ঢাকা ০৭:২২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ দেখা থেকে বঞ্চিত হলো রাজশাহীর দর্শকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক//
  • আপডেট সময় : ০৯:৩২:৪৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মে ২০২৩ ৬১ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বিভাগীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-পাকিস্তান অনূর্ধ্ব -১৯ আন্তঃদেশীয় একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ শুরু হয়েছে আজ বৃহস্পতিবার। এ ম্যাচটি দেখা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে রাজশাহীর দর্শকদের। দীর্ঘ ১৩ বছর পরে রাজশাহীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বিভাগীয় স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ম্যাচ হচ্ছে। কিন্তু এ ম্যাচ দেখা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে রাজশাহীর দর্শকদের। খেলা দেখতে দেওয়া হবে না, বিষয়টি অনেকেই আগে জানতোনা। খেলা দেখার জন্য সকাল সকাল স্টেডিয়ামের কাছে এসে জড়ো হতে থাকেন দর্শকরা। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাউকেউ মাঠে ঢুকতে দেয়নি। এতে করে খেলা দেখা থেকে বঞ্চিত হলেন রাজশাহীর হাজার হাজার ক্রিকেটপাগল মানুষ।

১৫ হাজার ধারণ ক্ষমতার এ স্টেডিয়ামটিতে আন্তজার্তিক কোনো ম্যাচ হলে ২০ হাজারের মতো দর্শক হয়। এমনিতেই রাজশাহীতে মূল দলের কোনো আন্তজার্তিক টূর্নামেন্ট হয় না। সেই অবস্থায় অনুর্দ্ধ১৯ দলের ম্যাচ দেখে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ দেখার অকাংখা মিটতো এখানকার দর্শকদের। দীর্ঘ ১৩ বছর পরে সুযোগ পেয়ে তা থেকে বঞ্চিত হলেন রাজশাহীর হাজার হাজার ক্রিকেটপাগল মানুষ।
এদিকে, সকালে প্রথমে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ফিল্ডিং করতে নামে। ১৫৫ রানে অলআউট করে পাকিস্তানকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ দেখা থেকে বঞ্চিত হলো রাজশাহীর দর্শকরা

আপডেট সময় : ০৯:৩২:৪৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মে ২০২৩

রাজশাহীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বিভাগীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-পাকিস্তান অনূর্ধ্ব -১৯ আন্তঃদেশীয় একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ শুরু হয়েছে আজ বৃহস্পতিবার। এ ম্যাচটি দেখা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে রাজশাহীর দর্শকদের। দীর্ঘ ১৩ বছর পরে রাজশাহীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বিভাগীয় স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ম্যাচ হচ্ছে। কিন্তু এ ম্যাচ দেখা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে রাজশাহীর দর্শকদের। খেলা দেখতে দেওয়া হবে না, বিষয়টি অনেকেই আগে জানতোনা। খেলা দেখার জন্য সকাল সকাল স্টেডিয়ামের কাছে এসে জড়ো হতে থাকেন দর্শকরা। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাউকেউ মাঠে ঢুকতে দেয়নি। এতে করে খেলা দেখা থেকে বঞ্চিত হলেন রাজশাহীর হাজার হাজার ক্রিকেটপাগল মানুষ।

১৫ হাজার ধারণ ক্ষমতার এ স্টেডিয়ামটিতে আন্তজার্তিক কোনো ম্যাচ হলে ২০ হাজারের মতো দর্শক হয়। এমনিতেই রাজশাহীতে মূল দলের কোনো আন্তজার্তিক টূর্নামেন্ট হয় না। সেই অবস্থায় অনুর্দ্ধ১৯ দলের ম্যাচ দেখে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ দেখার অকাংখা মিটতো এখানকার দর্শকদের। দীর্ঘ ১৩ বছর পরে সুযোগ পেয়ে তা থেকে বঞ্চিত হলেন রাজশাহীর হাজার হাজার ক্রিকেটপাগল মানুষ।
এদিকে, সকালে প্রথমে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ফিল্ডিং করতে নামে। ১৫৫ রানে অলআউট করে পাকিস্তানকে।