ঢাকা ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আ.লীগের কোনো কৌশল আর টিকবে না: ফারুক

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১১:৫১:০০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩ ৭৬ বার পড়া হয়েছে

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক বলেছেন, আওয়ামী লীগের কোনো কৌশল আর টিকবে না। আমাদের মিছিলের মধ্যে লোক ঢুকিয়ে দিয়ে বাসের মধ্যে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করেছেন। আমাদের মিছিলের মধ্যে বোম ফাটিয়ে আমাদেরকে গ্রেপ্তার করেছেন। সেই কৌশল তারেক রহমান ধরে ফেলেছেন, সেই কৌশল এখন আর চলবে না। বাংলাদেশের মানুষ জেগেছে, বাংলাদেশের মানুষ এখন চায় তত্ত্বাবধায়ক সরকার। সেই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভীসহ কারাবন্দী নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে তাঁতী দল ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন আপনাদের এই সরকার গণতান্ত্রিক সরকার নয়। আপনাদের এই সরকার গরিবের সরকার নয়। আপনাদের এই সরকার ভোট চুরি সরকার। তাই আপনাদেরকে সারা বাংলাদেশের মানুষ বলতে শুরু করেছে চোর চোর ভোট চোর।

তিনি বলেন, যতই ষড়যন্ত্র করুন, যতই গালগল্প তৈরি করুন, যতই তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা দায়ের করেন, যতই জেল গেট থেকে গ্রেপ্তার করেন কোন কিছুতেই আপনাদেরকে আর ক্ষমতায় রাখতে পারবে না। কারণ মানুষ জেগেছে মানুষ বুঝতে পেরেছে এই সরকারের অধীনে গণতন্ত্র, সংবিধান, মানুষের জীবন নিরাপত্তা, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা কিছুই এই সরকারের অধীনে স্বাধীন নয়।

জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, বিএনপির ঘোষিত ১০ দফা মেনে নিন, খালেদা জিয়াকে ছেড়ে দিন। আলাপ-আলোচনা করে কোনো লাভ নেই। আগে পদত্যাগ তারপরে আলোচনা। আগে আপনাদেরকে পদত্যাগ করতে হবে। বাংলাদেশের যে সংবিধানের খালেদা জিয়া তত্ত্বাবধায়ক সরকার চালু করেছিল, সেই সংবিধান আপনারা বাতিল করে সেই আইন বাতিল করে নিজেদের অধীনে নির্বাচন করার যে ষড়যন্ত্র করছেন সেই ষড়যন্ত্র থেকে আপনাদেরকে বেরিয়ে আসতে হবে।

চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বলেন, বাংলাদেশের মানুষ আর গ্রেপ্তারকে ভয় পায় না। বাংলাদেশের মানুষ আর আপনাদের এই হুলিয়া, আপনাদের এই গুম, আপনাদের চাইনিজ রাইফেল দিয়ে হত্যা করা আর ভয় পায় না। মানুষ এখন জেগেছে একটি কারণে- আপনাদের অধীনে আর কোন নির্বাচন নয়।

জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এসময় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ফরিদা ইয়াসমিন, তাঁতী দলের সদস্য সচিব মজিবুর রহমান, মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, মৎস্যজীবী দলের যুগ্ম আহবায়ক ওমর ফারুক পাটোয়ারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

আ.লীগের কোনো কৌশল আর টিকবে না: ফারুক

আপডেট সময় : ১১:৫১:০০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক বলেছেন, আওয়ামী লীগের কোনো কৌশল আর টিকবে না। আমাদের মিছিলের মধ্যে লোক ঢুকিয়ে দিয়ে বাসের মধ্যে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করেছেন। আমাদের মিছিলের মধ্যে বোম ফাটিয়ে আমাদেরকে গ্রেপ্তার করেছেন। সেই কৌশল তারেক রহমান ধরে ফেলেছেন, সেই কৌশল এখন আর চলবে না। বাংলাদেশের মানুষ জেগেছে, বাংলাদেশের মানুষ এখন চায় তত্ত্বাবধায়ক সরকার। সেই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভীসহ কারাবন্দী নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে তাঁতী দল ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন আপনাদের এই সরকার গণতান্ত্রিক সরকার নয়। আপনাদের এই সরকার গরিবের সরকার নয়। আপনাদের এই সরকার ভোট চুরি সরকার। তাই আপনাদেরকে সারা বাংলাদেশের মানুষ বলতে শুরু করেছে চোর চোর ভোট চোর।

তিনি বলেন, যতই ষড়যন্ত্র করুন, যতই গালগল্প তৈরি করুন, যতই তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা দায়ের করেন, যতই জেল গেট থেকে গ্রেপ্তার করেন কোন কিছুতেই আপনাদেরকে আর ক্ষমতায় রাখতে পারবে না। কারণ মানুষ জেগেছে মানুষ বুঝতে পেরেছে এই সরকারের অধীনে গণতন্ত্র, সংবিধান, মানুষের জীবন নিরাপত্তা, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা কিছুই এই সরকারের অধীনে স্বাধীন নয়।

জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, বিএনপির ঘোষিত ১০ দফা মেনে নিন, খালেদা জিয়াকে ছেড়ে দিন। আলাপ-আলোচনা করে কোনো লাভ নেই। আগে পদত্যাগ তারপরে আলোচনা। আগে আপনাদেরকে পদত্যাগ করতে হবে। বাংলাদেশের যে সংবিধানের খালেদা জিয়া তত্ত্বাবধায়ক সরকার চালু করেছিল, সেই সংবিধান আপনারা বাতিল করে সেই আইন বাতিল করে নিজেদের অধীনে নির্বাচন করার যে ষড়যন্ত্র করছেন সেই ষড়যন্ত্র থেকে আপনাদেরকে বেরিয়ে আসতে হবে।

চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বলেন, বাংলাদেশের মানুষ আর গ্রেপ্তারকে ভয় পায় না। বাংলাদেশের মানুষ আর আপনাদের এই হুলিয়া, আপনাদের এই গুম, আপনাদের চাইনিজ রাইফেল দিয়ে হত্যা করা আর ভয় পায় না। মানুষ এখন জেগেছে একটি কারণে- আপনাদের অধীনে আর কোন নির্বাচন নয়।

জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এসময় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ফরিদা ইয়াসমিন, তাঁতী দলের সদস্য সচিব মজিবুর রহমান, মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, মৎস্যজীবী দলের যুগ্ম আহবায়ক ওমর ফারুক পাটোয়ারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।