ঢাকা ১১:৫২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুরে দুই ভাইকে কুপিয়ে হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৯:১৯:২৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩ ৮৭ বার পড়া হয়েছে

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলায় সহোদর রফিকুল ও আবুজেল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২ এপ্রিল) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপুতি কুমার বিশ্বাস এ রায় ঘোষণা করেন।

রায়ের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) অ্যাডভোকেট কাজী শহীদুল হক।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, কাজিপুর গ্রামের আখের আলীর ছেলে আতিয়ার, কেয়ামতের ছেলে আ: হালিম, জলিলের ছেলে জালাল, নাজির উদ্দিনের ছেলে শরিফুল, শরিফ বাঘের ছেলে দবির, আকুলের ছেলে আজিজুর, মুসার্রোফ হোসেনের ছেলে মনির, দবিরের ছেলে শরিফ। এরা ৮ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এ মামলায় ৯ নম্বর আসামি পলাতক রয়েছে।

রায় শেষে আসামিদের মেহেরপুর জেলা কারাগারে পেরণ করা হয়েছে।

২০১২ সালের ১৬ জুন দিনগত রাতে দুই ভাই রফিকুল ও আবুজেলকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে আসামিরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মেহেরপুরে দুই ভাইকে কুপিয়ে হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড

আপডেট সময় : ০৯:১৯:২৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলায় সহোদর রফিকুল ও আবুজেল হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২ এপ্রিল) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপুতি কুমার বিশ্বাস এ রায় ঘোষণা করেন।

রায়ের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) অ্যাডভোকেট কাজী শহীদুল হক।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, কাজিপুর গ্রামের আখের আলীর ছেলে আতিয়ার, কেয়ামতের ছেলে আ: হালিম, জলিলের ছেলে জালাল, নাজির উদ্দিনের ছেলে শরিফুল, শরিফ বাঘের ছেলে দবির, আকুলের ছেলে আজিজুর, মুসার্রোফ হোসেনের ছেলে মনির, দবিরের ছেলে শরিফ। এরা ৮ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এ মামলায় ৯ নম্বর আসামি পলাতক রয়েছে।

রায় শেষে আসামিদের মেহেরপুর জেলা কারাগারে পেরণ করা হয়েছে।

২০১২ সালের ১৬ জুন দিনগত রাতে দুই ভাই রফিকুল ও আবুজেলকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে আসামিরা।