ঢাকা ১২:৪৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহকারী দেশগুলোকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৯:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ ৭৭ বার পড়া হয়েছে

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে সের্গেই কারাগানভ। ছবি: সংগৃহীত

ইউক্রেনে যুদ্ধ ট্যাঙ্কসহ অস্ত্র সরবরাহকারী দেশগুলোর বিরুদ্ধে সামরিক প্রতিশোধ নেয়া হতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের এক সাবেক উপদেষ্টা। বুধবার যুক্তরাষ্ট্র এবং জার্মানি ইউক্রেনকে কয়েক ডজন ভারী ট্যাঙ্ক দেয়ার ঘোষণার পরে এই মন্তব্য এলো।শুক্রবার আলজাজিরাকে দেয়া সাক্ষাতকারে পুতিনের সাবেক উপদেষ্টা সের্গেই কারাগানভ বলেছেন, ন্যাটোর অস্ত্র সরবরাহের ফলে তাদের সরবরাহকারী দেশগুলির বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সামরিক প্রতিশোধ নেয়া হতে পারে।

তিনি বলেন, ট্যাঙ্ক পাঠানোর মাধ্যমে ন্যাটো দেশগুলো আরও প্রকাশ্যে যুদ্ধে জড়িত হচ্ছে এবং এটি তাদের সম্ভাব্য লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করছে।

ইউক্রেনে সংঘাত শুরুর জন্য ন্যাটোকেও দায়ী করে কারাগানভ বলেন, এটি ঠিক রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ নয়, এটি একটি রাশিয়ান-পশ্চিমা যুদ্ধ। কিন্তু পশ্চিমের বিশাল অস্ত্র সরবরাহ সত্ত্বেও, কারাগানভ একটি রাশিয়ান বিজয়ের ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, অবশেষে রাশিয়া ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীকে ধ্বংস করবে এবং দেশটিকে সম্পূর্ণরূপে সামরিক মুক্ত করা হবে। সেখানে নব্য-নাৎসি শাসনের অবসান হবে।

পুতিন, তার কূটনীতিক এবং রুশ সামরিক নেতারা বারবার পশ্চিমাদের সতর্ক করেছেন, রাশিয়ার গভীরে আঘাত হানতে সক্ষম দূরপাল্লার অস্ত্র সরবরাহ করা একটি লাল রেখা চিহ্নিত করবে এবং ব্যাপক প্রতিশোধের সূচনা করবে ।

এদিকে, ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বৃহস্পতিবার বলেছেন, ইউক্রেনে ট্যাঙ্ক সহ বিভিন্ন অস্ত্র পাঠানোকে দেশগুলোর এই সংঘাতে সরাসরি জড়িত হিসাবে দেখছে মস্কো। আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এটি বাড়ছে।

অন্যদিকে, রাশিয়ান পর্যবেক্ষকরা উল্লেখ করেছেন, পশ্চিমা ট্যাঙ্কগুলো ইউক্রেনে পৌঁছাতে এটি একটি উল্লেখযোগ্য সময় নিতে পারে। এছাড়াও ইউক্রেনীয়দের তাদের ব্যবহার এবং সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণের প্রশিক্ষণ দেয়া চ্যালেঞ্জকে বাড়িয়ে তুলবে।

মস্কো-ভিত্তিক প্রতিরক্ষা বিশ্লেষক ইলিয়া ক্রামনিক বলেছেন, ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী সম্ভবত কয়েকটি ছোট ব্যাচ ট্যাঙ্ক পাবে যা খুব বেশি প্রভাব ফেলবে না।

সূত্র: আলজাজিরা

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহকারী দেশগুলোকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি

আপডেট সময় : ০৫:৫৯:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

ইউক্রেনে যুদ্ধ ট্যাঙ্কসহ অস্ত্র সরবরাহকারী দেশগুলোর বিরুদ্ধে সামরিক প্রতিশোধ নেয়া হতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের এক সাবেক উপদেষ্টা। বুধবার যুক্তরাষ্ট্র এবং জার্মানি ইউক্রেনকে কয়েক ডজন ভারী ট্যাঙ্ক দেয়ার ঘোষণার পরে এই মন্তব্য এলো।শুক্রবার আলজাজিরাকে দেয়া সাক্ষাতকারে পুতিনের সাবেক উপদেষ্টা সের্গেই কারাগানভ বলেছেন, ন্যাটোর অস্ত্র সরবরাহের ফলে তাদের সরবরাহকারী দেশগুলির বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সামরিক প্রতিশোধ নেয়া হতে পারে।

তিনি বলেন, ট্যাঙ্ক পাঠানোর মাধ্যমে ন্যাটো দেশগুলো আরও প্রকাশ্যে যুদ্ধে জড়িত হচ্ছে এবং এটি তাদের সম্ভাব্য লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করছে।

ইউক্রেনে সংঘাত শুরুর জন্য ন্যাটোকেও দায়ী করে কারাগানভ বলেন, এটি ঠিক রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ নয়, এটি একটি রাশিয়ান-পশ্চিমা যুদ্ধ। কিন্তু পশ্চিমের বিশাল অস্ত্র সরবরাহ সত্ত্বেও, কারাগানভ একটি রাশিয়ান বিজয়ের ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, অবশেষে রাশিয়া ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীকে ধ্বংস করবে এবং দেশটিকে সম্পূর্ণরূপে সামরিক মুক্ত করা হবে। সেখানে নব্য-নাৎসি শাসনের অবসান হবে।

পুতিন, তার কূটনীতিক এবং রুশ সামরিক নেতারা বারবার পশ্চিমাদের সতর্ক করেছেন, রাশিয়ার গভীরে আঘাত হানতে সক্ষম দূরপাল্লার অস্ত্র সরবরাহ করা একটি লাল রেখা চিহ্নিত করবে এবং ব্যাপক প্রতিশোধের সূচনা করবে ।

এদিকে, ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বৃহস্পতিবার বলেছেন, ইউক্রেনে ট্যাঙ্ক সহ বিভিন্ন অস্ত্র পাঠানোকে দেশগুলোর এই সংঘাতে সরাসরি জড়িত হিসাবে দেখছে মস্কো। আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এটি বাড়ছে।

অন্যদিকে, রাশিয়ান পর্যবেক্ষকরা উল্লেখ করেছেন, পশ্চিমা ট্যাঙ্কগুলো ইউক্রেনে পৌঁছাতে এটি একটি উল্লেখযোগ্য সময় নিতে পারে। এছাড়াও ইউক্রেনীয়দের তাদের ব্যবহার এবং সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণের প্রশিক্ষণ দেয়া চ্যালেঞ্জকে বাড়িয়ে তুলবে।

মস্কো-ভিত্তিক প্রতিরক্ষা বিশ্লেষক ইলিয়া ক্রামনিক বলেছেন, ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী সম্ভবত কয়েকটি ছোট ব্যাচ ট্যাঙ্ক পাবে যা খুব বেশি প্রভাব ফেলবে না।

সূত্র: আলজাজিরা