• শুক্রবার, ০৯ জুন ২০২৩, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন
  • Arabic AR Bengali BN English EN French FR German DE

বিপিএলের প্রথম দিনে লড়বে কুমিল্লা-রংপুর, সিলেট-চট্টগ্রাম

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ / ৪১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২৩

আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) এবারের আসর। আর নবম আসর বিপিএলের উদ্বোধনী দিনে মাঠে গড়াবে দুটি ম্যাচ। দিনের প্রথম ম্যাচে দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে লড়বে সিলেট সিক্সার্স ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্ন্স। দিনের শেষ ম্যাচে সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে পরস্পরের মোকাবিলা করবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও রংপুর রাইডার্স। দুটি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শেরে-ই বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

এর আগে আজ (বৃহস্পতিবার) ট্রফি উন্মোচিত হয় মিরপুরে। সেখানে ফরচুন বরিশালের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান না থাকায় তার পরিবর্তে দলের প্রতিনিধি হিসেবে এসেছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। এছাড়া খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক হিসেবে ছিলেন ইয়াসির আলি রাব্বি। ঢাকা ডমিনেটরসের অধিনায়কত্বের দায়িত্বে পেয়ে উপস্থিত ছিলেন নাসির হোসেন। এছাড়া সিলেট সিক্সার্সের অধিনায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।
গতবারের মতো এবারো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন ইমরুল কায়েস। এছাড়া চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের অধিনায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শুভাগত হোম চৌধুরি। অন্যদিকে রংপুর রাইডার্সের দায়িত্বে পেয়ে নুরুল হাসান সোহান ছিলেন ট্রফি উন্মোচন অনুষ্ঠানে।

ট্রফি উন্মোচন অনুষ্ঠান শেষে কুমিল্লার অধিনায়ক ইমরুল কায়েস বলেন, কুমিল্লা সবসময় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো দল গড়ে। এ বছরও একই পরিকল্পনা। চেষ্টা করব এ বছরও শিরোপা ধরে রাখার জন্য। মাঠে ভালো খেলতে হবে। কাগজে কলমে যত শক্তিশালীই হন না কেন মাঠে খেলতে না পারলে লাভ হবে না।

চট্টগ্রাম অধিনায়ক শুভাগত হোম বলেন, সবার যে লক্ষ্য আমারও সেই লক্ষ্য। আমরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই মাঠে নামব। আমাদের শক্তি হলো টিম স্পিরিট। দল ভারসাম্যপূর্ণ। সেই হিসেবে আমরা আশা করতেই পারি।
রংপুর অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান বলেন, অবশ্যই আশা থাকবে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। ট্রফি এখনও ধরিনি। যদি চ্যাম্পিয়ন হই তাহলেই ধরব। আমাদের দল তরুণ, প্রাণশক্তিতে ভরপুর। দলে অনেক অলরাউন্ডার আছে। মাঠে শতভাগ দিলে ইনশাআল্লাহ ভালো কিছু হবে। অনুশীলন তো আমাদের জন্য ভালো সুযোগ। সময়সীমা ছিল না, ইচ্ছামতো নিজেদের মাঠে অনুশীলন করতে পেরেছি। কিন্তু ম্যাচ মিরপুরে। এখানে নিজেদের শতভাগ দিতে হবে।

সিলেট স্ট্রাইকার্স অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, শুরু হওয়ার পর বোঝা যাবে (বিপিএলের উত্তাপ)। তবে প্রত্যেকবারই খেলা শুরু হওয়ার পর তো খেলাটা ভালোই হয়। প্রতিযোগিতা থাকে। সবাই সবার দল নিয়েই ব্যস্ত থাকে। আশা করি, প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলকই হবে। ফ্র্যাঞ্চাইজি চায় ভালো কিছু করতে। সব দলই চায় চ্যাম্পিয়ন হতে। আমরাও অবশ্য তার ব্যতিক্রম কিছু না। এটা তো আর বলে কয়ে হবে না। মাঠে ভালো করতে হবে। ওয়ান বাই ওয়ান ম্যাচ…। কাল যদি ভালো করতে পারি, এটা তো মোমেন্টামের খেলা। শেষের দিকে না তাকিয়ে আমরা শুরু থেকে ভালো করার চেষ্টা করব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ