির কল্যাণেই আইরিশদের আকাশের কালো মেঘ কিছুটা হলেও উড়ে গেছে।

ট্যাক্টর ৫৬ রানে আউট হলে ভাঙ্গে ৭২ রানের জুটি। ৫৭ তম ওভারের প্রথম বলটি অফ-মিডল স্টাম্পের ওপর গুড লেন্থে করেছিলেন তাইজুল, সেখানে প্যাডল সুইপ করতে গিয়ে ব্যাটে-বলে সংযোগ করতে পারেনিনি এই ব্যাটার। ফলে লেগ বিফোরের আবেদন করলে আম্পায়ার আঙ্গুল তুলতে একটুও দেরি করেননি। পরে অবশ্য ব্যাটার রিভিউ নিয়েছিলেন কিন্তু তাতেও ফলাফলে পরিবর্তন আসেনি।

ট্যাক্টর হাফ সেঞ্চুরি করে ফিরলেও আরেক প্রান্তে অবিচল আছেন টাকার। এই মিডল অর্ডার ব্যাটারও ব্যাক্তিগত হাঁফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন। ষষ্ঠ উইকেটে অ্যান্ডু ম্যাকব্রাইনকে সঙ্গে নিয়ে আবারও বড় জুটির গড়ার চেষ্টা করছেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ইনিংস হারের শঙ্কা উড়িয়ে আইরিশদের লিড

আপডেট সময় : ১১:০৭:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৩

গতকাল দ্রুতই ৪ উইকেট হারিয়ে ইনিংস ব্যবধানে হারের শঙ্কায় পড়েছিল আয়ারল্যান্ড। তবে আজ প্রথম সেশনে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পর লাঞ্চ বিরতি থেকে ফিরেও বাংলাদেশি বোলারদের বেশ ভোগাচ্ছে আইরিশ ব্যাটাররা। মূলত টাকারের ব্যাটেই দ্বিতীয় ইনিংসে এখন লিড নিয়েছে সফরকারীরা।

দ্বিতীয় ইনিংসে এখনও পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে আয়ারল্যান্ডের সংগ্রহ ১৭৭ রান। টাকার উইকেটে আছেন ৭৬ রান নিয়ে, অপর অপরাজিত ব্যাটার ম্যাকব্রাইনের সংগ্রহ ১৮ রান। ৪ উইকেট হাতে নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ২২ রানে এগিয়ে আছে আইরিশরা।

এর আগে তৃতীয় দিনের শুরুটা দারুণ করেছিল আয়ারল্যান্ড। আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটার ট্যাক্টর এবং মুর দেখে-শুনে ভালোই খেলছিলেন। ঠাণ্ডা মাথায় খেলে শুরুর প্রায় এক ঘন্টা উইকেটে কাটিয়ে দিয়েছিলেন তারা। এই দুইজনের ব্যাটে কিছুটা হলেও প্রতিরোধ গড়েছিল সফরকারীরা।

তবে ১৬ রানে থামতে হয়েছে মুরকে। আক্রমণে এসে নিজের দ্বিতীয় ওভারেই এই ব্যাটারকে ফিরিয়েছেন শরিফুল ইসলাম। এই পেসারের করা ৩৩তম ওভারের প্রথম বলটি খানিকটা খাটো লেন্থে ছিল। সেখানে পুল করতে গিয়ে উইকেট কিপারের হাতে ধরা পড়েছেন মুর। এরফলে ৫১ রানের মধ্যেই টপ অর্ডারের চার ব্যাটাতর সাজঘরে ফেরেন।

বাংলাদেশের পাওয়া প্রথম ইনিংসের লিডটা তখন পাহাড়সমই ছিল আয়ারল্যান্ডের জন্য। তবে পঞ্চম উইকেটে সেই পাহাড় টপকানোরইব স্বপ্ন দেখতে শুরু করে তারা। ট্যাক্টর আর টাকার দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলেন। এই জুটির কল্যাণেই আইরিশদের আকাশের কালো মেঘ কিছুটা হলেও উড়ে গেছে।

ট্যাক্টর ৫৬ রানে আউট হলে ভাঙ্গে ৭২ রানের জুটি। ৫৭ তম ওভারের প্রথম বলটি অফ-মিডল স্টাম্পের ওপর গুড লেন্থে করেছিলেন তাইজুল, সেখানে প্যাডল সুইপ করতে গিয়ে ব্যাটে-বলে সংযোগ করতে পারেনিনি এই ব্যাটার। ফলে লেগ বিফোরের আবেদন করলে আম্পায়ার আঙ্গুল তুলতে একটুও দেরি করেননি। পরে অবশ্য ব্যাটার রিভিউ নিয়েছিলেন কিন্তু তাতেও ফলাফলে পরিবর্তন আসেনি।

ট্যাক্টর হাফ সেঞ্চুরি করে ফিরলেও আরেক প্রান্তে অবিচল আছেন টাকার। এই মিডল অর্ডার ব্যাটারও ব্যাক্তিগত হাঁফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন। ষষ্ঠ উইকেটে অ্যান্ডু ম্যাকব্রাইনকে সঙ্গে নিয়ে আবারও বড় জুটির গড়ার চেষ্টা করছেন তিনি।