ঢাকা ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আওয়ামী লীগকে আরও শক্তিশালী ও সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৫:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ জুন ২০২৩ ৫৪ বার পড়া হয়েছে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসন্ন জাতীয় নির্বাচন চ্যালেঞ্জিং হবে উল্লেখ করে অব্যাহত উন্নয়নের স্বার্থে ক্ষমতার ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে দলের তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত শক্তিশালী ও সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি আজ গণভবনে ঢাকা উত্তর মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার একমাত্র শক্তি দল। সাংগঠনিক শক্তি ছাড়া বড় কোনো অর্জন সম্ভব নয়। তাই দলকে তৃণমূল পর্যায় থেকে সুসংগঠিত করতে হবে।’
এ প্রসঙ্গে তিনি দুঃসময়ে দলের পাশে থাকা নেতা-কর্মীরা যাতে অবহেলিত না হন সেদিকে বিশেষ নজর দেওয়ার জন্য দলের নেতাদের নির্দেশ দেন।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আওয়ামী লীগকে আবারো ক্ষমতায় আনতে তার দলের নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বাদে অন্য কেউ ক্ষমতা আসলে উন্নয়ন এবং দেশ ধ্বংস হয়ে যাবে।
দেশ বিরোধী, খুনি, মৌলবাদী চক্র, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি যেন ক্ষমতায় না আসতে পারে সে ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।
আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয় জনগণের জীবন মান উন্নত হয় সেটা আমরা প্রমাণ করেছি। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই দেশে এগিয়ে যাচ্ছে, বিদেশে বাংলাদেশের সম্মান মর্যাদা বেড়েছে অনেক।
২০০৯ সাল থেকে আজ পর্যন্ত যে পরিবর্তনটা দৃশ্যমান হয়েছে আওয়ামী লীগ ধারাবাহিকভাবে ক্ষমতা আছে বলেই এটা সম্ভব হয়েছে।
আমরা মানুষের মন জয় করেই ক্ষমতায় এসেছি। আর ক্ষমতায় এসে ধারাবাহিক উন্নয়ন করে যাচ্ছি।
আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর ৭৫ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত যে অন্যায় অত্যাচার করা হয়েছে আমরা তার প্রতিশোধ নেই নাই। আমরা অন্যায়ের জবাব দিচ্ছি উন্নয়ন করে।
আমাদের সরকার প্রতিটি জেলায় পরিকল্পিত উন্নয়ন করেছে। ফলে, আজ গ্রামে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা একেবারে নাই বললেই চলে।
সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে না পারলে গত সাড়ে চৌদ্দ বছরে আমরা যে উন্নয়ন করেছি তার সবকিছুই ধ্বংস হয়ে যাবে।
আওয়ামী লীগ সরকার যে উন্নয়ন করেছে সেগুলো বেশি করে প্রচার করতে দলীয় নেতা কর্মীদের নির্দেশ প্রদান করেন তিনি।
একই সঙ্গে উন্নয়ন যেন অব্যাহত থাকে এবং আওয়ামী লীগকে আবারও ক্ষমতায় আনা দরকার সেটাও মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে।
উন্নয়নের কথা মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়ার পাশাপাশি মানুষের আস্থা বিশ্বাস ও অর্জন করতে হবে।
সামনে জাতীয় নির্বাচন চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত দলকে আরো শক্তিশালী ও সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের নির্দেশ প্রদান করেন। -বাসস

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

আওয়ামী লীগকে আরও শক্তিশালী ও সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

আপডেট সময় : ০৫:৪৫:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ জুন ২০২৩

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসন্ন জাতীয় নির্বাচন চ্যালেঞ্জিং হবে উল্লেখ করে অব্যাহত উন্নয়নের স্বার্থে ক্ষমতার ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে দলের তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত শক্তিশালী ও সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি আজ গণভবনে ঢাকা উত্তর মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার একমাত্র শক্তি দল। সাংগঠনিক শক্তি ছাড়া বড় কোনো অর্জন সম্ভব নয়। তাই দলকে তৃণমূল পর্যায় থেকে সুসংগঠিত করতে হবে।’
এ প্রসঙ্গে তিনি দুঃসময়ে দলের পাশে থাকা নেতা-কর্মীরা যাতে অবহেলিত না হন সেদিকে বিশেষ নজর দেওয়ার জন্য দলের নেতাদের নির্দেশ দেন।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আওয়ামী লীগকে আবারো ক্ষমতায় আনতে তার দলের নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বাদে অন্য কেউ ক্ষমতা আসলে উন্নয়ন এবং দেশ ধ্বংস হয়ে যাবে।
দেশ বিরোধী, খুনি, মৌলবাদী চক্র, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি যেন ক্ষমতায় না আসতে পারে সে ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।
আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয় জনগণের জীবন মান উন্নত হয় সেটা আমরা প্রমাণ করেছি। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই দেশে এগিয়ে যাচ্ছে, বিদেশে বাংলাদেশের সম্মান মর্যাদা বেড়েছে অনেক।
২০০৯ সাল থেকে আজ পর্যন্ত যে পরিবর্তনটা দৃশ্যমান হয়েছে আওয়ামী লীগ ধারাবাহিকভাবে ক্ষমতা আছে বলেই এটা সম্ভব হয়েছে।
আমরা মানুষের মন জয় করেই ক্ষমতায় এসেছি। আর ক্ষমতায় এসে ধারাবাহিক উন্নয়ন করে যাচ্ছি।
আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর ৭৫ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত যে অন্যায় অত্যাচার করা হয়েছে আমরা তার প্রতিশোধ নেই নাই। আমরা অন্যায়ের জবাব দিচ্ছি উন্নয়ন করে।
আমাদের সরকার প্রতিটি জেলায় পরিকল্পিত উন্নয়ন করেছে। ফলে, আজ গ্রামে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা একেবারে নাই বললেই চলে।
সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে না পারলে গত সাড়ে চৌদ্দ বছরে আমরা যে উন্নয়ন করেছি তার সবকিছুই ধ্বংস হয়ে যাবে।
আওয়ামী লীগ সরকার যে উন্নয়ন করেছে সেগুলো বেশি করে প্রচার করতে দলীয় নেতা কর্মীদের নির্দেশ প্রদান করেন তিনি।
একই সঙ্গে উন্নয়ন যেন অব্যাহত থাকে এবং আওয়ামী লীগকে আবারও ক্ষমতায় আনা দরকার সেটাও মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে।
উন্নয়নের কথা মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়ার পাশাপাশি মানুষের আস্থা বিশ্বাস ও অর্জন করতে হবে।
সামনে জাতীয় নির্বাচন চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত দলকে আরো শক্তিশালী ও সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের নির্দেশ প্রদান করেন। -বাসস